Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২১ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

ইমার্জেন্সি গেট আবার খুলতে পারে এনআরএসে

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১৩ অক্টোবর ২০২০ ০২:০৫
এনআরএস হাসপাতালের ইমার্জেন্সি গেট আবার খোলার প্রস্তুতি শুরু হয়েছে।

এনআরএস হাসপাতালের ইমার্জেন্সি গেট আবার খোলার প্রস্তুতি শুরু হয়েছে।

প্রায় ১৬ মাস বাদে নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ইমার্জেন্সি গেট খোলার প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। পুলিশ সূত্রের খবর, প্রাথমিক ভাবে ঠিক হয়েছে, হাসপাতালে আসা অ্যাম্বুল্যান্সগুলিকে পরীক্ষামূলক ভাবে ওই গেট দিয়ে বাইরে পাঠানো হবে আপাতত। তবে কোনও গাড়ি ওই গেট দিয়ে আসতে বা যেতে পারবে না। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সম্মতি দিলেই পরীক্ষামূলক ভাবে এই প্রক্রিয়া শুরু হবে।

বর্তমানে ওই হাসপাতালের মূলত একটি গেট দিয়েই ঢোকা এবং বেরোনোর ব্যবস্থা চালু রয়েছে। এর ফলে সেই গেটের সামনে সব সময়েই ভিড় লেগে থাকে। হাসপাতাল সূত্রের খবর, ট্রেন বন্ধ থাকায় হাসপাতালে আগের চেয়ে অনেক বেশি সংখ্যায় গাড়ি আসছে। তাই রোগীদের নিয়ে আসা গাড়ির ভিড় কমাতে এবং ওই একটি গেটের সামনে জমায়েত নিয়ন্ত্রণ করতে জরুরি বিভাগের গেট দিয়ে অ্যাম্বুল্যান্সগুলিকে বাইরে পাঠানোর প্রস্তাব দিয়েছে পুলিশ।

গত বছরের ১০ জুন এনআরএসে মৃত্যু হয় ৮৪ বছর বয়সি রোগী মহম্মদ সইদের। চিকিৎসায় গাফিলতিতেই তাঁর মৃত্যু হয়েছে, এই অভিযোগ তুলে গোলমাল বাধিয়েছিলেন মৃতের পরিজনেরা। তাঁদের সঙ্গে ইন্টার্নদেরও ঝামেলা লেগে যায়। সেই সংঘর্ষে ইট ছোড়া হলে মাথা ফেটে যায় ইন্টার্ন পরিবহ মুখোপাধ্যায়ের। এর পরেই ইমার্জেন্সি গেট বন্ধ করে দেওয়া হয়।

Advertisement

পুলিশ সূত্রের খবর, সোমবার নীলরতন কর্তৃপক্ষ এবং পুলিশের মধ্যে একটি বৈঠক হয়েছে ওই হাসপাতালের ভিতরের পার্কিং ও ভিড় নিয়ন্ত্রণ-সহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে। তাতে পুলিশের পক্ষ থেকে প্রস্তাব দিয়ে বলা হয়েছে, রোগীর সঙ্গে এক জন বা দু’জনের বেশি লোক যেন না ঢোকেন। কারণ, রোগীদের সঙ্গে একাধিক লোক এলেই হাসপাতালে সমস্যা তৈরি হচ্ছে। পুলিশের মতে, এর ফলে দূরত্ব-বিধিও পালন করা সহজ হবে। সূত্রের খবর, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি করবেন।

পুলিশ সূত্রের খবর, ওই হাসপাতালের ভিতরে একটি নতুন ভবন তৈরি হবে। সেই জায়গায় বর্তমানে প্রচুর গাড়ি রাখা থাকে। নতুন ভবনের নির্মাণকাজ শুরু হলে সেই সব গাড়ি কোথায় রাখা হবে এবং যত্রতত্র দাঁড়িয়ে থাকা গাড়িগুলিই বা কোথায় থাকবে, তা নিয়ে এ দিন আলোচনা হয় পুলিশ ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের মধ্যে। সেখানে পুলিশের পক্ষ থেকে হাসপাতালের ভিতরেই একটি বহুতল পার্কিং লটের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া, হাসপাতালের আর কোথায় গাড়ি রাখা যায়, তা নিয়েও আলোচনা হয়েছে বৈঠকে। পুলিশ জানিয়েছে, শিয়ালদহ স্টেশনের একপাশে ফাঁকা জায়গায় পার্কিং লট করা যায় কি না, তা নিয়েও আলোচনা হবে রেলের সঙ্গে।

আরও পড়ুন

Advertisement