Advertisement
৩০ নভেম্বর ২০২২
Shantiniketan

ব্যানারে 'অসম্মান' রবীন্দ্রনাথকে, অমিত সফরের আগে বিতর্ক বোলপুরে

ব্যানার নিয়ে প্রতিবাদে সরব হয়েছেন বোলপুরের বাংলা সংস্কৃতি মঞ্চের সদস্যরাও। মঞ্চের পক্ষে নুরুল হক বলেন, বিশ্বভারতীতে আগে কোনও দিন এই ভাবে রাজনৈতিক ব্যানার লাগানো হয়নি।

এই ব্যানার ঘিরে বিতর্ক। নিজস্ব চিত্র।

এই ব্যানার ঘিরে বিতর্ক। নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
শান্তিনিকেতন শেষ আপডেট: ১৮ ডিসেম্বর ২০২০ ২০:৫০
Share: Save:

রবিবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহর বোলপুর সফর। আর তার আগেই বিজেপির ফেস্টুন ঘিরে বিতর্ক তৈরি হল শান্তিনিকেতনে। অমিতের সফরের আগে গোটা শহর ঢেকেছে ব্যানারে। আর সেই ব্যানারেই বড় করে অমিতের ছবির নীচে রয়েছে রেখায় আঁকা রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ছবি। তার নীচে বিজেপির সর্বভারতীয় সম্পাদক অনুপম হাজার ছবি। তবে এই ব্যানার বিজেপির নয় বলেই দাবি করেছেন অনুপম। তাঁর দাবি, বিতর্ক তৈরি করতে এটা তৃণমূলের কাজ। পাল্টা মন্তব্য করেছেন তৃণমূলের বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। সব মিলিয়ে অমিত সফরের আগে নতুন উত্তাপ এই ব্যানার ঘিরে।

Advertisement

ব্যানার নিয়ে শান্তিনিকতনে‌ আশ্রমিকদের একাংশের মধ্যে ক্ষোভ তৈরি হয়েছে। তাঁদের বক্তব্য, এই ব্যানারে রবীন্দ্রনাথের অবমাননা হয়েছে। প্রশ্ন তুলেছেন শান্তিনিকেতনের বাসিন্দারাও।

বিশ্বভারতীর একটি অনুষ্ঠানে অমিত উপস্থিত থাকার কথা থাকলেও এই সফর মূলত রাজনৈতিক। তাই বিশ্বভারতী চত্বরে পোস্টার লাগানো নিয়েও উঠেছে প্রশ্ন। অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন, এটা কি তাহলে বিশ্বভারতীতে রাজনীতিকরণের চেষ্টা?

বিশ্বভারতীর প্রবীণ আশ্রমিক সুপ্রিয় ঠাকুর শুক্রবার বিজেপির পোস্টার নিয়ে বলেন, "বিশ্বভারতীতে এখন রাজন‌ীতিই হচ্ছে। তাই এ বিষয়ে কিছু বলার নেই। আর ব্যানারে যে ভাবে কবিগুরুকে অপমান করা হয়েছে তার ধিক্কার জানাচ্ছি।" ব্যানার নিয়ে প্রতিবাদে সরব হয়েছেন বোলপুরের বাংলা সংস্কৃতি মঞ্চের সদস্যরাও। মঞ্চের পক্ষে নুরুল হক বলেন, বিশ্বভারতীতে আগে কোনও দিন এই ভাবে রাজনৈতিক ব্যানার লাগানো হয়নি। আর কবিগুরুকে যে ভাবে অবমাননা করা হয়েছে তার আমরা তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।"

Advertisement

এই পোস্টার কারা দিয়েছে তা নিয়ে রাজনৈতিক বিতর্কও শুরু হয়েছে। পোস্টারে তাঁর ছবি থাকলেও অনুপম দাবি করেছেন, বিজেপির বদনাম করতে এই চক্রান্ত করা হয়েছে। এর পাল্টায় অনুব্রত শুক্রবার বলেন, "বিজেপিই এই পোস্টার লাগিয়েছে। এখন আবার তাঁরা বলছেন তৃণমূল করেছে। ধিক্কার জানাই এই ঘটনার।"

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.