×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২০ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

আলোর খেলায় মাতবে সৈকত 

নিজস্ব সংবাদদাতা
দিঘা২৮ নভেম্বর ২০২০ ০৩:৪৬
—ফাইল চিত্র।

—ফাইল চিত্র।

পর্যটকদের আকর্ষণ টানতে রাজ্যের সৈকত শহর দিঘাতে নতুন রূপে সাজিয়েছে রাজ্য সরকার। সেই সৌন্দর্যায়নে তালিকায় এ বার যুক্ত হচ্ছে ‘থ্রিডি প্রজেকশন ম্যাপিং লাইটিং’। নতুন বছর শুরুর আগেই আলো আর সঙ্গীতের মূর্ছনায় মায়াবী পরিবেশ তৈরি হবে দিঘার সৈকতে।

পাশাপাশি, দিঘার সৈকতে বসবে মিউজিক্যাল ফাউন্টেন, মাল্টিমিডিয়া শো এবং আধুনিক সাউন্ড সিস্টেম। এই সবের জন্য মোট ন’কোটি টাকা খরচ করবে রাজ্য সরকার। ‘থ্রিডি প্রজেকশন ম্যাপিং লাইটিং সিস্টেম’ চালুর জন্য ইতিমধ্যেই দরপত্র ডেকেছে ‘দিঘা-শঙ্করপুর উন্নয়ন পর্ষদ’।

‘থ্রিডি প্রজেকশন ম্যাপিং লাইটিং সিস্টেম’ কী?

Advertisement

এটি আধুনিক একরকমের লাইটিং সিস্টেম। যে কোনও বড় পর্দার উপরে যে কোনও জিনিসের অবয়ব ফুটিয়ে তোলা যায়। দূরদর্শন বা সিনেমার তুলনায় এই পদ্ধতির সবচেয়ে বড় সুবিধা হল, বড় বড় ভবন বা বাড়ির দেওয়ালকেও পর্দা হিসাবে ব্যবহার করা যায়। গুজরাতের সবরমতী নদীর কাছে সর্দার বল্লভ ভাই পটেলের সুবিশাল মূর্তিতে,  দিল্লির ইন্ডিয়া গেট, প্যারিসে আইফেল টাওয়ারে ‘থ্রিডি প্রজেকশন ম্যাপিং লাইটিং সিস্টেম’ চালু রয়েছে।

দিঘা-শঙ্করপুর উন্নয়ন পর্ষদ সূত্রের খবর, দিঘার অদূরে মেরিন ড্রাইভের পাশে ন্যায় কালী মন্দির রয়েছে। সেখানে বসানো হবে ‘থ্রিডি প্রজেকশন ম্যাপিং লাইটিং’। সন্ধ্যের পরে বিভিন্ন রকমের শো দেখানো হবে পর্যটকদের। দিঘা-শঙ্করপুর উন্নয়ন পর্ষদের ভাইস চেয়ারম্যান অখিল গিরি বলেন, ‘‘মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্যোগে দিঘাকে বিশ্বমানের পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলার কাজ চলছে। এবার ন্যায়কালী মন্দিরের কাছে  থ্রিডি প্রজেকশন ম্যাপিং লাইটিং সিস্টেম বসানো হচ্ছে। সেখানে নিখরচায় পর্যটকেরা আলোর খেলা উপভোগ করতে পারবেন।’’

উল্লেখ্য, ২০১১ সালে রাজ্যে পালাবদলের পরেই দিঘাকে সাজিয়ে তোলার কথা ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গত কয়েক বছর ধরে শুধু এ রাজ্য নয়, দেশ-বিদেশের নানা প্রান্ত থেকে পর্যটকেরা দিঘায় বেড়াতে এসেছেন। লকডাউন পরিস্থিতিতে পর্যটন ব্যবস্থা মার খেলেও ধীরে ধীরে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হচ্ছে। বাস এবং পরে ট্রেন চলাচল শুরু হওয়ায় ক্রমশ স্বাভাবিক ছন্দে ফিরছে সৈকত শহর দিঘা। এই পরিস্থিতি পর্যটকদের মনোরঞ্জনের জন্য নয়া ব্যবস্থা চালু হচ্ছে জেনে খুশি স্থানীয় হোটেল ব্যবসায়ীরাও। এ প্রসঙ্গে দিঘা হোটেল মালিক সংগঠনের যুগ্ম সম্পাদক বিপ্রদাস চক্রবর্তী বলেন, ‘‘দেশ-বিদেশের নামিদামি পর্যটন কেন্দ্রগুলিতে এ ধরনের আধুনিক প্রযুক্তি সম্পন্ন লাইটিং ব্যবস্থা চালু রয়েছে। দিঘা এই পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হলে এটা পর্যটকদের কাছে বাড়তি পাওনা হতে পারে।’’

Advertisement