Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ ই-পেপার

News Of The day: তৃণমূলের শহিদ দিবস, নিহত কর্মীদের স্মরণ করবে বিজেপি-ও, আজ নজরে আর কী কী

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২১ জুলাই ২০২১ ০৯:০৪
গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ।

গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ।

তৃণমূলের 'শহিদ দিবস' পালন। বিজেপি-ও নিহত কর্মীদের শহিদ মর্যাদা দিয়ে দিনটি স্মরণ করতে চাইছে। রাতে দিল্লি যাচ্ছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের সামনে প্রতিবাদ কর্মী-সমর্থকদের। আজ, বুধবার নজরে থাকবে এই সব গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলি।

প্রতি বারের মতো এ বারও শহিদ পালন করবে তৃণমূল। তবে এ বার করোনার কারণে কলকাতার ধর্মতলায় কোনও সভা হবে না। ভার্চুয়াল মাধ্যমেই বক্তব্য রাখবেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়-সহ অন্য নেতারা। মুখ্যমন্ত্রীর ওই বক্তৃতা জেলা থেকেই ভিডিয়োতে শুনবেন তৃণমূলের কর্মী-সমর্থকরা। বঙ্গ জয়ের পর মমতার এখন লক্ষ্য দিল্লি। ২০২৪ সালে লোকসভা নির্বাচন রয়েছে। ওই নির্বাচনে মোদীর বিরোধী মুখ হিসেবে অনেকে মমতাকে চাইছেন। ফলে আজকের সভা থেকে কর্মী-সমর্থকদের উদ্দেশে ওই বিষয়ে তিনি কী বার্তা দেন, সে দিকে নজর থাকবে।

তৃণমূলের পাশাপাশি বিজেপি-ও আজ 'শহিদ দিবস' পালন করার কথা জানিয়েছে। ২০১৮ সালের পঞ্চয়েত নির্বাচন থেকে এখনও পর্যন্ত তাঁদের ১০০-র বেশি কর্মীকে হত্যা করা হয়েছে বলে দাবি বিজেপি-র। সেই উপলক্ষে আজ তারাও 'শহিদ' স্মরণ করবেন। এমনকি জেলায় জেলায় এই কর্মসূচি পালনের ডাক দেওয়া হয়েছে বলে গেরুয়া শিবির সূত্রে খবর। ফলে আজ নজর থাকবে সে দিকেও।

Advertisement

আজ দিল্লি যেতে পারেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তৃণমূল সূত্রে খবর, আজ রাতেই তিনি দিল্লি পৌঁছবেন। অভিষেকের সঙ্গে যাওয়ার কথা মুকুল রায়েরও। আবার এই মাসের শেষের দিকে দিল্লি যাওয়ার কথা মমতার। তৃণমূল নেত্রীর ওই সফরের আগে রাজধানীতে নতুন কোনও রাজনৈতিক সমীকরণ তৈরি করেন কি না অভিষেক, তা-ও নজরে রাখা হবে। যদিও তৃণমূলের একাংশ বলছেন, সংসদের অধিবেশনে যোগ দিতেই অভিষেক দিল্লি রওনা হচ্ছেন।

লগ্নিকারী সংস্থার সঙ্গে প্রাথমিক চুক্তিতে সাক্ষর করেছিলেন ইস্টবেঙ্গল কর্তারা। তবে সেই চুক্তি ঘিরেও রয়েছে জটিলতায়। গণমাধ্যমে চুক্তির শর্ত নিয়ে ক্ষোভ উগরে দেন লাল-হলুদ সমর্থকরা। এরই প্রতিবাদে আজ তাঁরা বিক্ষোভ দেখাতে পারেন ক্লাবের সামনে। অন্য দিকে, আজই কলকাতা লিগের ক্রীড়াসূচি ঘোষণা হওয়ার কথা আছে। চুক্তি পর্ব শেষ না হওয়ায় লিগ থাকা নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে ইস্টবেঙ্গলের। ফলে কলকাতা লিগের কর্তারাও ইস্টবেঙ্গলকে নিয়ে দোটানায় পড়েছেন। এখন লাল-হলুদের ভবিষ্যৎ কী হতে চলেছে লক্ষ্য থাকবে সে দিকেও।

এ ছাড়া আজ সংসদের তৃতীয় দিনের বাদল অধিবেশন, জ্বালানি তেলের দাম ওঠা-পড়া, বকরি ইদের মতো বিষয়গুলি নজরে থাকবে।

আরও পড়ুন

More from My Kolkata
Advertisement