×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২১ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির বিরুদ্ধে অভিনব প্রতিবাদ, তেল জোগাতে না পেরে স্কুটারের শ্রাদ্ধ

নিজস্ব সংবাদদাতা
হুগলি ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১৬:৪৫
স্কুটারের শ্রাদ্ধ।

স্কুটারের শ্রাদ্ধ।
নিজস্ব চিত্র।

পেট্রলের দাম ৯০-এর ঘরে ব্যাট করছে। রান্নার গ্যাসের দাম এক মাসে ১০০ টাকা বেড়েছে। আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত তেলের দাম কম হলেও সেস বসিয়ে রেখেছে কেন্দ্রীয় সরকার। তাই দাম কমছে না। এই অভিযোগ তুলে বৃহস্পতিবার ই-স্কুটার চালিয়ে প্রতিবাদের পথ দেখিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এ বার সেই পথ ধরেই প্রতিবাদ শুরু হয়েছে জায়গায় জায়গায়। কোথাও পেট্রল চালিত স্কুটারের শ্রাদ্ধ করে কোথাও আবার রিক্সা চালিয়ে প্রতিবাদ করছেন সাধারণ মানুষ থেকে শাসক দলের নেতা কর্মীরা।

বৃহস্পতিবার ফিরহাদ হাকিমের ই-স্কুটারে বসে নবান্ন যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিকেলে ফেরার পথে নিজে আবার কিছুটা পথ ই-স্কুটারের হ্যান্ডেল ধরেন। পেট্রোপণ্যের আকাশছোঁয়া দামের বিরুদ্ধে এ ভাবেই প্রতিবাদের সুর বেঁধে দেন মমতা। তারই রেশ যেন ছড়িয়ে পড়েছে হুগলিতেও।

পেট্রোপণ্যের এই মূল্য বৃদ্ধির জেরে নাকি সব থেকে বেশি সমস্যায় পড়েছেন মহিলারা। এমনই দাবি করলেন হুগলিতে শ্রীরামপুরের বারুজীবী এলাকার সাধারণ মানুষ থেকে তৃণমূল কর্মীরা। উত্তরপাড়া-শ্রীরামপুর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সহযোগিতায় হিন্দু মতে স্ত্রীর প্রিয় স্কুটারের শ্রাদ্ধানুষ্ঠান করলেন জনৈক স্বপন দাস।

Advertisement

স্বপনের দাবি, পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির জেরে নাভিশ্বাস সাধারণ মানুষের। আর যাঁরা স্ত্রীদের মন রাখতে স্কুটার কিনে দিয়েছিলেন তাঁদের অবস্থা সব থেকে খারাপ। কারণ ঘরে রান্নার গ্যাসের সিলিন্ডার না থাকলে বিপদ। আর নিজের বাইকের তেল কেনার পর গাঁটের কড়িতে টান পড়ছে। তাই স্ত্রীর স্কুটারের তেল কেনা আর সম্ভব হচ্ছে না। তাই প্রিয়তমাকে বুঝিয়ে আপাতত সেটি গ্যারেজের কোণায় রেখে দেওয়াই শ্রেয় বলে মনে করছেন স্বপন। কবে তা আবার রাস্তায় নামবে বা আদৌ নামাতে পারবেন কি না, কেউ জানেন না। তাই সহধর্মিনীর দ্বিচক্র যানটির শ্রাদ্ধশান্তিই করে ফেললেন। শুক্রবার হিন্দু মতে রীতি মতো ন্যাড়া হয়ে পুরোহিতের ডেকে শ্রাদ্ধ হল। স্কুটারের ছবি সামনে রেখে চলে সেই শ্রাদ্ধ। অভিনব এই প্রতিবাদ দেখতে ভিড় জমান এলাকার প্রচুর মানুষ।

পেট্রোপণ্যের দাম এবং এই শ্রাদ্ধের অনুষ্ঠান প্রসঙ্গে বিজেপির রাজ্য কমিটির সদস্য স্বপন পাল বলেন, “আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম বাড়ায় ভারতেও দাম বেড়েছে। কমলে আবার কমবে। বৃহস্পতিবার মুখ্যমন্ত্রী স্কুটারে চেপে নাটক করেছেন। আর সব জেনেও নাটক করছেন শ্রীরামপুরে তৃণমূল কর্মীরা।”

আর মুখ্যমন্ত্রীর পথ অনুসরণ করে রিক্সা চালালেন কোন্নগরের পুরপ্রশাসক বাপ্পাদিত্য চট্টোপাধ্যায়। বাপ্পাদিত্য শুক্রবার মাথায় গামছা বেঁধে জিটি রোডে রিক্সা চালিয়ে পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদ করেন। কোন্নগরের ঠাকুরবাড়ি থেকে কোন্নগর পুরসভা পৌঁছন রিক্সা চালিয়ে।

Advertisement