Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

তারাপীঠে পাল্টা ‘চ়ড়াম-চড়াম’ বিজেপির, পুরুলিয়া থেকেই সবচেয়ে বড় বার্তা, বলছে রাজ্য নেতৃত্ব

জনসভার আগে পুরুলিয়ার শহরের সীমা ছাড়িয়ে লাটগাঁ নামের একটি গ্রামে যাবেন অমিত শাহ। গ্রামের সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথা বলবেন।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৮ জুন ২০১৮ ১৩:৩৩
Save
Something isn't right! Please refresh.
তারাপীঠ মন্দিরে অমিত শাহ। নিজস্ব চিত্র।

তারাপীঠ মন্দিরে অমিত শাহ। নিজস্ব চিত্র।

Popup Close

সকালে তারাপীঠ। সেখানে পুজো দিয়ে দুপুরে পুরুলিয়া। বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহের কর্মসূচির ফোকাসে বাংলার পশ্চিমাঞ্চল।

সদ্য সমাপ্ত পঞ্চায়েত নির্বাচনে রাজ্যের এই পঞ্চিমাঞ্চলেই সবচেয়ে বাড়বাড়ন্ত হয়েছে বিজেপির। ভোটের পর এই পঞ্চিমাঞ্চলেই আবার বিজেপির উপর সবচেয়ে বেশি আক্রমণ হয়েছে। বাংলা সফরের দ্বিতীয় তথা শেষ দিনে রাজ্যের পশ্চিমপ্রান্তের সেই পুরুলিয়া থেকেই প্রকাশ্য রাজনৈতিক বার্তা দিতে চলেছেন নরেন্দ্র মোদীর প্রধান সেনাপতি।

বুধবার দিনভর কলকাতা ও হাওড়ায় একগুচ্ছ কর্মসূচিতে ব্যস্ত ছিলেন অমিত শাহ। দলীয় বৈঠকে তিনি তৃণমূলের বিরুদ্ধে সর্বাত্মক লড়াইয়ের বার্তা দিয়েছেন বলে বিজেপি সূত্রে জানা গিয়েছে। দলীয় কর্মসূচির বাইরে গিয়ে জিডি বিড়লা সভাঘরে বঙ্কিমচন্দ্র স্মারক বক্তৃতায় অংশ নেন অমিত শাহ। কংগ্রেসের ‘তোষণ রাজনীতি’কে সেই সভায় তিনি আক্রমণ করেন। কিন্তু বাংলার সাধারণ বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের প্রতি দলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের বার্তা কী, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বা তৃণমূলের প্রতিই বা হুঁশিয়ারির সুরটা কেমন হবে, বুধবার কোনও কর্মসূচিতে তা খুব স্পষ্ট করে অমিত শাহের মুখ থেকে শোনা যায়নি। শোনা যাবে আজ।

Advertisement

রাজ্য বিজেপির অন্যতম সাধারণ সম্পাদক তথা মুখপাত্র সায়ন্তন বসু বলেন, ‘‘অমিত শাহের বাংলা সফরে সবচেয়ে বড় ঘটনা ঘটতে চলেছে পুরুলিয়াতেই। শিমুলিয়ার ময়দানে জনসভা থেকে অমিতজি কী বলেন, লক্ষ্য রাখুন সে দিকেই, আসল বার্তাটি ওই জনসভা থেকেই পাবেন।’’

বুধবার রাতেই কলকাতা থেকে পুরুলিয়ার উদ্দেশে রওনা হয়ে যান সায়ন্তন বসু। বৃহস্পতিবার রওয়ানা হয়েছেন শমীক ভট্টাচার্য। রাজ্য বিজেপির গোটা শীর্ষ নেতৃত্ব আজ অমিত শাহের মঞ্চে হাজির থাকছেন। তবে জনসভার আগে পুরুলিয়ার শহরের সীমা ছাড়িয়ে লাগদা নামের একটি গ্রামে যাবেন অমিত শাহ। গ্রামের সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথা বলবেন। বিজেপির রাঢ়বঙ্গ জোনের আহ্বায়ক নির্মল কর্মকার জানালেন, বাড়ি বাড়ি গিয়ে সাধারণ মানুযের সঙ্গে কথা বলবেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি।

দেখুন ভিডিয়ো

আরও পড়ুন: সমঝোতা ভুলে যান, সরাসরি সঙ্ঘাত তৃণমূলের সঙ্গেই, দলকে স্পষ্ট বার্তা অমিত শাহের

আরও পড়ুন: রাজ্যসভার পদে তৃণমূল লড়লে পাশে থাকবে কংগ্রেস

পুরুলিয়া এখন সরগরম। তেমনই সরগরম কিন্তু অনুব্রত মণ্ডলের জেলা বীরভূম। কলকাতা থেকে হেলিকপ্টারে করে এ দিন সকালে বীরভূমের উদ্দেশ্যে রওনা দেন মোদীর সভাপতি। বেলা সাড়ে ১১টা নাগাদ তারাপীঠের কাছে তারাপুরে নামে অমিত শাহের হেলিকপ্টার। সেখান থেকে সড়কপথে বিজেপি সভাপতির কনভয় পৌঁছয় তারাপীঠের মন্দিরে।

অমিত শাহকে বীরভূমে স্বাগত জানাতে স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব অভিনব আয়োজন করে। শতাধিক ঢাকের বোলে স্বাগত জানানো হয় বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতিকে। স্থানীয় বিজেপি কর্মীদের কথায়— অন্য সময় অনুব্রত মণ্ডল চড়াম-চড়াম আওয়াজ শোনান বিরোধীদের। এবার অনুব্রত মণ্ডলকে চড়াম-চড়াম শুনতে হবে। অমিত শাহের সফর থেকেই তার সূচণা হয়ে যাচ্ছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement