×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১২ মে ২০২১ ই-পেপার

হচ্ছে না উলুবেড়িয়ার রোড শো, বিদ্যাসাগরের কলকাতার বাড়ি পরিদর্শনও বাতিল করলেন অমিত

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৯ জানুয়ারি ২০২১ ০৮:৩০
রবিবার উলুবেড়িয়ায় রোড শো করার কথা ছিল শাহের।

রবিবার উলুবেড়িয়ায় রোড শো করার কথা ছিল শাহের।
ছবি: সংগৃহীত।

দুপুরে বাতিল হয় উলুবেড়িয়ার রোড শো। সন্ধ্যায় বাতিল করা হল ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের কলকাতার বাড়ি পরিদর্শন। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের আসন্ন কলকাতা সফরের কর্মসূচি নিয়ে বৃহস্পতিবার দিনভর এই রদবদল চলল। শেষ পর্যন্ত কোনটা কত দূর কার্যকর হবে, এ দিন রাত পর্যন্ত তা পরিষ্কার হয়নি।

শাহর কলকাতা পৌঁছনোর কথা আজ, শুক্রবার রাতে। শনিবার তাঁর মায়াপুরে ইসকন মন্দির ঘুরে ঠাকুরনগরে সভা করার কথা। ওই দিন তাঁর সাংগঠনিক বৈঠকও করার সম্ভাবনা আছে। রবিবার তাঁর উলুবেড়িয়ায় রোড শো করার কথা ছিল। কিন্তু রাজ্য বিজেপির তরফে হাওড়া-হুগলি-মেদিনীপুরের পর্যবেক্ষক তথা পুরুলিয়ার সাংসদ জ্যোতির্ময় সিংহ মাহাতো এ দিন দুপুরে সাংবাদিক বৈঠকে জানান, ‘বিশেষ কারণে’ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর উলুবেড়িয়া সফর স্থগিত রাখা হয়েছে। তবে এই ‘বিশেষ কারণ’ কী, তা জানাতে চাননি জ্যোতির্ময় বা বিজেপির হাওড়া (গ্রামীণ) জেলা নেতৃত্ব। তাঁরা জানান, হাওড়ার ডুমুরজলায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সমাবেশের কর্মসূচি অপরিবর্তিত আছে। ওই সমাবেশ-মঞ্চে মন্ত্রিত্ব ত্যাগী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়, সদ্য তৃণমূল থেকে বহিষ্কৃত বালির বিধায়ক বৈশালী ডালমিয়া, উত্তরপাড়ার বেসুরো বিধায়ক প্রবীর ঘোষাল এবং হাওড়ার প্রাক্তন মেয়র রথীন চক্রবর্তী-সহ কয়েক জন বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন বলে দলীয় সূত্রের দাবি। ওই সূত্রের আরও দাবি, বৈশালীর সঙ্গে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সরাসরি কথাও হয়েছে।

আগে ঠিক ছিল, রবিবার বিদ্যাসাগরের কলকাতার বাদুড়বাগানের বাড়িতেও যাবেন শাহ। কিন্তু এ দিন সন্ধ্যায় বিজেপি সূত্রে জানা যায়, সেই কর্মসূচি হচ্ছে না। বিজেপির রাজ্য সভাপতি প্রতাপ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‘বিদ্যাসাগরের বাড়ি এখন রাজ্য সরকার অধিগ্রহণ করেছে। আমরা পূর্ত দফতরকে চিঠি দিয়ে জানিয়েছিলাম, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রবিবার বিদ্যাসাগরের বাড়িতে শ্রদ্ধা জানাতে যেতে চান। কিন্তু পূর্ত দফতরের কোনও জবাব বৃহস্পতিবার রাত পর্যন্ত পাইনি।’’ বিজেপি সূত্রের খবর, শাহ শেক্সপিয়র সরণিতে অরবিন্দ ভবনে যেতে পারেন। রবিবার সকালে ভারত সেবাশ্রম সঙ্ঘ ও দুপুরে হাওড়ার কর্মসূচির পরে কারও বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজ সেরে বেলুড় মঠেও যেতে পারেন তিনি।

Advertisement

বিজেপি শাহের উলুবেড়িয়া সফর বাতিলের কারণ না জানালেও রাজ্য এবং জেলা নেতৃত্বের অনেকে ঘনিষ্ঠ মহলে জানিয়েছেন, একই দিনে জেলার দু’টি জায়গায় কর্মসূচি হলে কোনওটিতেই ভিড় না-হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। সেই কারণেই উলুবেড়িয়ার সব কর্মী-সমর্থকদের হাওড়া সদরের সভায় হাজির করানোর চেষ্টা চলছে। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের অনেকের অবশ্য অভিমত, উলুবেড়িয়ার মতো সংবেদনশীল এলাকায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর রোড শো না করার সিদ্ধান্ত বিচক্ষণতার পরিচয়। কারণ, সেখানে কোনও অবাঞ্ছিত ঘটনা ঘটলে তার জের বহু দূর গড়াতে পারত।

এ দিকে রবিবার উলুবেড়িয়া শহরে শাহের প্রস্তাবিত রোড শোয়ের প্রস্তুতি হিসাবে সেখানে দেওয়াল লেখা হয়েছিল। মোড়ে মোড়ে ‘তোরণ’ তৈরিও শুরু হয়। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ওই কর্মসূচি হচ্ছে না জেনে এ দিন বিজেপির হাওড়া (গ্রামীণ) জেলা কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ দেখান দলীয় কর্মীরা। কার্যালয়ের গ্যারেজে তালাও ঝুলিয়ে দেন তাঁরা। এ নিয়ে বিজেপির হাওড়া (গ্রামীণ) জেলা সভাপতি প্রত্যুষ মণ্ডলের প্রতিক্রিয়া, ‘‘স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর আসার কথা শুনে কর্মীদের মধ্যে উন্মাদনা তৈরি হয়েছিল। উনি আসবেন না শুনে ওদের মন খারাপ হয়েছে। তারই বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে।’’ সুযোগ পেয়ে বিজেপিকে খোঁচা দিতে ছাড়েনি তৃণমূল। উলুবেড়িয়া পূর্ব কেন্দ্রের তৃণমূল বিধায়ক ইদ্রিশ আলির মন্তব্য, ‘‘উলুবেড়িয়ার মানুষ বিজেপির পাশে নেই। লোক জমায়েত করতে পারবে না বুঝেই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর রোড শো বাতিল করেছে।’’

Advertisement