Advertisement
২৫ জুন ২০২৪
rape

ধর্ষণে বাধা দেওয়ায় গলায় কোপ, তিন দিনের লড়াই শেষে আরজি করে মৃত্যু হল সেই যুবতীর

শুক্রবার রাতে ওই যুবতীকে জোর করে অন্ধকার বাঁশবাগানে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছিল দুষ্কৃতীরা। কিন্তু যুবতী বাধা দেওয়ায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাঁর গলায় ও শরীরে কোপ মারা হয়।

আরজি কর হাসপাতালে মৃত্যু নির্যাতিতার।

আরজি কর হাসপাতালে মৃত্যু নির্যাতিতার। প্রতীকী ছবি।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৮ অক্টোবর ২০২২ ১৩:২৬
Share: Save:

আরজি কর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন নিগৃহীতার মৃত্যু হল। হাসপাতাল সূত্রে খবর, সোমবার রাতে তাঁর মৃত্যু হয়।

শুক্রবার রাতে, উত্তর ২৪ পরগনায় এক যুবতীকে জোর করে ধরে ধর্ষণের চেষ্টা করে কয়েক জন দুষ্কৃতী। যুবতী নিজেকে ছাড়ানোর প্রাণপণ চেষ্টা করেন। সেই সময় যুবতীর শরীরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে বার বার আঘাত করে পালায় দুষ্কৃতীরা। তার পরেই যুবতীকে আরজি কর হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।

হাসপাতাল সূত্রে খবর, শরীরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাতের একাধিক চিহ্ন ছিল। শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁকে আইসিইউতে দেওয়া হয়। সেখানেই সোমবার রাতে তাঁর মৃত্যু হয়।

জানা গিয়েছে, শুক্রবার রাতে ওই যুবতীকে কয়েক জন দুষ্কৃতী ধরে অন্ধকার বাঁশবাগানের দিকে নিয়ে যেতে চায়। যুবতী যেতে অস্বীকার করলে তাঁর গলায় ও শরীরে ধারালো অস্ত্রের কোপ মারা হয়। যুবতীর চিৎকারে আশপাশের লোক চলে এলে পালায় দুষ্কৃতীরা। এক জনকে তাড়া করে ধরে ফেলেন স্থানীয় বাসিন্দারা। ধৃত আশিস পালকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় যুবতীকে পাঠানো হয় হাসপাতালে। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে কলকাতায় আরজি কর হাসপাতালে পাঠানো হয়। শুক্রবার রাত থেকে আরজি করের আইসিইউতেই ভর্তি ছিলেন তিনি। সোমবার রাতে তাঁর মৃত্যু হয়।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

rape Rape victim RG Kar Medical College Hospital
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE