×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৪ অগস্ট ২০২১ ই-পেপার

বিশ্বভারতীর উপাচার্য বিদ্যুতের বিরুদ্ধে এ বার ভার্চুয়াল বৈঠকে কুকথার অভিযোগ

নিজস্ব সংবাদদাতা
বোলপুর ০৯ জুন ২০২১ ২০:১১
উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী।

উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী।
ফাইল চিত্র।

ফের বিতর্কে বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বিদুৎ চক্রবর্তী। এ বার বিশ্বভারতীর ভার্চুয়াল বৈঠকে শিক্ষকদের অপমান করার অভিযোগ উঠল উপাচার্যের বিরুদ্ধে। মঙ্গলবারের ওই ভার্চুয়াল বৈঠকের দু’টি অডিয়ো ক্লিপ ইতিমধ্যেই সামনে এসেছে। তবে ওই অডিয়ো ক্লিপ দু’টির সত্যতা যাচাই করেনি আনন্দবাজার ডিজিটাল।

বিশ্বভারতী সূত্রের খবর, কোভিড পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনায় উদ্দেশ্যে মঙ্গলবার বিকেলে ওই ভার্চুয়াল বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছিল। বৈঠকে যোগ দিয়েছিলেন বিশ্বভারতীর শিক্ষক, আধিকারিক এবং অশিক্ষক কর্মীরা। এই বৈঠকেই উপাচার্য বিদুৎ শিক্ষকদের একাংশের বিরুদ্ধে আপত্তিকর বলেন, অপমান করেন বলে অভিযোগ। ভার্চুয়াল বৈঠকে যোগদানকারী এক জনের বিরুদ্ধে তিনি ‘বাইরের লোকের দালালি’ করার অভিযোগ তোলেন। এমনকি, শিক্ষকদের একাংশের বিশ্বভারতীর শিক্ষক হওয়ার যোগ্যতা আছে কি না, সে প্রশ্নও তোলেন উপাচার্য।

ইতিমধ্যেই বিশ্বভারতীর শিক্ষক সংগঠন ভিবিইউএফএ-র তরফে উপাচার্যের বিরুদ্ধে অশালীন মন্তব্যের অভিযোগ তোলা হয়েছে। অভিযোগের সমর্থনে ভার্চুয়াল বৈঠকের ওই দু’টি অডিয়ো ক্লিপও প্রকাশ করা হয়েছে শিক্ষক সংগঠনের তরফে। বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়া এবং আশ্রমিকদের একাংশ উপাচার্যের এমন আচরণের প্রতিবাদে সরব হয়েছেন। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রের খবর, বিশ্বভারতীর নানান বিষয় নিয়ে প্রধানমন্ত্রী তথা বিশ্বভারতীর আচার্যকে একাধিক বার চিঠি দেওয়া হয়েছে। আর সেই বিষয় নিয়েই কথা বলতে গিয়ে উপাচার্য মঙ্গলবার অধ্যাপকদের বিরুদ্ধে অপমানজনক কথাবার্তা বলেন। শিক্ষকদের অভিযোগ সম্পর্কে প্রতিক্রিয়া জানতে চেয়ে, বিশ্বভারতীর জনসংযোগ আধিকারিক অনির্বাণ সরকারকে বার বার ফোন করা হলেও তিনি ফোন ধরেনননি।

Advertisement
Advertisement