×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২০ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

প্রার্থীর নাম ফাঁকা রেখেই তৃণমূলের দেওয়াল লিখন শুরু ভাতারে

নিজস্ব সংবাদদাতা
ভাতার০৪ ডিসেম্বর ২০২০ ১৭:০৭
ভাতারে তৃণমূলের দেওয়াল লেখার কাজ চলছে। নিজস্ব চিত্র।

ভাতারে তৃণমূলের দেওয়াল লেখার কাজ চলছে। নিজস্ব চিত্র।

বিধানসভার নির্বাচনহতে দেরি রয়েছে অনেকটাই। কমিশন জারি করেনি বিজ্ঞপ্তি। দলও প্রকাশ করেনি প্রার্থী তালিকা। তা বলে বসে নেই শাসকদল তৃণমূলের কর্মীরা। তারা নিজেদের এলাকায় শুরু করে দিয়েছে দেওয়াল লিখন। প্রার্থীর জায়গা ফাঁকা রেখেই দেওয়াল লেখার দেখা গেল এ বার পূর্ব বর্ধমানের ভাতারে।

ভাতার বিধানসভার অন্তর্ভুক্ত আয়মাপাড়া গ্রামে তৃণমূল কর্মীরা গ্রামজুড়ে দেওয়াল লেখার কাজ করছেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নামেই দেওয়াল লিখছেন তাঁরা। রাজ্য সরকারের বিভিন্ন উন্নয়মমুখী প্রকল্পগুলো তুলে ধরা হচ্ছে দেওয়ালে। কন্যাশ্রী থেকে যুবশ্রী,সবুজসাথী থেকে রূপশ্রী, স্বাস্থ্যসাথী থেকে কৃষকবন্ধু— এসব প্রকল্পই উঠে আসছে দেওয়ালে দেওয়ালে।

সেখানকার তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী সেখ সাহাদ আলি বলেছেন,‘‘গত লোকসভা নির্বাচনে ভাতার বিধানসভা ২৭ হাজার ভোটে লিড দিয়েছে। গত ১০ বছরে এলাকার প্রচুর উন্নতি হয়েছে। তাই উন্নয়নমুখী প্রকল্পগুলি দেওয়াল লেখায় তুলে ধরা হচ্ছে।’’ লোকসভা ভোটের থেকে সামনের বিধানসভা ভোটে আরও বেশি ভোটে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থীজিতবেন বলে আশা তাঁর। পাশাপাশি তৃণমূল যুবকর্মীরা বাড়ি বাড়ি প্রচারও শুরু করেছেন।

Advertisement

এ ব্যাপারে ভাতারের বিধায়ক সুভাষ মণ্ডল বলেছেন,‘‘গোটা রাজ্যের মতোএখানেও প্রচুর কাজ হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে আমরা এলাকায় একজোট হয়ে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্পগুলির কাজ করেছি।তাই মানুষ এই সরকারের পাশে আছে।মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশে আছে।’’একই সুর রাজ্য তৃণমূল মুখপাত্র তথা পূর্ব বর্ধমান জেলা পরিষদের সহ-সভাধিপতি দেবু টুডুর গলাতেও। তবে এই দেওয়াল লেখা দেখে বিজেপি জেলা সভাপতি সন্দীপ নন্দীর টিপ্পনী,‘‘দেওয়াল লিখে কী হবে,তৃণমূলের ললাটের লিখন হয়ে গিয়েছে। ঠিক সময়ে রাজ্যের মানুষ তার জবাব দেবে।’’

Advertisement