×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৮ জুলাই ২০২১ ই-পেপার

লড়াইয়ে মরিয়া সেনাপতিরাও

নিজস্ব প্রতিবেদন
২২ এপ্রিল ২০১৯ ০৪:৩৫
মালদহে মোয়াজ্জেম হোসেনের সমর্থনে শুভেন্দু অধিকারী। নিজস্ব চিত্র

মালদহে মোয়াজ্জেম হোসেনের সমর্থনে শুভেন্দু অধিকারী। নিজস্ব চিত্র

তৃতীয় দফা ভোটের মুখে বিভিন্ন দলের সেনাপতিরা সারা দিন ব্যস্ত থাকলেন লড়াইয়ের শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতিতে।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সভার রেশ কাড়তে তৃণমূলের প্রচারে শেষ দিনে জমে উঠল বালুরঘাট। সেখানে দলের জেলা পর্যবেক্ষক শুভেন্দু অধীকারী অভিনেতা দেবকে নিয়ে সভা করেন। বুনিয়াদপুরে দেবের সভার পর বালুরঘাটে মহামিছিলে যোগ দেন সংখ্যালঘু উন্নয়নমন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়, উত্তরবঙ্গ উন্নয়নমন্ত্রী গৌতম দেব। সঙ্গে ছিলেন জেলার বিধায়ক তথা উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন প্রতিমন্ত্রী বাচ্চু হাঁসদা, বিপ্লব মিত্ররা। ঢাকঢোল তাসা মাদল বাজনার তালে তিন মন্ত্রী ও প্রার্থী অর্পিতাকে সঙ্গে নিয়ে কয়েক হাজার তৃণমূল কর্মী বালুরঘাট হাইস্কুল মাঠ থেকে মহামিছিল বের করেন। তার আগে শহরে রটে যায় ওই মিছিলে অভিনেতা দেবও উপস্হিত থাকবেন। ফলে রাস্তায় দুধারে পাড়া মহল্লা থেকে যুবক ও মহিলারা দলে দলে ভিড় করতে থাকেন। তবে বালুরঘাটে দেব আসেননি। তাতে তৃণমূল কর্মীদের উতসাহে কোনও ভাটা ছিল না। বিপুল উদ্দীপনার মধ্যে তৃণমূলের মহামিছিল শহর ঘুরে বাসস্ট্যান্ড এলাকায় গিয়ে শেষ হয়।

রোড শো করে এদিন শেষ প্রচারে ঝড় তোলেন বিজেপির রাজ্যসভার সাংসদ রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ও। এদিন রূপাদেবী গাজল স্ট্যান্ড থেকে রোড শো শুরু করেন। প্রথম দিকে তাঁর সঙ্গে প্রচারে ছিলেন মালদহ উত্তরের প্রার্থী খগেন মু্র্মু। পরে জেলার পরিষদের দলীয় সদস্যা সাগরিকা

Advertisement

সরকারকে সঙ্গে নিয়ে গাজলের বিভিন্ন এলাকায় রোড শো করেন তিনি। তাকে ঘিরে রাস্তার দুপাশে ভিড়ে উপচে পড়েছিল।

প্রচারের শেষ বেলায় আরএসপি প্রার্থী রণেন বর্মণকে নিয়ে বামফ্রন্ট বালুরঘাটে মহামিছিল বের করে। বামেরাও ঢাক তাসার বাজনার তালে মিছিলে লাল পতাকা উড়িয়ে শহর পরিক্রমা করা হয়।

Advertisement