Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৮ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

Transport: সীমান্তবর্তী টার্মিনালের দায়িত্ব নিয়েই পরিবহণ দফতরের রাজস্ব আয় পাঁচ কোটির বেশি

ইতিমধ্যে, সীমান্তবর্তী ট্রাক টার্মিনাল-সহ পূর্ব মেদিনীপুরের হলদিয়া ট্রাক টার্মিনাল নিয়ে আসা হয়েছে পরিবহণ দফতরের অধীনে।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৮ মে ২০২২ ১৫:৫০
Save
Something isn't right! Please refresh.
সীমান্তের সাত ট্রাক টার্মিনালের দায়িত্ব নিয়েই রাজস্ব আদায়ে সাফল্য পেল পরিবহণ দফতর।

সীমান্তের সাত ট্রাক টার্মিনালের দায়িত্ব নিয়েই রাজস্ব আদায়ে সাফল্য পেল পরিবহণ দফতর।
প্রতীকী ছবি

Popup Close

সীমান্তবর্তী টার্মিনালের দায়িত্ব হাতে নিয়েই ভাল রাজস্ব আদায় করে দেখাল পরিবহণ দফতর। মাত্র এক মাস সময়ে পাঁচ কোটির বেশি টাকা আয় হয়েছে বলেই সূত্রের খবর। সম্প্রতি এই টার্মিনালগুলির দায়িত্ব হাতে নেয় পরিবহণ দফতর। শুরু হয় বাস টার্মিনালের পরিচালন পদ্ধতি বদলের কাজ। কারণ, এতদিন বনগাঁ, কোচবিহার, মালদহের মতো এলাকায় টার্মিনালগুলি পরিচালনার দায়িত্ব ছিল স্থানীয় পুরসভা কিংবা পঞ্চায়েতের হাতে। তাই তাদের পরিকাঠামোয় কাজ করা সম্ভব ছিল না পরিবহণ দফতরের। পরিকাঠামো বদল করে টার্মিনাল পরিচালনার কাজ শুরু হতেই অল্প সময়ে রাজস্ব আদায়ে সাফল্য পায় পরিবহণ দফতর।

ইতিমধ্যে, সীমান্তবর্তী ট্রাক টার্মিনাল-সহ পূর্ব মেদিনীপুরের হলদিয়া ট্রাক টার্মিনাল নিয়ে আসা হয়েছে পরিবহণ দফতরের অধীনে। আর এর থেকে এখনও পর্যন্ত রাজস্ব আদায় হয়েছে পাঁচ কোটি ২৫ লক্ষ টাকার বেশি। এছাড়া বিভিন্ন জেলায় এই ট্রাক টার্মিনালগুলি নিয়ে জমি সংক্রান্ত যে সমস্যা রয়েছে তা দ্রুত সমাধান করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে সংশ্লিষ্ট জেলাশাসকদের। তাতেও পরিবহণ দফতরের ভাল রাজস্ব আদায় হবে বলেই পরিবহণ দফতর সূত্রের খবর। গত শুক্রবার এই টার্মিনালগুলি নিয়ে দফতরের শীর্ষ আধিকারিক এবং জেলাশাসকদের নিয়ে বৈঠক করেছেন মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী।

উল্লেখ্য,গত ফেব্রুয়ারি মাসে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সীমান্তবর্তী ট্রাক টার্মিনালগুলিকে পরিবহণ দফতরের অধীনে আনার নির্দেশ দেন। ৭ ফেব্রুয়ারির মধ্যে এই ট্রাক টার্মিনালগুলি পরিবহণ দফতরকে হস্তান্তর করার কাজ শুরু হয়। নতুন সিদ্ধান্ত কার্যকর করার পর সব ট্রাক টার্মিনালে সমান ভাড়া নেওয়া হবে বলেও সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেন পরিবহণ দফতর। নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তিন হাজার কেজি পর্যন্ত ওজনের গাড়ির ২৪ ঘণ্টায় পার্কিং ফি বাবদ দিতে হবে ১৫০ টাকা।‌ তার পরে প্রতি ঘণ্টায় ১০ টাকা করে নেওয়া হয়। গাড়ির ওজন যদি তিন হাজার থেকে সাড়ে সাত হাজার কেজির মধ্যে হয়, তাহলে ২৪ ঘণ্টার ভাড়া গুনতে হবে ২০০ টাকা। পরবর্তী প্রতি ঘণ্টার জন্য দিতে হয় ২০ টাকা। সাড়ে সাত হাজার কেজি থেকে সাড়ে ১৬ হাজার কেজি ওজনের গাড়ির ফি ৩০০ টাকা প্রতি ২৪ ঘণ্টায়। এবং তার পরবর্তী প্রতি ঘণ্টার জন্য দিতে হবে ৩০ টাকা করে। সাড়ে ১৬ হাজার ৫০০ কেজি থেকে ৩৫ হাজার ২০০ কেজি ওজনের গাড়ির পার্কিং ফি ৩৫০ টাকা দিতে হবে ২৪ ঘণ্টার জন্য। পরবর্তী প্রতি ঘণ্টার জন্য দিতে হবে ৪০ টাকা করে।

Advertisement

একই রকম ভাবে ৩৫ হাজার ২০০ কেজির অধিক হলে ২৪ ঘণ্টার ফি ৪০০ টাকা। এবং তার পরে প্রতি ঘণ্টায় ৫০ টাকা করে। পরিবহণ দফতরের এক কর্তা বলেন, ‘‘ দফতরের হাতে টার্মিনাল পরিচালনা দায়িত্ব আসার পর কাজে পদ্ধতিগত বদল এসেছে। এর ফলে ট্রাক টার্মিনালগুলির পরিকাঠামো যেমন উন্নত হয়েছ, তেমনই সীমান্ত দিয়ে অবৈধ কিছু পাচার হয়ে যাচ্ছে কিনা, তা-ও পরিবহণ দফতরের নজরে আসায় চোরাচালান কমেছে। তাই রাজস্ব বাড়াতে যেমন আমরা সাফল্য পেয়েছি, তেমন উন্নত পরিষেবাও দিয়েছি।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement