Advertisement
০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Mamata Banerjee

কিসের ভয়ে আর এসএসকেএমে রক্ত পরীক্ষা করাতে যান না? জানালেন মুখ্যমন্ত্রী নিজেই

এসএসকেএম হাসপাতালে রক্ত পরীক্ষা করাতে যেতে ভয় পান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার হাসপাতালে বিভিন্ন প্রকল্পের উদ্বোধনে গিয়ে তিনি নিজেই তার কারণ জানালেন।

এসএসকেএম হাসপাতালে রক্ত পরীক্ষা করাতে যেতে ভয় পান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এসএসকেএম হাসপাতালে রক্ত পরীক্ষা করাতে যেতে ভয় পান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৮ ডিসেম্বর ২০২২ ১৭:৩১
Share: Save:

এসএসকেএম হাসপাতালে রক্ত পরীক্ষা করাতে যেতে ভয় পান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার হাসপাতালে বিভিন্ন প্রকল্পের উদ্বোধনে গিয়ে তিনি নিজেই তার কারণ জানালেন। এসএসকেএম হাসপাতালে রক্ত পরীক্ষার বিষয়ে মমতার পূর্ব অভিজ্ঞতা খুব একটা সুখকর নয়।

Advertisement

মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, তিনি অনেক বার হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। অনেক বার তাঁর হাতে সূচ ফোটাতে হয়েছে। চিকিৎসক বা নার্সরা অনেকেই ইঞ্জেকশন দেওয়ার কাজে পটু নন বলে মনে হয়েছে তাঁর। এসএসকেএম থেকে মমতা বলেন, ‘‘এক বার একটা ইঞ্জেকশন দিতে গিয়ে আমার হাতটা পুরো ফুলিয়ে দিয়েছিল। পিজিতে আমি এক বার রক্ত পরীক্ষা করিয়েছিলাম। রক্ত তো চিকিৎসকরা নেন না, এটা নার্সদের কাজ। এমন জোরে আমার হাত থেকে রক্ত নিয়েছিল, সারা হাত কালো হয়ে গিয়েছিল। সেই ভয়ে আমি আর এখানে রক্ত পরীক্ষা করাতে আসি না।’’

এসএসকেএম-এর ট্রমা কেয়ার সেন্টারের পরিষেবা নিয়েও খুশি নন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি জানান, রোগী এলে ভর্তি প্রক্রিয়াতেই সময় কেটে যাচ্ছে। আগে তাঁকে পরিষেবা দেওয়া দরকার। মমতার কথায়, ‘‘আমি দেখলাম, প্রক্রিয়াতেই অনেক সময় লেগে যাচ্ছে। ট্রমা সেন্টারে তো এটা হওয়ার কথা নয়। পিজি হাসপাতাল নিয়ে আমরা গর্ব করি। এখানে এটা হওয়া উচিত নয়।’’

এসএসকেএম হাসপাতালে পরিষেবা উন্নত করার জন্য প্রয়োজনে আরও বেশি কর্মী নিয়োগ করার কথাও বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী। এসএসকেএম কর্তৃপক্ষকে তাঁর পরামর্শ, রাতে সিনিয়র চিকিৎসকদের হাসপাতালে রাখার ব্যবস্থা করতে হবে। রাজ্যের অন্য হাসপাতালগুলির ‘রেফার রোগ’ নিয়েও সরব হয়েছেন মমতা। তিনি জানান, রোগীদের অন্য হাসপাতালে রেফার করে দায় ঝেড়ে ফেললে চলবে না। এমন কোনও দূরের হাসপাতালেও যেন রেফার না করা হয়, যেখানে পৌঁছতে পৌঁছতেই রোগীর মৃত্যুর সম্ভাবনা রয়েছে। রেফার করার সময় সে দিকটি মাথায় রাখতে বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.