Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

দেহব্যবসায় জড়িয়ে মিথ্যে খবর, আইনের পথে টেলিনায়িকা ‘পাখি’

বাংলাদেশের সংবাদ মাধ্যমের একাংশের উপর বেজায় চটেছেন বাংলা টেলিসিরিয়ালের জনপ্রিয় অভিনেত্রী মধুমিতা চক্রবর্তী। ‘পাখি’ নামেই তিনি বেশি পরিচিত। অ

নিজস্ব প্রতিবেদন
১৮ অগস্ট ২০১৬ ১৬:১৬
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

বাংলাদেশের সংবাদ মাধ্যমের একাংশের উপর বেজায় চটেছেন বাংলা টেলিসিরিয়ালের জনপ্রিয় অভিনেত্রী মধুমিতা চক্রবর্তী। ‘পাখি’ নামেই তিনি বেশি পরিচিত। অভিযোগ, বাংলাদেশের কিছু নিউজ ওয়েবসাইট তাঁকে জড়িয়ে মিথ্যে খবর ছড়িয়েছে। এর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মধুমিতা এবং তাঁর স্বামী সৌরভ।

বছর খানেক আগে বিয়ে হয়েছে সৌরভ আর মধুমিতার। সৌরভও বাংলা সিরিয়ালের জনপ্রিয় অভিনেতা। এই নবদম্পতি আনন্দবাজারকে জানালেন, নানান মহল থেকে হঠাত্ই ফোন আসা শুরু হয়। তাঁরা জানতে পারেন, ‘গোয়ায় দেহব্যবসায় জড়িত থাকার অভিযোগে পাখি গ্রেফতার’ এমন একটা খবর বাংলাদেশের কিছু সংবাদমাধ্যম প্রচার করে চলেছে। সোশ্যাল মিডিয়াতেও ছড়িয়ে পড়েছে সেই ভুয়ো খবর।

ঘটনাচক্রে সম্প্রতি এক বলিউড অভিনেত্রীকে গোয়া পুলিশ এক হোটেল থেকে গ্রেফতার করেছিল দেহব্যবসা চালানোর অভিযোগে। কিন্তু সেই ঘটনার সঙ্গে টলিউডের কারও কোনও সম্পর্ক নেই।

Advertisement

মধুমিতাকে নিয়ে এই ভুয়ো খবর চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ার পর প্রথমে খুবই অসহায় বোধ করতে থাকেন নবদম্পতি। ‘মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছিলাম ভীষণ। কী করব বুঝে উঠতে পারছিলাম না আমরা’- বললেন মধুমিতা। কিন্তু তার পর আইনের পথে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছেন মধুমিতা আর সৌরভ।

মধুমিতা আনন্দবাজারকে বলেন, ‘যারা এই ধরনের কাজ করেছে তারা ক্রিমিনাল। তাদের উপযুক্ত শাস্তি হওয়া উচিত’। আগামিকাল, শুক্রবার, স্বামীর সঙ্গে লালবাজারে যাচ্ছেন মধুমিতা। শুধু তাই নয়, কিছু দিনের মধ্যেই এই বিষয় নিয়ে তাঁরা একসঙ্গে সাংবাদিক সম্মেলনও করবেন বলে জানিয়েছেন মধুমিতা। মধুমিতা বলেন, ‘‘আজ যেটা আমার সঙ্গে হয়েছে সেটা কাল অন্য কারও সঙ্গেও হতে পারে। এদের সাহস হয় কী করে এটা করার? আমি এই কালপ্রিটদের ধরতে চাই।’’

অন্যদিকে সৌরভও জানিয়েছেন, ‘‘আগামিকালই আমরা লালবাজারে গিয়ে অভিযোগ দায়ের করব। অ্যাপয়েন্টমেন্ট নেওয়া হয়েছে। সাইবার ক্রাইম ব্রাঞ্চের সঙ্গেও কথা বলব। পুলিশের সঙ্গে পরামর্শ করেই ঠিক করব আমাদের কী করা উচিত। মোট কথা অপরাধীদের খুঁজে বের করবই। তবে পশ্চিমবঙ্গের মানুষও খবরটা শেয়ার করেছেন দেখে খারাপ লাগছে। হিট বাড়ানোর জন্য এই ধরনের খবর প্রকাশ করার রেওয়াজ এ বার বন্ধ হওয়া উচিত।’’

আরও পড়ুন: ‘মহানায়ক আমার ভাল লাগেনি’



Something isn't right! Please refresh.

Advertisement