Advertisement
২৯ নভেম্বর ২০২২
sarada scam

সারদা-কাণ্ডে ফের তলব কুণাল ঘোষকে, সাড়ে ছ’ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ ইডি-র

তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল জানান, ২০১৩ সালে সারদা মামলায় ইডি তাঁকে প্রথম বার ডেকেছিল।

কুণাল ঘোষ।

কুণাল ঘোষ। ফাইল চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০২ মার্চ ২০২১ ২১:৩৮
Share: Save:

সারদা কাণ্ডে তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষকে সাড়ে ৬ ঘণ্টা ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)-এর তদন্তকারী দল। মঙ্গলবার সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সে চলে এই দীর্ঘ জিজ্ঞাসাবাদ-পর্ব।

Advertisement

মঙ্গলবার বেলা ১১টায় রাজ্যসভার প্রাক্তন সাংসদ কুণালকে হাজিরা দেওয়ার জন্য তলব করেছিল ইডি। নির্দিষ্ট সময়েই তিনি সিজিও কমপ্লেক্সে পৌঁছে যান। এর পর বিকেল পর্যন্ত ছ’তলায় ইডি দফতরে চলে জিজ্ঞাসাবাদ। সারদা কাণ্ডে দীর্ঘ দিন পরে কুণালকে তলব করা হয়েছিল। ইডি-র একটি সূত্র জানাচ্ছে, সারদা কাণ্ডে ফের জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে তাঁকে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় কুণাল বলেন, ‘‘আমি প্রথম দিন থেকেই তদন্তে পূর্ণ সহযোগিতা করে এসেছি। যখনই ডাকা হয়েছে গিয়েছি। ভবিষ্যতেও একই ভাবে সহযোগিতা করে যাব।’’ সারদা তদন্তে তিনি ইডি-কে অনেক তথ্য এবং নথিপত্র জমা দিয়েছেন বলেও জানান। তিনি বলেন, ‘‘২০১৩ সালে সারদা মামলায় ইডি আমাকে প্রথম ডেকেছিল। ২০১৫ সালে আদালতে পেশ করা চার্জশিটে আমার নাম ছিল না। এখন দেখলাম আবার ডাকা হল।’’

তবে কুণাল বলেছেন, ‘‘ইডি-র যে আধিকারিকরা আমাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলেন তাঁদের প্রতি আমার কোনও অভিযোগ নেই। তাঁদের তদন্তে সব রকম সহযোগিতা করব আমি।’’ সেই সঙ্গে কুণাল জানান, সারদা-কর্তা সুদীপ্ত সেন জেল থেকে বসে যে চিঠি লিখেছেন, তার প্রতিলিপি তিনি ইডি-র তদন্তকারী দলকে দিয়েছেন।

Advertisement

ইডি-র একটি সূত্র জানাচ্ছে, সম্প্রতি সারদা কাণ্ডের তদন্তকারী অফিসার বদল হয়েছে। আগের তদন্তকারী অফিসার অক্ষয় সিনহার জায়গায় এসেছেন অজয় লাহুচ। দায়িত্বভার তদন্তের গ্রহণ করে তিনি মামলার পুরনো বহু নথি খতিয়ে দেখার পর নতুন কিছু তথ্য উঠে এসেছে। সেগুলি যাচাইয়ের জন্যই কুণালকে তলব করা হয়েছিল। প্রসঙ্গত, ২০১৩-র নভেম্বরে সারদা কাণ্ডে কুণালকে গ্রেফতার করেছিল কলকাতা পুলিশ।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.