Advertisement
০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

চুরি করে চকোলেট খেয়ে চম্পট চোরেদের

আশপাশের ফ্ল্যাটে বাইরে থেকে হুড়কো টেনে নিশ্চিন্তে লাগোয়া ফাঁকা ফ্ল্যাটে চুরি। তার পরে ফ্রিজে রাখা চকোলেট-কোল্ড ড্রিঙ্কে মিষ্টিমুখ। এবং শেষমেশ ধীরেসুস্থে পলায়ন। শনিবার রাতে তপসিয়ার একটি ফ্ল্যাটে এ ভাবেই লক্ষাধিক টাকা, দামি গয়না হাতিয়ে চম্পট দিল চোরেরা। পুলিশ জানায়, রবিবার সকালে ঘুম থেকে উঠে আনন্দপুর থানার পূর্ব তপসিয়া রোডের ওই বাড়িতে পাঁচতলার পাঁচটি ফ্ল্যাটের বাসিন্দারা টের পান, প্রত্যেকেরই দরজা বাইরে থেকে বন্ধ করা আছে।

নিজস্ব সংবাদদাতা
শেষ আপডেট: ১১ অগস্ট ২০১৪ ০৩:০১
Share: Save:

আশপাশের ফ্ল্যাটে বাইরে থেকে হুড়কো টেনে নিশ্চিন্তে লাগোয়া ফাঁকা ফ্ল্যাটে চুরি। তার পরে ফ্রিজে রাখা চকোলেট-কোল্ড ড্রিঙ্কে মিষ্টিমুখ। এবং শেষমেশ ধীরেসুস্থে পলায়ন। শনিবার রাতে তপসিয়ার একটি ফ্ল্যাটে এ ভাবেই লক্ষাধিক টাকা, দামি গয়না হাতিয়ে চম্পট দিল চোরেরা।

Advertisement

পুলিশ জানায়, রবিবার সকালে ঘুম থেকে উঠে আনন্দপুর থানার পূর্ব তপসিয়া রোডের ওই বাড়িতে পাঁচতলার পাঁচটি ফ্ল্যাটের বাসিন্দারা টের পান, প্রত্যেকেরই দরজা বাইরে থেকে বন্ধ করা আছে। কোনও ভাবে বেরিয়ে এক যুবক নিজের এবং বাকি ফ্ল্যাটের দরজার হুড়কো খুলে দেন। তখনই সকলে খেয়াল করেন বন্ধ থাকা একটি ফ্ল্যাটের তালা ভাঙা। ওই ফ্ল্যাটটি সম্প্রতি কিনেছেন নৌশাদ আলি নামে এক ব্যক্তি। তালা ভাঙার বিষয়টি খেয়াল করে ভিতরে ঢুকে তিনি দেখেন, ঘর থেকে টাকা-গয়না শুধু নয়, ফ্রিজ থেকে উধাও চকোলেট এবং ঠান্ডা পানীয়ও। নৌশাদ পুলিশকে জানিয়েছেন, ফ্ল্যাট থেকে কয়েক ভরি সোনার গয়না, নগদ কয়েক হাজার টাকা, টিভি, সাবান, সুগন্ধী, পোশাক এবং জুতো খোয়া গিয়েছে। ফ্রিজে চকোলেটের বাক্স থেকে অর্ধেক চকোলেট এবং একটি কোল্ড ড্রিঙ্কের বোতলও উধাও। পরে ফ্ল্যাটের পাশ থেকে দু’টি চকোলেটের মোড়ক এবং ঠান্ডা পানীয়ের ফাঁকা একটি বোতল উদ্ধার করেছেন বলেও পুলিশকে জানান নৌশাদ। তাঁর অনুমান, চুরির পরে ফ্ল্যাটে বসেই সে সব খেয়েছে দুষ্কৃতীরা।

পুলিশ জানায়, নৌশাদের ফ্ল্যাটের আশপাশের পাঁচটি ফ্ল্যাটে বাইরে থেকে হুড়কো তুলে দেয় চোরেরা। তার পরে নিশ্চিন্ত মনে ওই ফ্ল্যাটের তালা কেটে জিনিসপত্র নিয়ে চম্পট দেয়। প্রাথমিকভাবে পুলিশের অনুমান, এই ঘটনায় বেশ কয়েক জন যুক্ত রয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

নৌশাদ জানান, সপ্তাহখানেক আগে তাঁরা ওই ফ্ল্যাটটি কিনেছেন। রবিবারই স্থায়ী ভাবে সেখানে চলে আসার আগে শনিবারই বিছানা, আলমারি-সহ বেশ কিছু আসবাব ও মালপত্র ওই ফ্ল্যাটে রেখে দেন। কিন্তু ফ্ল্যাটের কিছু কাজ বাকি থাকায় রাতটা ছিলেন পাশের একটি ফ্ল্যাটে এক আত্মীয়ের বাড়িতে। নৌশাদ জানান, রবিবার সকাল সাড়ে ৬টা নাগাদ এক প্রতিবেশী ফোনে জানান, তাঁর ফ্ল্যাটের দরজা বাইরে থেকে বন্ধ। এর পরে বাইরে বেরোতে গিয়ে তিনিও দেখেন, আত্মীয়ের ফ্ল্যাটের দরজাও বাইরে থেকে আটকানো। পরে ওই প্রতিবেশীর ছেলে রাজ তাঁদের ফ্ল্যাটের ছাদের কাছে থাকা ফাঁকা অংশ দিয়ে বাইরে বেরিয়ে দেখেন আশপাশের সবক’টি ফ্ল্যাটের দরজাই বাইরে থেকে হুড়কো লাগানো। রাজই সবার দরজা খুলে দেন। এর পরেই বাইরে বেরিয়ে দরজার তালা ভাঙা দেখে চুরির বিষয়টি টের পান নৌশাদ।

Advertisement

চুরি করতে গিয়ে খেয়েদেয়ে আসার ঘটনা অবশ্য নতুন কিছু নয়। এর আগে দক্ষিণ শহরতলির রিজেন্ট পার্ক থানার বাঁশদ্রোণী প্লেসে চুরির পরে ফ্রিজ খুলে আম এবং ঠান্ডা পানীয় খেয়ে চম্পট দিয়েছিল দুষ্কৃতীরা। বছর সাতেক আগে বালিগঞ্জের একটি ফ্ল্যাটে পরিবারের লোকেরা না থাকার সুযোগে চুরির অভিযোগে এক পরিচারক গ্রেফতার হয়। ধৃতকে জেরা পুলিশ জেনেছিল, চুরির পরে বসার ঘরের আরামকেদারায় হেলান দিয়ে বসে ফ্রিজ থেকে ফলের রস ও কাজুবাদাম নিয়ে খেতে খেতে টিভি দেখেছিল সে। ঠিক যেমনটা তাঁর মালিক-মালকিন করেন।

অন্য দিকে, পর্ণশ্রীর রামকৃষ্ণ সরণির একটি ফাঁকা বাড়িতে তালা ভেঙে বেশ কয়েক ভরি সোনার গয়না, নগদ কয়েক হাজার টাকা এবং একটি সাইকেল চুরি হয়ে গিয়েছে বলে অভিযোগ। পুলিশ জানায়, গৃহকর্তা সপরিবার বাইরে গিয়েছিলেন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.