Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২০ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

নারীর নিরাপত্তায় পুলিশের ‘অভয়া’

নিজস্ব সংবাদদাতা
আসানসোল ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০১:০১
অ্যাপের খুঁটিনাটি জানাচ্ছেন পুলিশ কমিশনার সুকেশকুমার জৈন। নিজস্ব চিত্র

অ্যাপের খুঁটিনাটি জানাচ্ছেন পুলিশ কমিশনার সুকেশকুমার জৈন। নিজস্ব চিত্র

মহিলাদের নিরাপত্তায় জোর দিতে এ বার এ বার ‘মোবাইল অ্যাপ’ চালু করল আসানসোল-দুর্গাপুর পুলিশ কমিশনারেট। পুলিশ-কর্তারা জানান, বৃহস্পতিবার থেকে অ্যাপটি পুরোদমে কাজ শুরু করেছে। ‘গুগল প্লে স্টোর’ থেকে ‘অভয়া’ নামে এই অ্যাপটি নিজের ‘অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল’ ফোনে ‘ডাউনলোড’ করা যাবে। ‘অ্যাপ’-এর মাধ্যমে সমস্যার কথা জানালে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে যাবে। সেই সঙ্গে মহিলাদের জন্য একটি বিশেষ ‘হেল্পলাইন’ নম্বরও চালু করা হয়েছে বলে জানান পুলিশ কমিশনার সুকেশকুমার জৈন।

পুলিশ কমিশনার জানান, অ্যাপটি ‘ডাউনলোড’ করার পরে সেখানে নাম, ফোন নম্বর, বাড়ির ঠিকানা-সহ কিছু তথ্য দিতে হবে। সেগুলি ‘আপলোড’ করার সঙ্গে-সঙ্গেই তথ্য সরবরাহকারী যে এলাকার বাসিন্দা, সেখানকার থানায় তাঁর সেগুলি লিপিবদ্ধ হয়ে যাবে। এর পরে কোনও মহিলা বিপদে পড়লে বা তাঁর কোনও সাহায্যের প্রয়োজন হলে, অ্যাপটি খুলে ‘এসওএস’ লেখা বোতামটি আঙুল দিয়ে তিন বার টিপে ধরতে হবে তাঁকে। বোতামটি সবুজ হয়ে গেলে আবেদনকারী বুঝবেন, তাঁর বার্তা সংশ্লিষ্ট থানা, ওই অঞ্চলের এসিপি এবং পুলিশ কন্ট্রোল রুমে পৌঁছে গিয়েছে। মহিলা যেখান থেকে নিজের সমস্যা জানাচ্ছেন, সেই অঞ্চলটি কোথায় তা-ও জানতে পারবে পুলিশ। তারা যত দ্রুত সম্ভব সেখানে পৌঁছে যাবেন বলে আশ্বাস পুলিশ কমিশনারের। তিনি বলেন, ‘‘প্রথমে বিভিন্ন স্কুল-কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে গিয়ে ছাত্রীদের এই অ্যাপটির কথা জানানো হবে। পরে বিভিন্ন থানা এলাকায় শিবিরে সাধারণ মহিলাদেরও অ্যাপ ডাউনলোড করার পরামর্শ দেওয়া হবে।’’

এই অ্যাপ চালুর পাশাপাশি, শুধু মহিলাদের জন্য একটি বিশেষ হেল্পলাইন নম্বরও এ দিন চালু করা হয় পুলিশের তরফে। পুলিশ জানায়, সর্ব ক্ষণের জন্য ৯৬০৯৯০০১০০ নম্বরটি খোলা থাকবে। কমিশনারেট এলাকার কোথাও কোনও মহিলা সমস্যায় পড়লে বা তাঁর কোনও সাহায্যের দরকার হলে এই নম্বরে ফোন করতে পারবেন। এক জন মহিলা অফিসার তাঁর কাছে সমস্যা ও তিনি কোথায় রয়েছেন, তা জেনে সংশ্লিষ্ট থানাকে জানাবেন।

Advertisement

পুলিশ কমিশনার আরও জানান, মহিলাদের নিরাপত্তা বাড়ানোর সঙ্গে প্রবীণদের সহায়তার বিষয়েও গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। প্রতিদিন বিশেষ কিছু অঞ্চলকে চিহ্নিত করে পুলিশ পাঁচ জন প্রবীণ বাসিন্দাকে নিজেদের গাড়িতে সরকারি হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে স্বাস্থ্যপরীক্ষা করাচ্ছে। মাঝেমাঝে তাঁদের খোঁজও নেওয়া হচ্ছে। এখনও পর্যন্ত আসানসোল ও দুর্গাপুরে প্রায় তিনশো প্রবীণের স্বাস্থ্যপরীক্ষা করানো হয়েছে।

আরও পড়ুন

Advertisement