Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৯ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

আগে উদ্ধার ও চিকিৎসা হোক, বাকিটা পরে দেখা যাবে: দার্জিলিং থেকে মুখ্যমন্ত্রী

ঘটনার খবর পেয়ে উদ্বিগ্ন মমতা

নিজস্ব সংবাদদাতা
০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ১৭:৪৫
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

কলকাতায় যখন মাঝেরহাট সেতু ভেঙে পড়েছে, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তখন দার্জিলিঙে। ঘটনার খবর পেয়ে উদ্বিগ্ন মমতা জানান, জরুরি ভিত্তিতে আগে উদ্ধারকাজ এবং আহতদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আহতদের ৫০ হাজার টাকা এবং নিহতদের পরিবার পিছু ৫ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। কেন, কী ভাবে ঘটেছে, সে সব নিয়ে পরে আলোচনা হবে। পরে তদন্ত করে সবটাই দেখা হবে।

মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে ৪টে নাগাদ দক্ষিণ শহরতলিতে মাঝেরহাট সেতুর একাংশ ভেঙে পড়ে। সেই ঘটনায় বেশ কয়েক জনের মৃত্যু হয়েছে। আহতও হয়েছেন অনেকে। তবে, হতাহতের প্রকৃত সংখ্যা এ দিন সন্ধ্যা পর্যন্ত সরকারি ভাবে জানানো হয়নি। দার্জিলিঙে জিটিএ-র বৈঠক সেরে ফেরার পরেই মুখ্যমন্ত্রীর কাছে ওই দুর্ঘটনার খবর পৌঁছয়। খবর পেয়েই মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‘একটা দুর্ঘটনা ঘটেছে। দুর্ঘটনা তো কেউ চায় না কখনও। কেন ঘটেছে, কী ঘটেছে, কী বৃত্তান্ত, সেটা নিয়ে পরে আলোচনা হবে। যা সঠিক ব্যবস্থা নেওয়ার, নিশ্চয়ই হবে। এক জনের মৃত্যুও দুর্ভাগ্যজনক। এখন প্রথম কাজ, মানুষকে উদ্ধার করা এবং তাঁদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করা। সেই মতো সবটাই করা হচ্ছে।’’

সোমবার রাতেই দার্জিলিং পৌঁছেছিলেন মমতা। আগামিকাল বুধবার শিক্ষক দিবসে দার্জিলিং হিল বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্বোধন করার কথা তাঁর। কিন্তু, তার আগেই এ দিন বিকালে ভয়াবহ দুর্ঘটনার খবর পেয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে ওঠেন মমতা। তিনি বলেন, ‘‘আমরা সকলেই ফিরে যেতে চাইছি। কিন্তু, এই মুহূর্তে এখান থেকে শিলিগুড়ি নামতেও তো ঘণ্টা চারেক সময় লাগবে। এখন আর কলকাতা ফেরার কোনও বিমান নেই। আমরা এখান থেকে পরিস্থিতির উপর লাগাতার নজর রাখছি। আমাদের মনটা ওখানে পড়ে রয়েছে।’’

Advertisement

দার্জিলিং থেকে কী বললেন মমতা, দেখুন ভিডিয়ো

আরও পড়ুন: শহরের বুক কাঁপিয়ে ভেঙে পড়ল সেতু, এ বার মাঝের হাট ব্রিজ, অনেক মৃত্যুর আশঙ্কা

আরও পড়ুন: দেখে নিন ভেঙে পড়া মাঝেরহাট ব্রিজের ছবি

আরও পড়ুন: ‘অনেক দিন ধরেই বলছি, সেতুটা কাঁপছে, কেউ কথা শোনেনি’​

মমতা জানান, তিনি কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার, পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম, কলকাতার মেয়র তথা দমকল মন্ত্রী শোভন চট্টোপাধ্যায়-সহ একাধিক মন্ত্রী এবং আধিকারিককে ঘটনাস্থলে পৌঁছনোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কী ভাবে উদ্ধার কাজ হবে, কোথায় চিকিৎসা করা হবে— সবটাই সরকার দেখছে। পুলিশের সঙ্গে পুরসভা, বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী এবং দমকলও উদ্ধার কাজ চলছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

(শহরের প্রতি মুহূর্তের সেরা বাংলা খবর জানতে পড়ুন আমাদের কলকাতা বিভাগ।)



Tags:
মাঝেরহাট Majerhat Bridge Majerhat Mamata Banerjeeমমতা বন্দ্যোপাধ্যায় Kolkata Flyover Collapse
Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement