Advertisement
০৩ ডিসেম্বর ২০২২
Weather Today

আরও শক্তিশালী নিম্নচাপ, শনি থেকে কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গে প্রবল বৃষ্টির পূর্বাভাস, মাটি হবে পুজোর বাজার?

তবে ভ্যাপসা গরম থেকে এখনই রেহাই মিলছে না। আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি বজায় থাকছেই। মঙ্গলবার ভারী বৃষ্টি হতে পারে কলকাতা এবং পার্শ্ববর্তী জেলাগুলিতে। জানাচ্ছে আবহাওয়া দফতর।

সোমবার থেকে বাড়তে পারে বৃষ্টি।

সোমবার থেকে বাড়তে পারে বৃষ্টি। —ফাইল চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১২:২৩
Share: Save:

পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগর সংলগ্ন অঞ্চলে তৈরি হয়েছে নিম্নচাপ। ক্রমশ তা শক্তিশালী হচ্ছে। তার প্রভাবে শনিবার সকাল থেকে দক্ষিণবঙ্গে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দিল আবহাওয়া দফতর। এর জেরে সপ্তাহান্তে মাটি হতে পারে পুজোর বাজার। আগামী মঙ্গলবার কলকাতা ভিজতে পারে ভারী বৃষ্টিতে। শুক্রবার এমনই পূর্বাভাস দিল আবহাওয়া দফতর।

Advertisement

আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস, নিম্নচাপের প্রভাবে শনিবার থেকে বৃষ্টি হতে পারে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে। তবে বৃষ্টির বেগ বাড়তে পারে রবিবার থেকে। রবি এবং সোমবার তুলনামূলক বেশি বৃষ্টি হতে পারে পূর্ব এবং পশ্চিম মেদিনীপুরে। বিশেষত, সোমবার ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে ওই দুই জেলায়। এর পর গাঙ্গেয় উপকূলের জেলাগুলিতে বৃষ্টি বাড়তে পারে। মঙ্গলবার ঝেঁপে বৃষ্টি নামতে পারে কলকাতা শহরে। মঙ্গলবার কলকাতা-সহ হাওড়া, হুগলি, দুই ২৪ পরগনা, দুই মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, পূর্ব বর্ধমান, মুর্শিদাবাদ এবং নদিয়া জেলায় ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দফতর। পাশাপাশি ঝোড়ো হাওয়াও বইতে পারে।

কয়েকটি জেলায় ইতিমধ্যেই হলুদ সতর্কতা জারি হয়েছে। গাঙ্গেয় উপকূলে বসবাসকারী মৎস্যজীবীদের গভীর সমুদ্রে যেতে নিষেধ করেছে আবহাওয়া দফতর। পাশাপাশি যাঁরা ইতিমধ্যে পাড়ি দিয়েছেন, তাঁদের শুক্রবার সন্ধ্যার মধ্যেই ফিরে আসতে বলা হয়েছে।

তবে বৃষ্টি হলেও এই গুমোট ভাব কাটছে না। আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি একই রকম থাকবেই বলে জানাচ্ছেন আবহবিদরা। শুক্রবার কলকাতায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.