Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ ই-পেপার

রং ছোড়া ঠেকাতে বহুতলে নজর রাখবে পুলিশ

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৭ মার্চ ২০২০ ০২:৫৮
প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

কালীপুজোর মতোই এ বার দোল এবং হোলির দিন বহুতলের উপরে নজরদারি চালাবে পুলিশ। যার অন্যতম উদ্দেশ্য, রং ছোড়া ঠেকানো। পাশাপাশি, উৎসবের দু’দিন মত্ত অবস্থায় এবং হেলমেট ছাড়া বেপরোয়া গতিতে বাইক চালানো ঠেকাতে পুলিশ সক্রিয় থাকবে বলে লালবাজার জানিয়েছে। রঙের উৎসবের দু’দিন নিজেদের মধ্যে শহরের বিভিন্ন তথ্য আদান প্রদান করতে পুলিশ আধিকারিকদের পৃথক দু’টি হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ তৈরি করতে বলা হয়েছে।

সোমবার দোলের দিন সকাল থেকেই শহরের ৭২০টি গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় পুলিশ পিকেট বসানো হবে। এ ছাড়াও দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য শহরের ৪১টি জায়গায় পুলিশের মোবাইল ভ্যান থাকবে। প্রতিটি ডিভিশনের ডেপুটি কমিশনার ছাড়াও কোথাও দু’টি কোথাও বা তিনটি থানাকে বেছে এক জন করে ডেপুটি কমিশনার পদমর্যাদার অফিসারকে নিরাপত্তার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

পুলিশ সূত্রের খবর, প্রতি বছরই বিভিন্ন বহুতলের ছাদ থেকে পথচারীদের উপরে রং ছোড়ার অভিযোগ ওঠে। এ বার তাই থানাগুলিকে বহুতলগুলির কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে নজরদারি চালাতে বলা হয়েছে। পুলিশের একটি অংশ জানাচ্ছে, ছাদ থেকে নীচে যাতে রং না ছোড়া হয়, তা নিয়ে বহুতলের নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গেও কথা বলেছে তারা। শুক্রবার আলিপুর বডিগার্ড লাইন্সে দোল এবং হোলির পুলিশি নিরাপত্তা নিয়ে কলকাতার পুলিশ কমিশনার এক বৈঠক করেন। সেখানেই পুলিশ কমিশনারের তরফে বলা হয়েছে, নাকা তল্লাশি জোরদার করতে। লালবাজারের তরফে থানা এবং ট্র্যাফিক গার্ডগুলিকে বলা হয়েছে, শনিবার রাত থেকেই শহরের সর্বত্র নাকা তল্লাশি চালাতে। সেখানে লালবাজারের অতিরিক্ত এবং যুগ্ম পুলিশ কমিশনারদেরও থাকতে বলেছেন কমিশনার। শহরের ৬৬টি ঘাটে নজর রাখতে অতিরিক্ত পুলিশের সঙ্গে বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীকেও রাখা হচ্ছে। মূলত রং খেলার পরে স্নান করতে নেমে ডুবে মৃত্যুর ঘটনা ঠেকাতেই এই পদক্ষেপ।

Advertisement

লালবাজারের এক আধিকারিক জানান, বেআইনি মদ বিক্রি রুখতে ওসিদের তল্লাশি চালাতে বলেছেন সিপি। কলকাতা পুলিশ এলাকায় জেলা থেকে যাতে বেআইনি মদ না ঢুকতে পারে, তা দেখতেও নির্দেশ দিয়েছেন। লালবাজার জানিয়েছে, এ বারেও রাস্তায় অভব্য আচরণ দেখলে ব্যবস্থা নেবেন কলকাতা পুলিশের প্রমীলাবাহিনী উইনার্সের সদস্যেরা। রং উৎসবের দু’দিন যাতে আইনশৃঙ্খলা বিঘ্নিত না হয়, সে জন্য যে কোনও ঘটনাকে গুরুত্ব দিতে বলা হয়েছে। গোলমালের খবর পেলেই পৌঁছে যেতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে টহলদার পুলিশকে। রবিবার রাত থেকেই শহরে পুলিশি টহলদারি শুরু হবে।

আরও পড়ুন

More from My Kolkata
Advertisement