Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০২ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

সকালে ব্যায়াম, প্রচারের মাঝে চাই হাল্কা খাবার

নিজস্ব সংবাদদতা
দুর্গাপুর ০৬ এপ্রিল ২০১৬ ০৩:২৭
প্রচারের ফাঁকে। ণমূলের অপূর্ব মুখোপাধ্যায়। ডানদিকে, বিজেপির বাবুল সুপ্রিয়।—নিজস্ব চিত্র।

প্রচারের ফাঁকে। ণমূলের অপূর্ব মুখোপাধ্যায়। ডানদিকে, বিজেপির বাবুল সুপ্রিয়।—নিজস্ব চিত্র।

ভোট এগিয়ে আসার সঙ্গে ঝাঁঝ বাড়ছে প্রচারে। সেই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে গরমও। কিন্তু প্রার্থীদের কাহিল হয়ে পড়ার জো নেই। বাড়ি-বাড়ি প্রচার থেকে সভা-মিছিল, সকাল থেকে রাত পর্যন্ত ঠাসা কর্মসূচি। তার মধ্যে শরীরের খেয়াল রাখার সময় কোথায়! রাজনৈতিক নেতা-কর্মীরা কেউ টুপি-চশমা, কেউ আবার সাদা পোশাক পরেই গরমে শরীরে যত্নের পাট চুকিয়ে ফেলছেন। যদিও ডাক্তারদের মতে, এই আবহওয়ায় সুস্থ থাকতে খাওয়া-দাওয়া থেকে ব্যায়াম, সবেই নজর দেওয়া প্রয়োজন।

দুর্গাপুর পশ্চিম কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী অপূর্ব মুখোপাধ্যায় প্রচারে বেরোচ্ছেন টুপি পরে। কখনও সাদা, কখনও সবুজ টুপি মাথায় দিয়ে রাস্তায় নামছেন তিনি। অপূর্ববাবু বলেন, ‘‘রোদ এড়াতে ফুলহাতা জামা আর মাথায় টুপি রাখছি। সঙ্গে রোদ চশমা। তবে এর বেশি কিছু ভাবার সময় নেই।’’ তাঁর দলেরই আর এক প্রার্থী, দুর্গাপুর পূর্ব কেন্দ্রের প্রদীপ মজুমদার আবার বলেন, ‘‘আমি সাদা ফতুয়া আর পাঞ্জাবি পরে প্রচারে যাই। গরমে ব্যবস্থা বলতে এইটুকুই।’’ দুর্গাপুর পশ্চিমের জোটের প্রার্থী কংগ্রেসের বিশ্বনাথ পাড়িয়ালের আবার সাফ কথা, ‘‘সামনে এখন কঠিন লড়াই। শরীরের দিকে খেয়াল রাখার সময় নেই।’’

চিকিৎসকদের অবশ্য মত, সকাল-সকাল প্রচারে বেরোনোর থাকলে ঘুম থেকে উঠে কিছুক্ষণ ফ্রি-হ্যান্ড ব্যায়াম বা প্রাণায়াম করে নিতে হবে। এর পরে গ্রিন-টি বা লিকার চা, সঙ্গে বিস্কুট বা হাল্কা খাবার খেয়ে নিতে হবে। বেলা গড়াতেই মাথার উপরে গনগনে সূর্য। তাই প্রচারের ফাঁকে ডাবের জল, গ্লুকোজ বা নুন-চিনির শরবত খেতে হবে। খালি পেটে থাকলে মুশকিল। তাই সময় বের করে হাল্কা খাবারও খেতে হবে। দুপুরের মেনুও হওয়া চাই সহজপাচ্য। শাক, ডাল, শুক্তো, পাঁচমিশালি তরকারি, মাছের পাতলা ঝোল। দুপুরে আধ ঘণ্টা বিশ্রাম জরুরি। তাতে বিকেলের প্রচারে অসুবিধে হবে না। দই, শশা, তরমুজ, পেঁপে, লাউ, উচ্ছে, ঝিঙে খেতে হবে নিয়ম করে। তাতে শরীর ঠান্ডা থাকবে।

Advertisement

ভোটের প্রচারে ফুলহাতা সুতির জামা, রোদ চশমা, মাথায় টুপি রাখা দরকার, বলছেন চিকিৎসকেরা। রোদ থেকে ত্বক বাঁচাতে উপযুক্ত ক্রিম মাখা প্রয়োজন। একাধিক বার স্নান জরুরি, মন চাঙ্গা রাখতে জলে এক ফোঁটা সুগন্ধী এসেন্স ফেলে দেওয়া যেতে পারে। তবে রোদ থেকে ফিরেই স্নান করা যাবে না। এসি ঘর থেকে সরাসরি রোদে না বেরনোই ভাল।

প্রার্থীদের অবশ্য বলছেন, এত সব মেনে চলার সময় নেই। দুর্গাপুর পূর্বের বিজেপি প্রার্থী অখিল মণ্ডল যেমন বলেন, ‘‘হাতে আর মাত্র ক’টা দিন। নাওয়া-খাওয়া ভুলে কাজ করতে হচ্ছে। এ সব নিয়ে ভাবার অবকাশ কোথায়?’’

আরও পড়ুন

Advertisement