Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২০ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

জলপ্রকল্প নিয়ে ‘তর্জা’, মেয়রের বিরুদ্ধে ‘সরব’ ডেপুটি মেয়র

নিজস্ব সংবাদদাতা
আসানসোল ১১ জুন ২০২০ ০৭:৪৮
মেয়র জিতেন্দ্র তিওয়ারি- ডেপুটি মেয়র তবসসুম আরা

মেয়র জিতেন্দ্র তিওয়ারি- ডেপুটি মেয়র তবসসুম আরা

তৃণমূল পরিচালিত আসানসোল পুরসভার মেয়র জিতেন্দ্র তিওয়ারির বিরুদ্ধে মন্তব্য করছেন দলেরই ডেপুটি মেয়র তবসসুম আরা। এমনই একটি ভিডিয়ো (সত্যতা যাচাই করেনি আনন্দবাজার) বুধবার ‘সোশ্যাল মিডিয়া’য় ছড়িয়ে পড়ায় হইচই পড়ল পশ্চিম বর্ধমান জেলা তৃণমূলের অন্দরে।

ওই ভিডিয়োয় ডেপুটি মেয়রকে দাবি করতে দেখা যায়, গত মঙ্গলবার কুলটির জলপ্রকল্প থেকে গৃহ-সংযোগের অনুষ্ঠানে তাঁকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। সে জন্য তিনি ‘খুবই ব্যথিত’। ওই ভিডিয়োয় মেয়রের প্রতি তাঁকে বলতে শোনা যায়, “এক জন জেলা সভাপতি হিসেবে আপনার উচিত সবাইকে সঙ্গে নিয়ে চলা। কিন্তু আপনি দল ভাঙার কাজ করে চলেছেন। আমি এটা সমর্থন করি না।” পাশাপাশি, পুরসভার পরিচালনাগত নানা ‘ত্রুটি’র কথাও উল্লেখ করেন ডেপুটি মেয়র।

যদিও ডেপুটি মেয়রের এমন মন্তব্য প্রসঙ্গে মেয়র তথা তৃণমূলের জেলা সভাপতি জিতেন্দ্রবাবুর প্রতিক্রিয়া, “এ বিষয়ে কোনও মন্তব্য করছি ন।” পুরসভার মেয়র পারিষদ (জল) পূর্ণশশী রায় অবশ্য দাবি করেন, ‘‘প্রকল্প উদ্বোধনের বিষয়টি অনেক আগে থেকেই ডেপুটি মেয়র জানতেন। তার পরেও কেন এই অভিযোগ, তা জানি না।’’

Advertisement

ভিডিয়োটি প্রকাশ্যে আসার পরেই তৃণমূলের অন্দরে তা নিয়ে বিতর্কও তৈরি হয়েছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক তৃণমূলের একাধিক জেলা স্তরের নেতার পর্যবেক্ষণ, আসানসোল পুরসভার ডেপুটি মেয়রের এ ভাবে প্রকাশ্যে দলের নেতার বিরুদ্ধেই নানা প্রতিক্রিয়া দেওয়া আখেরে তৃণমূলের ভাবমূর্তির পক্ষেই ক্ষতিকর।

জেলার রাজনীতির গতিপ্রকৃতির নিয়মিত পর্যবেক্ষকদের একাংশের ধারণা, এমনিতেই আসানসোল লোকসভার অন্তর্গত সব বিধানসভা এলাকাতেই গত লোকসভা ভোটের নিরিখে পিছিয়ে তৃণমূল। তার উপরে এমন ‘কোন্দল-চিত্র’ প্রকাশ্যে এলে বিষয়টি নিয়ে প্রচারও চালাতে পারে বিরোধীরা। বিজেপির জেলা সভাপতি লক্ষ্মণ ঘোড়ুইয়ের কটাক্ষ, “আসানসোল পুরসভা কী ভাবে চলে, তা স্বয়ং ডেপুটি মেয়রই বলে দিলেন। তৃণমূলের নেতা, কর্মীরা সবাই নানা অনিয়মের সঙ্গে যুক্ত।”

যদিও পরে সংবাদমাধ্যমের একাংশের কাছে ডেপুটি মেয়র দাবি করেন, তিনি ‘ভুল কিছু’ বলেননি। পাশাপাশি, তিনি জানান, তাঁর ক্ষোভের কথা দলের জেলা চেয়ারম্যান ভি শিবদাসনের কাছে লিখিত ভাবে জানিয়েছেন। শিবদাসন অবশ্য বলেন, “আমরা সবাই দলের সৈনিক। মতপার্থক্য থাকতেই পারে। কিন্তু প্রকাশ্যে আলোচনা না করে, এ সব দলের ভিতরে বসে মিটিয়ে নেওয়া উচিত।”

আরও পড়ুন

Advertisement