Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৯ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

পাঁচতারায় ডেরা, ইনদওরে পুলিশি জালে এটিএম-কাণ্ডের দুই রোমানীয়

নিজস্ব সংবাদদাতা
০৯ অগস্ট ২০১৮ ১৭:২০
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

দিল্লি থেকে পালিয়ে এসে লখনউয়ের একটি পাঁচ তারা হোটেলে উঠেছিল এটিএম জালিয়াতি চক্রের দুই রোমানীয় পাণ্ডা। এতদিনে তারা জেনে গিয়েছে, দলের অন্য দু’জন দিল্লিতেই কলকাতা পুলিশের জালে পড়েছে। তাই সেখান থেকে পালিয়ে লখনউয়ের উদ্দেশে রওনা দেয় আদ্রিয়ান লিভিউ এবং করনেল কনস্ট্যানটিয়ান।

ছোট হোটেলে পুলিশ তল্লাশি চালাতে পারে, এই আশঙ্কাতেই বিলাসবহুল পাঁচ তারা হোটেলে ওঠে তারা। কিন্তু শেষ রক্ষা হল না। কারণ দিল্লি থেকেই পিছু নিয়েছিল কলকাতা পুলিশের একটি দল। শেষ পর্যন্ত লখনউ থেকে ইনদওর যাওয়ার পথে তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ।

তবে চেষ্টার কোনও খামতি রাখেনি এই দুই চক্রী। লখনউ-এর হোটেল থেকে বেরনোর সময় মুম্বই যাওয়ার কথা বলে তারা গাড়ি ভাড়া নিয়েছিল। যাতে পুলিশ হোটেলে এলেও বিভ্রান্ত হয়। গাড়ি নিয়ে বেরনোর পর মাঝ রাস্তায় নেমে যায় দু’জন। যোগাযোগ করে একটি ট্রাভেল এজেন্সির সঙ্গে। তারা ৬০ হাজার টাকা দিয়ে একটি গাড়ি ভাড়া নিয়ে মুম্বইয়ে যাওয়ার বদলে ইনদওরের পথে রওনা দেয়।

Advertisement

আরও পড়ুন: ৩ শহরের পুলিশ যা পারেনি, সেটাই করে দেখালেন শ্যালক-ভগ্নিপতি!

লখনউয়ে হোটেলে ঢোকার পর থেকেই তাদের প্রতি মুহূর্তের কার্যকলাপের উপর নজর রাখছিলেন গোয়েন্দারা। গাড়ি বদল করলেও পুলিশ জিপিএস-এর মাধ্যমে ‘ট্র্যাক’ করছিল। ইনদওর ঢুকতেই সেখানকার পুলিশকে আগে থেকেই সতর্ক করে দেওয়া হয়েছিল। সেখান থেকেই দু’জনকে গ্রেফতার করা হয়।

এদিকে ভারত-নেপাল সীমান্ত আটক রোমানীয় চক্রের মাথা ‘নানা’ ওরফে আইকো আরেলকে গ্রেফতার করে ট্রানজিট রিমান্ডে কলকাতায় নিয়ে আসা হচ্ছে। নানা এবং আদ্রিয়ানের নামে আগেই লুক আউট নোটিস জারি করা হয়েছিল। এই দলে ‘ক্রিস’ নামে আরও এক অভিযুক্ত রয়েছে। তার খোঁজে তল্লাশি চলছে। কলকাতায় নিয়ে আসার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

আরও পড়ুন: বৃদ্ধা মাকে এ ভাবে লাঠি দিয়ে পেটায়! ভিডিয়ো দেখলে চমকে যাবেন

এর আগেও দু’জন রোমানীয়কে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। এ নিয়ে মোট পাঁচজন রোমানীয় ধরা পড়ল।

এটিএম জালিয়াতির ঘটনায় আগেই এক করনেল নামে উঠে আসে। সেই করনেল এখন তিহাড় জেলে বন্দি। জেলে বসেই সে এই প্রতারণা চক্র চালাত বলে জেনেছে পুলিশ। তাকে জেরা করেও অনেকের নাম উঠে এসেছে। এছাড়া সম্প্রতি কলকাতা থেকে তিন মুম্বইয়ের যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে। তারাও এই রোমানীয় দলের হয়ে কাজ করত। ধৃতদের নামে পুনে, চন্ডিগড়, মুম্বই পুলিশে অভিযোগ রয়েছে। কলকাতা পুলিশের সঙ্গে তারাও যোগাযোগ করছে বলে জানা গিয়েছে।



Tags:
ATM Fraud Bank Fraudএটিএম জালিয়াতি Kolkata Police

আরও পড়ুন

Advertisement