Advertisement
১৬ জুলাই ২০২৪
Sreebhumi

ছবি শুরুর আগে ‘টিজ়ার’ দেখে কপালে ভাঁজ, প্রথম দিনের ভিড়েই সিঁদুরে মেঘ শ্রীভূমিতে

নিবার রাত ৮টায় শ্রীভূমির মণ্ডপ দর্শকদের জন্য খুলে দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু এ দিন, মহালয়ার সন্ধ্যা নামতে না নামতেই লেক টাউন মোড়ে ভিড় উপচে পড়তে শুরু করে।

An image of Sreebhumi Pandal Crowd

জনজোয়ার: মহালয়ার সন্ধ্যাতেই শ্রীভূমির ঠাকুর দেখার জন্য উপচে পড়ল ভিড়। ছবি: স্নেহাশিস ভট্টাচার্য।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৫ অক্টোবর ২০২৩ ০৮:২১
Share: Save:

ছবিতে কী আছে, আরও কয়েকটা দিন না গেলে বোঝা যাবে না। কিন্তু ‘টিজ়ার’ দেখে অনেকেরই গতিক সুবিধার ঠেকছে না লেক টাউন মোড়ে। শ্রীভূমি স্পোর্টিং ক্লাবের পুজো মণ্ডপ খোলার শুরুর রাতেই দীর্ঘ যানজট দেখা গেল ভিআইপি রোড এবং ইএম বাইপাস-সহ বিভিন্ন রাস্তায়। শনিবার রাত ৮টায় শ্রীভূমির মণ্ডপ দর্শকদের জন্য খুলে দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু এ দিন, মহালয়ার সন্ধ্যা নামতে না নামতেই লেক টাউন মোড়ে ভিড় উপচে পড়তে শুরু করে। যানজট ও দুর্ঘটনা এড়াতে লেক টাউন মোড় থেকে যশোর রোডের দিকে যাওয়ার রাস্তার দু’ধারে সন্ধ্যা থেকে দড়ি ফেলে ভিড় নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে সমস্যায় পড়তে হচ্ছিল পুলিশকে। চোঙা হাতে পুলিশকর্মীরা কখনও চিৎকার করে দর্শকদের ধমক দিয়েছেন, কখনও আবার বোঝানোর চেষ্টা করেছেন যে, মণ্ডপ খুলতে তখনও দু’ঘণ্টা বাকি। দর্শকেরা যেন সতর্ক হয়ে চলেন। কিন্তু কে শোনে কার কথা!

রুদ্ধ: যানজট ভিআইপি রোডে। শনিবার সন্ধ্যায়।

রুদ্ধ: যানজট ভিআইপি রোডে। শনিবার সন্ধ্যায়। —নিজস্ব চিত্র।

পুজোর উদ্বোধনের দিনেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ওই পুজো কমিটি ও পুলিশকে পরস্পরের সঙ্গে সমন্বয় রেখে কাজ করতে নির্দেশ দিয়েছিলেন। পুজোর উদ্বোধনে এ দিন মুম্বই থেকে এসেছিলেন বিদ্যা বালন। ছিলেন অনেক বিশিষ্ট অতিথিও। যে কারণে রাত ৮টায় মণ্ডপ দর্শকদের জন্য খোলা যায়নি। তার জেরে মণ্ডপের বাইরে বাঁশের ব্যারিকেডে ভিড় উপচে পড়তে দেখা যায়। ভিড়ের মধ্যে অসুস্থ হয়ে পড়েন এক মৃগী রোগীও। তাঁকে উদ্ধার করে গাড়িতে তুলে দেয় পুলিশ। রাত ৯টার কাছাকাছি সময়ে মণ্ডপে দর্শকদের প্রবেশাধিকার মেলে। দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে ঢুকতে না পেরে বহু দর্শককে চেঁচামেচি করতেও দেখা যায়। নৈহাটি থেকে আসা শেলি সরকার কিংবা সোদপুরের মধুমিতা সাহাদের বক্তব্য ছিল, ‘‘পুজোর ভিড় এড়াতে আজই ফাঁকায় ফাঁকায় দেখে চলে যাব।’’ আগেভাগে এসে মণ্ডপ দর্শনের এই চেষ্টার জেরে শুরুর দিনেই কার্যত জনতার ঢল নামে ওই মণ্ডপে। সেই ভিড় সামলাতে বেগ পেতে হয় পুলিশকে।

দু’বছর আগে অষ্টমীর রাতে ভিড়ের চাপে ভিআইপি রোড ও বাইপাস যানজটে স্তব্ধ হয়ে যাওয়ায় শ্রীভূমির পুজোয় দর্শকদের প্রবেশ বন্ধ করে দেয় পুলিশ। গত বছর অবশ্য পুজোর সময়ে ভিআইপি রোডে ট্র্যাফিক নিয়ন্ত্রণে বড় কোনও সমস্যা হয়নি। কিন্তু এ বছর আবার শ্রীভূমির পুজোর ভাবনা নিয়ে অনেক দিন ধরেই নানা মহলে প্রচার চলেছে। যার জেরে এ বার উৎসবের দিনগুলোয় ভিড় কেমন হবে, সে দিকে নজর রাখা হচ্ছে বলেই জানিয়েছে কমিশনারেট।

এ বার ভিআইপি রোডে উল্টোডাঙা থেকে লেক টাউনের দিকে যাওয়ার পথে বাঁ দিকে উঁচু উঁচু ‘ভিউ কাটার’ বসিয়েছে পুলিশ। যাতে কোনও ভাবেই গাড়ির যাত্রীরা গতি কমিয়ে মণ্ডপের দিকে তাকাতে না পারেন। নামানো হয়েছে দড়ি ফেলে ভিড় নিয়ন্ত্রণ করার বাহিনীও। ভিড় নিয়ন্ত্রণ করতে দক্ষিণদাঁড়ির কাছে এক সময়ে সার্ভিস রোডে গাড়ি চলাচল বন্ধ করে দেয় পুলিশ। তার জেরে উল্টোডাঙা উড়ালপুল এবং সার্ভিস রোডের সংযোগস্থলে এসে গাড়ির সারি তালগোল পাকিয়ে যেতে দেখা যায়।
কলকাতা পুলিশ জানাচ্ছে, ভিআইপি রোডে গাড়ির গতি কমে যাওয়ায় বিমানবন্দরমুখী বাইপাস, হাডকোর দিকে সিআইটি রোড কিংবা হাডকো মোড়ের কাছে উল্টোডাঙা মেন রোডে দীর্ঘ যানজট তৈরি হয়।

বিধাননগর কমিশনারেট জানিয়েছে, এ দিন শ্রীভূমির মণ্ডপ খোলা হয়েছে। শুরুর দিনটি কেমন যায়, সে দিকে নজর রেখে আগামী দিনে ট্র্যাফিক নিয়ন্ত্রণের কৌশল ঠিক করা হবে।
উদ্যোক্তারা অবশ্য জানিয়েছেন, তাঁরা ভিতরে ভিড় নিয়ন্ত্রণ করছেন। বাইরের দিকে পুলিশ সামলাচ্ছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE