Advertisement
১৯ জুলাই ২০২৪
BJP

বিজেপির হোর্ডিং ছেঁড়ার অভিযোগ

রেলশহরে রাজনৈতিক হোর্ডিং ছিঁড়ে দেওয়ার ঘটনা নতুন নয়। এর আগে গত বিধানসভা উপ-নির্বাচনের সময়েও ওই নিউ সেটলমেন্ট এলাকায় তৃণমূলের বেশ কয়েকটি হোর্ডিং ছিঁড়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল।

—প্রতীকী ছবি

—প্রতীকী ছবি

নিজস্ব সংবাদদাতা
খড়্গপুর শেষ আপডেট: ২০ ডিসেম্বর ২০২০ ০৪:৩০
Share: Save:

মেদিনীপুরে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের জনসভার সমর্থনে লাগানো হয়েছিল হোর্ডিং। সভার শুরুর আগেই বিজেপির সেই হোর্ডিং ছেঁড়ার অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। শনিবার সকালে খড়্গপুর শহরের ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের নিউ সেটলমেন্ট এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে।

অমিত শাহের জনসভার সমর্থনে বিজেপির পক্ষ থেকে দিনকয়েক আগেই ওই এলাকায় হোর্ডিং দেওয়া হয়েছিল। ঘটনার পিছনে তৃণমূল জড়িত বলে অভিযোগ তোলে বিজেপি। এমনকি সকালেই এই হোর্ডিং ছেঁড়া হয়েছে বলেও দাবি করে বিজেপি। যদিও ওই হোর্ডিং ছেঁড়ার বিষয়টি অস্বীকার করে তৃণমূল।

রেলশহরে রাজনৈতিক হোর্ডিং ছিঁড়ে দেওয়ার ঘটনা নতুন নয়। এর আগে গত বিধানসভা উপ-নির্বাচনের সময়েও ওই নিউ সেটলমেন্ট এলাকায় তৃণমূলের বেশ কয়েকটি হোর্ডিং ছিঁড়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল। অভিযোগের তির ছিল বিজেপির দিকে। মাস কয়েক আগে তৃণমূলের বিক্ষুব্ধদের লাগানো মালঞ্চর হোর্ডিং ছিঁড়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল।

বিজেপির খড়্গপুর বিধানসভা আহ্বায়ক অভিষেক আগরওয়াল বলেন, “দিন কয়েক ধরেই দেখছিলাম চৌরঙ্গীতে লাগানো আমাদের হোর্ডিংয়ের বেশ কয়েকটি উধাও। কিন্তু এ বার শহরের মধ্যে দেখছি হোর্ডিং ছিঁড়ে দেওয়া হয়েছে। পায়ের তলার মাটি সরে যাওয়ায় এই কাজ তৃণমূল করেছে।” যদিও ওই ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূলের কো-অর্ডিনেটর পূজা নায়ডুর দাবি, “আমরা হোর্ডিং ছিঁড়তে যাই না। আমার ধারণা, ওঁরা নিজেরাই নিজেদের হোডিং ছিঁড়ে প্রচার পাওয়ার চেষ্টা করছে।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

BJP TMC Hoarding
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE