Advertisement
১৮ জুলাই ২০২৪
Kunal Ghosh

বিনয় মিশ্রর আত্মীয়ের সঙ্গে কলকাতায় বৈঠক করেন শুভেন্দু, দিনক্ষণ জানিয়ে নতুন দাবি কুণালের

তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল দাবি করেন, নিখোঁজ বিনয়ের সঙ্গে সম্প্রতি ফোনে কথা হয়েছে শুভেন্দুর। তাই বিরোধী দলনেতার উচিত, তাঁর সঙ্গে কী কথোপকথন হয়েছে তা প্রকাশ্যে নিয়ে আসা।

বিরোধী দলনেতা শুভেন্দুর সঙ্গে বিনয়ের যোগাযোগের অভিযোগ তুললেন তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ

বিরোধী দলনেতা শুভেন্দুর সঙ্গে বিনয়ের যোগাযোগের অভিযোগ তুললেন তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৫:৪০
Share: Save:

গরু পাচার, কয়লা পাচার-সহ বেআইনি আর্থিক মামলায় অভিযুক্ত বিনয় মিশ্রর সঙ্গে বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর যোগাযোগের অভিযোগ তুলে সরব হলেন কুণাল ঘোষ। মঙ্গলবার সাংবাদিক বৈঠক করে তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল দাবি করেন, নিখোঁজ বিনয়ের সঙ্গে সম্প্রতি ফোনে কথা হয়েছে শুভেন্দুর। তাই বিরোধী দলনেতার উচিত তাঁর সঙ্গে কী কথোপকথন হয়েছে তা প্রকাশ্যে নিয়ে আসা। শুধু তাই নয়, কুণালের দাবি, বিনয়ের আত্মীয়দের সঙ্গে সম্প্রতি নিজাম প্যালেসে বৈঠক করেন শুভেন্দু।

প্রসঙ্গত, রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব দাবি করে আসছে, বিনয়ের সঙ্গে যোগাযোগ রয়েছে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের। কিন্তু তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক দিন কয়েক আগে থেকেই বিনয়-শুভেন্দু যোগ নিয়ে সরব হয়েছেন। তিনি বলেছেন, ‘‘বিনয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করার অভিযোগে অবিলম্বে জেরা করা হোক বিরোধী দলনেতাকে।’’ এর পরে মঙ্গলবার কুণালের দাবি, ২০২১ সালের ২১ এবং ২২ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যা ৬টা থেকে ৭টা পর্যন্ত নিজাম প্যালেসে বিনয় মিশ্রর ঘনিষ্ঠ আত্মীয়ের সঙ্গে বৈঠক করেন শুভেন্দু। একইসঙ্গে তৃণমূল মুখপাত্রের দাবি, দু’জনের মোবাইলের টাওয়ার লোকেশন মিলিয়ে দেখুক তদন্তকারী সংস্থা। পাশাপাশি, বিনয়ের সঙ্গে শুভেন্দুর কথোপকথনের অডিও আদালতে পেশ করার হুঁশিয়ারিও দেন তিনি। সেখানে নাকি সেটিং করে দেওয়ারও প্রস্তাব দিয়েছিলেন শুভেন্দু।

তবে কুণালের এমন অভিযোগের কোনও জবাব দিতে চাননি বিরোধী দলনেতা। তবে বিজেপি শিবির থেকে বর্ষীয়ান বিধায়ক মিহির গোস্বামী জবাব দিয়েছেন। নাটাবাড়ির বিধায়ক বলেছেন, ‘‘তৃণমূল যে একটি নীতিহীন দল তা জনসমক্ষেই প্রমাণ হয়ে গিয়েছে। একের পর এক নেতার বাড়ি থেকে কোটি কোটি টাকা উদ্ধার হওয়ার ঘটনায় রাজ্যের মানুষের কাছে তা প্রকাশ পেয়ে গিয়েছে।’’ মিহির আরও বলেছেন, ‘‘তাই তৃণমূল মুখপাত্র বিরোধী দলনেতার নামে কী অভিযোগ করলেন, আমরা তাতে কান দিচ্ছি না। কারণ এই অভিযোগের কোনও ভিত্তি নেই।’’

অভিষেকের তোলা অভিযোগ নিয়েও মঙ্গলবার সরব হয়েছে কুণাল। তিনি বলেন, ‘‘কথায় কথায় মানহানির মামলা করেন শুভেন্দু, আইনজীবীর চিঠি পাঠান। অভিষেকের অভিযোগ যদি মিথ্যে হয় তাহলে কেন মানহানির মামলা করলেন না? শুভেন্দু মামলা করলে অডিও ক্লিপটি আদালতে পেশ করবেন অভিষেক।” একইসঙ্গে তাঁর দাবি, শুভেন্দু মামলা না করলে বুঝতে হবে অভিষেকের দাবি সত্য।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE