Advertisement
১৫ জুলাই ২০২৪

২৯৫ কোটি বাজেয়াপ্ত হল রোজভ্যালির

জমি-বাড়ি, ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট-সহ রোজভ্যালির যাবতীয় সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার সিদ্ধান্ত নিল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। সারদা কেলেঙ্কারি প্রকাশ্যে আসার পরে সুদীপ্ত সেনের যাবতীয় সম্পত্তি এ ভাবেই বাজেয়াপ্ত করেছিল এই তদন্তকারী সংস্থাটি। ইডি-র তদন্তকারীদের অনুমান, বাজার থেকে এ পর্যন্ত প্রায় ১৫ হাজার কোটি টাকা তুলেছে রোজভ্যালি। তাদের ব্যাঙ্ক আকাউন্ট রয়েছে ২৮০৭টি।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ২৮ নভেম্বর ২০১৪ ০৩:৪৮
Share: Save:

জমি-বাড়ি, ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট-সহ রোজভ্যালির যাবতীয় সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার সিদ্ধান্ত নিল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। সারদা কেলেঙ্কারি প্রকাশ্যে আসার পরে সুদীপ্ত সেনের যাবতীয় সম্পত্তি এ ভাবেই বাজেয়াপ্ত করেছিল এই তদন্তকারী সংস্থাটি।

ইডি-র তদন্তকারীদের অনুমান, বাজার থেকে এ পর্যন্ত প্রায় ১৫ হাজার কোটি টাকা তুলেছে রোজভ্যালি। তাদের ব্যাঙ্ক আকাউন্ট রয়েছে ২৮০৭টি। সেগুলিতে বর্তমানে থাকা ২৯৫ কোটি টাকা বৃহস্পতিবার বাজেয়াপ্ত করার কথা ঘোষণা করেছে ইডি। আগেই অবশ্য অ্যাকাউন্টগুলি সিল করে দেওয়া হয়েছিল। রোজভ্যালির বিরুদ্ধে ওড়িশায় করা একটি মামলার প্রেক্ষিতে এই টাকা বাজেয়াপ্ত করা হল বলে ইডি সূত্রে জানা গিয়েছে।

গত ২৫ সেপ্টেম্বর রোজভ্যালির ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট সিল করার সিদ্ধান্ত নেয় ইডি। এর বিরুদ্ধে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা করে রোজভ্যালি। সেই মামলায় বিচারপতি নির্দেশ দেন, ওই অ্যাকাউন্টে থাকা টাকা বাজেয়াপ্ত করা যাবে না। এ দিন তাই ওড়িশার একটি মামলার পরিপ্রেক্ষিতে ওই টাকা বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে বলে ইডি সূত্রের খবর।

রোজভ্যালির তরফে এ দিন বলা হয়েছে, ২৯৫ কোটি টাকা বাজেয়াপ্ত করার কথা সরকারি ভাবে তাদের জানানো হয়নি। সংস্থার দাবি, সম্প্রতি কলকাতা হাইকোর্ট তাদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা যাবে না বলে নির্দেশ দিয়েছে। ফলে ইডি যদি বাজেয়াপ্ত করেও থাকে, তা বেআইনি। সিল করে দেওয়া ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে লেনদেন চালু করার অনুমতি চেয়ে হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চে এ দিনই রোজভ্যালির পক্ষ থেকে আবেদন করা হয়েছে।

তবে রোজভ্যালির টাকা বাজেয়াপ্ত করাতেই থেমে থাকতে চাইছে না ইডি। এর পরে রোজভ্যালির অন্যান্য সম্পত্তিও বাজেয়াপ্ত করা হবে বলে ইডি সূত্রে জানা গিয়েছে। ইডি সূত্রের খবর, কেবল পশ্চিমবঙ্গ থেকেই বিভিন্ন প্রকল্পে ১০ হাজার কোটি টাকা তুলেছে ওই সংস্থা। তাদের দাবি, ওড়িশা থেকে রোজভ্যালি প্রায় ৩০০ কোটি টাকা তুলেছে। অসম, ঝাড়খণ্ড, ত্রিপুরা, হিমাচলপ্রদেশ থেকেও বিপুল টাকা তুলেছে সংস্থাটি।

এর আগে সারদা কেলেঙ্কারির তদন্তে নেমে ওই সংস্থার প্রায় ৭০০ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করেছে ইডি। তার মধ্যে রয়েছে জমি-বাড়ি-রিসর্ট-কারখানা ইত্যাদি। বাজার থেকে বেআইনি ভাবে তোলা টাকা তুলে ওই সব সম্পত্তি কেনা হয়েছে বলে অভিযোগ। একই অভিযোগ এ বার রোজভ্যালির বিরুদ্ধেও উঠছে। রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় একাধিক বিলাসবহুল হোটেল, রিসর্ট বানিয়েছে তারা। রোজভ্যালির কর্তা বিদেশি গাড়ি চড়েন। সে সবও বাজেয়াপ্ত হতে পারে বলে ইডি সূত্রের খবর। সারদার মতো রোজভ্যালির তোলা টাকারও একটা বড় অংশ প্রভাবশালী ব্যক্তিদের কাছে গিয়েছে বলে তদন্তকারীদের ধারণা। এক ইডি অফিসারের কথায়, “যে টাকা বাজার থেকে তোলা হয়েছে, তার অনেকটাই হিসেব বহির্ভূত ভাবে খরচ হয়ে থাকতে পারে।”

রোজভ্যালির কর্মী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক অমিত মুখোপাধ্যায় এ দিন বলেন, “এত মানুষের কী হবে? আমাদের কর্মী রয়েছেন ১০ হাজার। মাঠে নেমে টাকা তোলার কাজ করেন সাত লক্ষ এজেন্ট। এক কোটিরও বেশি মানুষের আমানত জমা রয়েছে এই সংস্থায়। ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট সিল করে, টাকা ও সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করে নিলে এত মানুষের কী হবে?” তাঁর মতে, টাকা তোলার ক্ষেত্রে পদ্ধতিগত কিছু ভুল হয়ে থাকলে তা সংশোধন করা হোক। এমন কোনও নিয়ম করা হোক, যাতে সংস্থাটি চলতে পারে। তাঁর কথায়, “দেখা দরকার, এত মানুষ যাতে পথে না বসেন।”

সারদা-কাণ্ডের ছায়ায় রোজভ্যালি নিয়েও আতঙ্ক এবং ক্ষোভ ছড়িয়েছে আমানতকারীদের মধ্যে। মেয়াদ উত্তীর্ণ আমানতের টাকা ফেরতের দাবিতে এ দিন পূর্ব মেদিনীপুরের পাঁশকুড়ায় রোজভ্যালির অফিসে বিক্ষোভ দেখান বেশ কিছু গ্রাহক। সংস্থার ম্যানেজারের কাছে তাঁরা টাকা ফেরত চাইতে যান। সংস্থার তরফে তাঁদের বলা হয়, এখন টাকা ফেরত পাওয়া যাবে না। এ নিয়ে সংস্থার আধিকারিক-কর্মীদের সঙ্গে আমানতকারীদের বচসাও হয়। পরে দ্রুত টাকা ফেরত পাওয়ার আশ্বাস দেওয়া হলে বিক্ষোভ উঠে যায়।

এ দিকে, সারদা মামলায় অন্যতম অভিযুক্ত সদানন্দ গগৈয়ের জামিনের আবেদন বৃহস্পতিবার খারিজ করে দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট। সারদা রিয়েলটি প্রাইভেট লিমিটেডের মামলায় অসমের গায়ক সদানন্দকে সিবিআই গত ১২ সেপ্টেম্বর গ্রেফতার করে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE