Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ ই-পেপার

মতুয়া-পাড়ায় যাওয়া স্থগিত অমিত শাহের

নিজস্ব সংবাদদাতা
বনগাঁ ১৫ ডিসেম্বর ২০২০ ০৪:৪৯
—ফাইল চিত্র।

—ফাইল চিত্র।

এ বারের রাজ্য সফরে মতুয়া এলাকায় যাচ্ছেন না কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। রাজ্য বিজেপি নেতারা জানিয়েছিলেন, এই সফরে শাহ উত্তর ২৪ পরগনার মতুয়া অধ্যুষিত এলাকায় যাবেন এবং নয়া নাগরিকত্ব আইন নিয়ে তাঁদের আশ্বাস দেবেন।

সোমবার শাহের যে কর্মসূচি রাজ্য বিজেপি জেনেছে, তাতে উত্তর ২৪ পরগনা নেই। যার অর্থ, তিনি মতুয়া এলাকায় যাবেন না। ফলে নাগরিকত্ব আইন নিয়েও মতুয়াদের কাছে গিয়ে আলাদা ভাবে কোনও বার্তা দেবেন না। যদিও বিজেপির রাজ্য নেতৃত্বের দাবি, এ বারে না হলেও পরে নিশ্চয়ই মতুয়াদের কাছে যাবেন শাহ।

দু’দিনের সফরে শাহ রাজ্যে আসবেন শনিবার ১৯ ডিসেম্বর। আপাতত যা স্থির আছে, তাতে তাঁর সে দিন মেদিনীপুরে যাওয়ার কথা। পর দিন রবিবার তাঁর যাওয়ার কথা বোলপুরে। সেখানে বিশ্বভারতীতে একটি কর্মসূচি রয়েছে তাঁর। বাইরেও একটি রোড শো এবং সভার আয়োজন হচ্ছে।

Advertisement

মতুয়াদের নাগরিকত্বের প্রশ্নে কেন্দ্রের ভূমিকা যথেষ্ট ইতিবাচক নয় বলে ইতিমধ্যেই প্রশ্ন তুলেছেন বনগাঁর বিজেপি সাংসদ শান্তনু ঠাকুর। কয়েক দিন আগে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বনগাঁয় বিশাল সমাবেশ করে মতুয়া সম্প্রদায়ের বিভিন্ন দাবিদাওয়া উদার হস্তে পূর্ণ করেছেন। মতুয়ারা যে এ দেশেরই নাগরিক এবং আলাদা ভাবে তাঁদের আর কোনও পরিচয়পত্রের দরকার নেই, সে কথাও জোরের সঙ্গে ফের জানিয়ে দিয়ে এসেছেন মুখ্যমন্ত্রী। মতুয়াদের প্রতি তাঁর এই মনোভাবকে স্বাগত জানিয়েছেন শান্তনুও। এই অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতেই শাহের মতুয়া পাড়ার কর্মসূচি স্থগিত হল কি না, তা নিয়ে চর্চা চলছে রাজনৈতিক মহলে।

শাহের মেদিনীপুর সফরও অবশ্য রাজনৈতিক ভাবে তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে। বিশেষত শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে তৃণমূলের দূরত্ব তৈরি হওয়া এবং তাঁর দল বদলের সম্ভাবনা নিয়ে গুঞ্জন জোরদার হওয়ার সঙ্গে মেদিনীপুরে শাহের সফর বিষয়টিকে বাড়তি মাত্রা দিচ্ছে। যদিও মেদিনীপুর শহরে শাহ যেখানে সভা করবেন, সেটি বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের লোকসভা কেন্দ্র এবং তা পশ্চিম মেদিনীপুরে পড়ে। শুভেন্দুর নিজের জেলা পূর্ব মেদিনীপুর। তবে সম্প্রতি মমতা মেদিনীপুরে গিয়েও সভা করেছেন এবং সেখানে দুই মেদিনীপুর ও ঝাড়গ্রামের প্রায় সব বিধায়কই উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন

More from My Kolkata
Advertisement