Advertisement
২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Firhad Hakim

Firhad Hakim & Sovandeb Chattopadhyay: শোভনদেবের ‘শিক্ষিত বেকার’ মন্তব্য নিয়ে সংবাদমাধ্যম মিথ্যে প্রচার করছে, দাবি ফিরহাদের

শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়ের ‘শিক্ষিত বেকার’ মন্তব্য নিয়ে মিথ্যে প্রচার করছে সংবাদমাধ্যম। এমনটাই অভিযোগ করলেন কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম।

কলকাতা পুরসভার মেয়র ফিরহাদ হাকিম পাশে দাঁড়ালেন সতীর্থ শোভনদেবের।

কলকাতা পুরসভার মেয়র ফিরহাদ হাকিম পাশে দাঁড়ালেন সতীর্থ শোভনদেবের। ফাইল চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৫ জুন ২০২২ ১৬:০৩
Share: Save:

সতীর্থ শোভনদেবের পাশে দাঁড়িয়ে তাঁর মন্তব্য প্রসঙ্গে সংবাদমাধ্যমকেই দায়ী করলেন কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম। রবিবার চেতলা পার্কে বিশ্ব পরিবেশ দিবসের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে এসে কৃষিমন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়ের করা মন্তব্য প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের মুখে পড়েন তিনি। জবাবে ফিরহাদ বলেন, ‘‘আপনারা এটা মিথ্যে প্রচার করছেন। শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় যা বলেছেন, আমি শুনেছি। কারণ, আমি পাশেই ছিলাম।’’ তিনি আরও বলেন, ‘‘তিনি বলেছেন, জেনারেল এডুকেশনে এখন চাকরি-বাকরি করতে গেলে এমএ পড়ার পরে আপনাকে বিএড-ও পড়তে হবে বা ডিএলএড পড়তে হবে। তা হলে চাকরির সুবিধা আছে। রাজ্যে চাকরি নেই, এ কথা শোভনদেব কখনও বলেননি।’’

প্রসঙ্গত, শনিবার দুপুরে নেতাজি ইনডোর স্টেডিয়ামে শিক্ষা মেলার আয়োজন করা হয়। দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় অংশ নিয়েছিল ওই মেলায়। অনুষ্ঠানে শোভনদেব ছাড়াও হাজির ছিলেন রাজ্যের আরও দুই মন্ত্রী, ফিরহাদ হাকিম ও হুমায়ুন কবীর। তাঁদের সামনে বক্তৃতা করতে গিয়ে কৃষিমন্ত্রী বলেন, ‘‘এ বছর মাধ্যমিকে ১২ লক্ষ পড়ুয়া পরীক্ষা দিয়েছে। তাদের মধ্যে পাশ করেছে ৮৬ শতাংশ। ওরা সবাই শিক্ষিত বেকার হয়ে গেল। এর পর ওরা উচ্চমাধ্যমিক দেবে, গ্র্যাজুয়েশন দেবে, মাস্টার্স দেবে। এত ছেলে তৈরি হচ্ছে প্রতি দিন, কিন্তু ওরা ঘুরে বেড়াচ্ছে। শুধু গ্র্যাজুয়েট হয়ে চাকরি পাওয়া যাচ্ছে না। শুধু এমএ পাশ করে মিলছে না চাকরি।’’

তাঁর এমন মন্তব্যকে হাতিয়ার করে বিজেপি নেতা তথাগত রায় টুইট-খোঁচা দেন তৃণমূলকে। টুইটে তিনি লেখেন, ‘শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় যিনি তৃণমূলের অন্দরে পরিচ্ছন্ন ভাবমূর্তির নেতা বলে পরিচিত। মাধ্যমিক পরীক্ষায় পাস করা ৮৬ শতাংশও ছাত্রছাত্রীরাও এখন থেকে শিক্ষিত বেকার রূপে বিবেচিত হবেন বলে তিনি মন্তব্য করেছেন। পশ্চিমবঙ্গের শোচনীয় বেকারত্বের পরিস্থিতির চেহারা এটা।’

তথাগতর টুইট আক্রমণের পাল্টা ফিরহাদ বলেন, ‘‘দেশের বেকারত্বের ছবি মোদী সরকার বাড়িয়ে দিয়েছে। ৪৭ শতাংশ বেকারত্ব বেড়ে গিয়েছে। শুধু পশ্চিমবঙ্গ নিয়ে বেকারত্ব হয় না। সারা দেশে আজ হাহাকার। মুদ্রাস্ফীতির জন্য আজ দেশে চাকরি নেই। সত্যি কথাটা তথাগত রায়ও জানেন। উনি শিক্ষিত মানুষ। কিন্তু বলতে পারছেন না, কারণ যাতে উনি আবার বঞ্চনার শিকার না হন।’’

সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ

Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE