Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

৩০ নভেম্বর ২০২১ ই-পেপার

বন্ধ লস্যির দোকানে ঝুলন্ত দেহ মালিকের

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৩ জুন ২০২০ ০৩:৩১
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

নিজের দোকানের ভিতর থেকে উদ্ধার হল এক তরুণের ঝুলন্ত দেহ। সোমবার বিকেলে ব্যারাকপুর স্টেশন চত্বর এলাকার ঘটনা। টিটাগড় থানার পুলিশ জানিয়েছে, ওই তরুণের নাম সঞ্জয় পাসোয়ান (২২)। ব্যারাকপুর রেল স্টেশনের বাইরে সঞ্জয়ের লস্যির দোকান রয়েছে। লকডাউনের কারণে দীর্ঘদিন দোকানটি বন্ধ। তিনিই বাড়ির একমাত্র রোজগেরে। পরিবারের লোকেদের দাবি, অভাবের কারণেই আত্মঘাতী হয়েছেন সঞ্জয়।

পুলিশ সূত্রে খবর, এ দিন বেলার দিকে বাড়ি থেকে বেরিয়েছিলেন সঞ্জয়। দুপুরে না ফেরায় খোঁজাখুজি শুরু হয়। দোকানের পিছনে রেললাইন ঘেঁষা বস্তিতে তাঁদের বাড়ি। বিকেল পাঁচটা নাগাদ সঞ্জয়ের পড়শিরা খেয়াল করেন তাঁর দোকান ভিতর থেকে বন্ধ। দরজা খুলে তাঁরা গামছার ফাঁস দিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় সঞ্জয়ের দেহটি দেখতে পান। টিটাগড় থানার পুলিশ দেহ ময়না-তদন্তে পাঠায়। পুলিশ একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সঞ্জয়ের বাবা নেই। বাড়িতে মা, দুই ভাই এবং দাদু রয়েছেন। লস্যির দোকানের আয় থেকেই তাঁদের সংসার চলত। অভিযোগ, রেল পুলিশ অনুমতি না দেওয়ায় স্টেশন চত্বরে সঞ্জয়ের মতো সবার দোকানই বন্ধ। তবে রেল পুলিশের দাবি, ট্রেন চলছে না বলে যাত্রীদের অভাবে দোকানগুলি বন্ধ রয়েছে। লকডাউনের সময়ে স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা সঞ্জয়ের এলাকায় খাবার জোগাত। কিছু দিন আগে তা বন্ধ হয়েছে। এলাকার এক ব্যবসায়ী রাজু দাস বলেন, “অভাবের জন্য বাড়ির সকলের খাবার যোগাতে হিমশিম খাচ্ছিলেন সঞ্জয়। অনেক দোকানদারেরই এমন অবস্থা।”

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement