Advertisement
০২ মার্চ ২০২৪
Panipuri

Ransack: ফুচকা খেয়ে অসুস্থ শতাধিক, হুগলির পোলবায় ফুচকাওয়ালার বাড়ি ভাঙচুর

দোগাছিয়া গ্রামের বাসিন্দা পেশায় ফুচকা ব্যবসায়ী হেমন্ত পাত্রর বাড়িতে চড়াও হন এলাকার এক দল বাসিন্দা। তাঁরা হেমন্তর বাড়ি ভাঙচুর করেন।

ফুচকা ব্যবসায়ীর বাড়ি ভাঙচুর।

ফুচকা ব্যবসায়ীর বাড়ি ভাঙচুর। — নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
হুগলি শেষ আপডেট: ১৩ অগস্ট ২০২২ ১৯:২০
Share: Save:

ফুচকা খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন শতাধিক গ্রামবাসী। তার জেরে স্থানীয় বাসিন্দাদের ক্ষোভ আছড়ে পড়ল ফুচকা ব্যবসায়ীর উপর। শনিবার এই ঘটনা ঘটেছে হুগলির পোলবার সুগন্ধা পঞ্চায়েতের দোগাছিয়া গ্রামে। পুলিস ওই ফুচকা ব্যবসায়ীকে আটক করেছে।

শনিবার সকালে দোগাছিয়া গ্রামের বাসিন্দা পেশায় ফুচকা ব্যবসায়ী হেমন্ত পাত্রর বাড়িতে চড়াও হন এলাকার এক দল বাসিন্দা। হামলাকারীরা হেমন্তর বাড়ি ভাঙচুর করেন। ঘরের জিনিসপত্র ছুড়ে ফেলে দেওয়া হয়। সিভিক কর্মীরা ক্ষুব্ধদের আটকাতে গেলে তাঁদের বাধা দেওয়া হয়। পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

হেমন্ত গ্রামেই ফুচকা বিক্রি করেন। গ্রামবাসীদের একাংশের দাবি, গত নয় অগস্ট হেমন্তের কাছে ফুচকা খেয়েছিলেন দোগাছিয়া,বাহির রানাগাছা,মাকালতলার প্রায় শ’দেড়েক লোক। এর পর সকলেই অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাঁদের চুঁচুড়া, চন্দননগর এবং পোলবা হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। গ্রামে যায় পোলবা হাসপাতালের মেডিক্যাল টিমও। অভিযুক্ত ফুচকা বিক্রেতার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবিতে শনিবার হেমন্তর বাড়িতে চড়াও হন স্থানীয় বাসিন্দারা। হেমন্ত নিজেও ভর্তি ছিলেন পোলবা হাসপাতালে। তাঁর দাবি, তিনি নিজেও দুটো ফুচকা খেয়েছিলেন। এর পর অসুস্থ হয়ে পড়েন। তবে তাঁকে পরে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE