Advertisement
০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Agitation

Agitation: হাসনাবাদের গ্রামে রাস্তা অবরোধ

সোমবার সকাল সাড়ে ৯টা নাগাদ হাসনাবাদের রামেশ্বরপুর বাজারের কাছে এই ঘটনায় দীর্ঘক্ষণ যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

প্রতিবাদ: রাস্তায় আগুন জ্বেলে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন গ্রামবাসীরা।

প্রতিবাদ: রাস্তায় আগুন জ্বেলে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন গ্রামবাসীরা। ছবি: নির্মল বসু।

নিজস্ব সংবাদদাতা
হাসনাবাদ শেষ আপডেট: ০৬ জুলাই ২০২১ ০৭:৫২
Share: Save:

বিদ্যুৎ বণ্টন সংস্থার কলসেন্টার গ্রাম থেকে সরানো যাবে না, এই দাবিতে আগুন জ্বেলে বিক্ষোভ দেখাল জনতা। বসিরহাট-নেবুখালি রাস্তা অবরোধ করা হয়। সোমবার সকাল সাড়ে ৯টা নাগাদ হাসনাবাদের রামেশ্বরপুর বাজারের কাছে এই ঘটনায় দীর্ঘক্ষণ যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। শেষে স্থানীয় বিধায়ক এবং পুলিশ গিয়ে লোকজনের সঙ্গে কথা বলে পরিস্থিতি আয়ত্তে আনেন।

Advertisement

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বসিরহাট-নেবুখালি রোডের হাসনাবাদের রামেশ্বরপুর বাজারের কাছে বিদ্যুৎ দফতরের একটি কলসেন্টার আছে। সম্প্রতি ওই কলসেন্টারটি অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে বলে গ্রামবাসীরা জানতে পারেন। প্রতিবাদে এ দিন সকালে রামেশ্বরপুর মোড়ের কাছে রাস্তার উপরে আগুন জ্বালিয়ে বিক্ষোভ শুরু হয়।

স্থানীয় বাসিন্দা স্বপন মণ্ডল, লিয়াকত গাজিরা জানান, রাতবিরেতে এলাকায় বিদ্যুতের খুঁটি ভেঙে গেলে বা কোথাও কোনও তার ছিঁড়ে গেলে ওই কলসেন্টারে ফোন করা হলে কর্মীরা দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে মেরামত করেন। গ্রাম থেকে যদি কল সেন্টার সরিয়ে ন্যাজাট অথবা হাসনাবাদে নিয়ে যাওয়া হয়, তা হলে গ্রামের মানুষ পরিষেবা থেকে বঞ্চিত হবেন। তাই আমরা চাই দফতরটি রামেশ্বরপুর বাজারেই থাকুক।’’

অবরোধ-বিক্ষোভের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ। হিঙ্গলগঞ্জের বিধায়ক দেবেশ মণ্ডলও আসেন। তাঁরা বিক্ষোভকারীদের দাবি খতিয়ে দেখার জন্য সংশ্লিষ্ট দফতরের আধিকারিকের সঙ্গে আলোচনার আশ্বাস দিলে অবরোধ তুলে নেয় জনতা। দেবেশ বলেন, ‘‘এলাকার মানুষের যাতে সুবিধা হয়, সেই ব্যবস্থা করার জন্য বিদ্যুৎ দফতরের আধিকারিকদের সঙ্গে কথা বলব।’’ স্থানীয় বিদ্যুৎ দফতরের পক্ষে গ্রামের মানুষের চাহিদার কথা মাথায় রেখে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.