Advertisement
০১ অক্টোবর ২০২২
himachal pradesh

Mountaineering: হিমাচলের পাহাড় চুড়োয় সফল অভিযান গোপালনগরের পর্বতারোহী সুপ্রতিমের

কলকাতা শহরের পর্বত অভিযাত্রী সংগঠন ‘শিখর মাউন্টেনিয়ারিং ক্লাব’ থেকে গোপাল দাসের নেতৃত্বে সাত সদস্যের একটি দল রওনা দেয় মনিরাঙের উদ্দেশে।

মনিরাঙের শৃঙ্গে সুপ্রতিম।

মনিরাঙের শৃঙ্গে সুপ্রতিম।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৯ অগস্ট ২০২২ ২৩:২৭
Share: Save:

হিমাচল প্রদেশের লাহুল-স্পিতি অঞ্চলের দুর্গম পর্বত শৃঙ্গ মনিরাং জয় করলেন উত্তর ২৪ পরগনায় বাসিন্দা সুপ্রতিম মজুমদার। চলতি মাসের গত ৪ তারিখ সকাল সাড়ে ১০টা নাগাদ মনিরাঙের শৃঙ্গে পৌঁছন তিনি। ৬,৫৯৩ মিটার (২১,৬৩০ ফুট) উঁচু ওই শৃঙ্গে দেশ এবং সংগঠনের পতাকা উড়িয়ে সম্প্রতি রাজ্যে ফিরে এসেছেন সুপ্রতিম।

কলকাতা শহরের পর্বত অভিযাত্রী সংগঠন ‘শিখর মাউন্টেনিয়ারিং ক্লাব’ থেকে গোপাল দাসের নেতৃত্বে সাত সদস্যের একটি দল রওনা দেয় মনিরাঙের উদ্দেশে। সেই দলেই ছিলেন গোপালনগরের বাসিন্দা সুপ্রতিম। তিনি জানান, ২৪ জুলাই হিমালয়ের চূড়া জয়ের লক্ষ্যে কলকাতা থেকে বেরিয়েছিলেন তাঁরা। শৃঙ্গে পৌঁছন ৪ অগস্ট। সুপ্রতিমের কথায়, ‘‘আগে মানালি পৌঁছই। তার সেখান থেকে গাড়িতে ‘মানে ভিলেজ’। ওখান থেকেই আমাদের হাঁটা শুরু। মাঝে খারাপ আবহাওয়ার বেস ক্যাম্পে দু’দিন বসেছিলাম। পরের দিকে অবশ্য আবহাওয়া ভাল হয়েছিল। কিন্তু তিন নম্বর ক্যাম্পের জলের অভাবের কারণে সমস্যায় পড়েছিলাম। যে দিন সামিট করেছিলাম, সে দিন একটু মেঘলা ছিল। সকাল সাড়ে ১০টা নাগাদ আমি সামিট করেছিলাম।’’

বেস ক্যাম্প।

বেস ক্যাম্প।

মনিরাং পর্বত আরোহণে সুপ্রতিম সঙ্গী ছিলেন হিমাচলের বাসিন্দা পীতাম্বর লাল (পবন)। তাঁদের পথপ্রদর্শক ছিলেন লীলাকরণ। মনিরাঙের শিখর ছুঁয়ে ওই দিনই (৪ অগস্ট) ক্যাম্পে ফিরে এসেছিলেন সুপ্রতিমরা। তিনি বলেন, ‘‘মনিরাং জয় ছোটবেলার স্বপ্ন ছিল। তা পূরণ করার অনুভূতিটাই আলাদা। এর জন্য অনেক বাধা পেরতে হয়েছে। যাওয়ার আগে অনেক পড়াশোনা করেছিলাম মনিরাং নিয়ে। তার সঙ্গে অনেক ফারাক ছিল। প্রচুর লুজ লক আর লুজ বোল্ডার। বরফের পরিমাণ অনেক কম। আমরা তো সামিটই খুঁজে পাচ্ছিলাম না!’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.