Advertisement
০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Modi-Mamata

মোদীর ডাকা সর্বদল বৈঠকে যাওয়ার আগে জি২০-র লোগো নিয়ে পদ্ম-যুদ্ধে মমতা

দিল্লি রওনা হওয়ার আগে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়েছিলেন মমতা। তাঁকে জি২০-র প্রতীকে পদ্মফুল নিয়ে প্রশ্ন করা হয়েছিল? জবাবে মমতা বলেছেন, ‘‘দেশের সম্মানের কথা ভেবে এখনও চুপ করে আছি।’’

যে জি২০ সম্মেলনের প্রতীক নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন মমতা, তার আনুষ্ঠানিক প্রকাশ করেছেন মোদীই।

যে জি২০ সম্মেলনের প্রতীক নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন মমতা, তার আনুষ্ঠানিক প্রকাশ করেছেন মোদীই। গ্রাফিক: সনৎ সিংহ।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৫ ডিসেম্বর ২০২২ ১৫:৩৫
Share: Save:

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ডাকা জি২০ সম্মেলন সংক্রান্ত সর্বদল বৈঠকে যোগ দিতে দিল্লি যাচ্ছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার আগে তিনি প্রশ্ন তুললেন ভারতে জি২০ সম্মেলনের প্রতীক চিহ্নটি নিয়ে। একটি পদ্মফুলের ছবি সম্বলিত জি২০-র নতুন প্রতীকটির সম্প্রতি প্রকাশ করেছেন মোদী। মমতার প্রশ্ন, ‘‘প্রতীকে পদ্মফুলই ব্যবহার করা হল কেন? ভারতের সংস্কৃতি বোঝানোর আর কোনও উপায় কি ছিল না?’’ যদিও মমতা একই সঙ্গে জানিয়েছেন, তিনি ওই প্রতীক চিহ্নটি দেখলেও চুপ করেই থেকেছেন। কারণ তিনি মনে করেন এই ধরনের আলোচনা আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে দেশের সম্মানহানি করতে পারে। তবে তিনি বিষয়টি উত্থাপন করছেন না মানে এই নয় যে এই বিষয়টি হেলাফেলা করার মতো। বরং বিষয়টি কেন্দ্রের গুরুত্ব দিয়েই বিবেচনা করা উচিত বলে জানিয়েছেন মমতা।

Advertisement

আগামী বছর অর্থাৎ ২০২৩ সালের জি২০ সম্মলনে সভাপতিত্ব করতে চলেছে ভারত। ৯ এবং ১০ সেপ্টেম্বর দিল্লিতে বসবে সেই সম্মেলনের আসর। ২০টি দেশের প্রধান উপস্থিত থাকবেন বৈঠকে। এ ছাড়াও বিশেষ ভাবে আমন্ত্রিতদের তালিকায় থাকবেন বাংলাদেশ, ওমান, স্পেন, মরিশাস, সিঙ্গাপুর, নেদারল্যান্ডস-সহ ১০টি দেশের প্রধান। বিশেষ অতিথি হিসাবে হাজির থাকবেন আন্তর্জাতিক সংগঠনের সদস্যরাও। তাই তাঁদের অভ্যর্ত্থনা জানানোর প্রস্তুতির তোড়জোড় শুরু হয়ে গিয়েছে এখন থেকেই। ইতিমধ্যেই অনলাইনে জি২০-র প্রতীক, মূল ভাবনা এবং মূল উদ্দেশ্য কী হতে চলেছে তা আনুষ্ঠানিক ভাবে ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী। সোমবার বিকেলে জি২০-র প্রস্তুতি নিয়ে আলোচনার জন্যই দেশের সমস্ত রাজনৈতিক দলের প্রধানদের নিয়ে বৈঠক ডেকেছেন প্রধানমন্ত্রী। দিল্লিতে মমতা সেই বৈঠকে যোগ দিতে যাওয়ার আগেই মোদীর প্রকাশ করা জি২০ প্রতীক নিয়ে প্রশ্ন তুললেন।

সোমবার দমদম বিমানবন্দরে তাঁর ব্যক্তিগত বিমানে দিল্লি রওনা হওয়ার আগে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন মমতা। তাঁকে প্রশ্ন করা হয়, জি২০-র প্রতীকে পদ্মফুল রয়েছে, এ ব্যাপারে তাঁর মতামত কী? যে হেতু কেন্দ্রের ক্ষমতায় থাকা শাসকদল বিজেপিরও প্রতীক পদ্মফুল। সে জন্য বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে এ ব্যাপারে প্রশ্ন করা হয়েছিল। মমতা প্রশ্নের উত্তরে প্রথমে বলেন, ‘‘পদ্ম তো আমাদের জাতীয় ফুল। এখন নির্বাচন কমিশন যদি কোনও রাজনৈতিক দলকে দেশের জাতীয় ফুল প্রতীক হিসাবে ব্যবহার করার অনুমতি দেয়, কী করা যাবে!’’ যদিও মমতা এর পরেই যোগ করেন, ‘‘কিন্তু চাইলে তো আরও অনেক জাতীয় প্রতীককেই লোগো হিসাবে ব্যবহার করা যেত, আমাদের জাতীয় পশু বাঘ ছিল, জাতীয় পাখি ময়ূর ছিল...।’’ মমতার মতে ‘ন্যাশনাল এমব্লেম’ তো ব্যবহার করা যেত জি২০ প্রতীক হিসাবে।

এ সব তাঁর মনে হলেও তিনি এ নিয়ে বিতর্ক তৈরি করতে চান না বলে জানিয়েছেন মমতা। বলেছেন, ‘‘বিতর্ক চাই না কারণ, এটা দেশের সম্মানের ব্যাপার। আন্তর্জাতিক দুনিয়ায় এতে দেশের সম্মানহানি হতে পারে। তাই দেখলেও কিছু বলিনি।’’ তবে দিল্লিতে যাওয়ার আগে, প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকে যোগ দেওয়ার আগে, জি২০-র পদ্মের ছবি দেওয়া লোগো নিয়ে মমতা বলেছেন, ‘‘কিছু বলছি না মানে এই নয় এটা কোনও ইস্যু নয়। বরং এই বিষয়টিকে একটি গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু বলেই মনে করি আমি। এ-ও মনে করি যে, বিষয়টি কেন্দ্রের গুরুত্ব সহকারেই দেখা উচিত।’’

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.