Advertisement
২৯ নভেম্বর ২০২২

কিশোরকে আটকে টাকা আদায়ের চেষ্টা, ধৃত তিন

বাড়ি থেকে পালিয়ে পিসির বাড়িতে যাওয়ার পথে হারিয়ে যাওয়া এক কিশোরকে আটকে রেখে টাকা আদায়ের চেষ্টার অভিযোগে তিন ব্যক্তিকে গ্রেফতার করল পুলিশ। শনিবার বিকেলে ঘটনাটি ঘটেছে তমলুক থানার শিমুলিয়া গ্রামে। পুলিশ জানিয়েছে, ধৃতদের নাম শেখ দিলবার হোসেন, শেখ ইয়াকুব ও শেখ কাসেম।

নিজস্ব সংবাদদাতা
তমলুক শেষ আপডেট: ২৪ অগস্ট ২০১৫ ০১:০৬
Share: Save:

বাড়ি থেকে পালিয়ে পিসির বাড়িতে যাওয়ার পথে হারিয়ে যাওয়া এক কিশোরকে আটকে রেখে টাকা আদায়ের চেষ্টার অভিযোগে তিন ব্যক্তিকে গ্রেফতার করল পুলিশ। শনিবার বিকেলে ঘটনাটি ঘটেছে তমলুক থানার শিমুলিয়া গ্রামে। পুলিশ জানিয়েছে, ধৃতদের নাম শেখ দিলবার হোসেন, শেখ ইয়াকুব ও শেখ কাসেম। ধৃতদের বাড়ি তমলুক থানার শিমুলিয়া গ্রামে। শনিবার সন্ধ্যায় শিমুলিয়া গ্রামে শেখ দিলবার হোসেনের বাড়ি থেকে মানস দোলই নামে ওই কিশোরকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। ধৃতদের রবিবার তমলুক আদালতে তোলা হলে বিচারক ধৃতদের ১৪ জনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেয়। পূর্ব মেদিনীপুরের পুলিশ সুপার অলোক রাজোরিয়া বলেন, ‘‘বাড়ি থেকে বেরিয়ে যাওয়া ওই কিশোরকে লোভ দেখিয়ে অপহরণ করে কয়েকজন নিজেদের কাছে আটকে রেখে টাকা আদায়ের চেষ্টা করেছিল। ওই কিশোরকে উদ্ধার করা হয়েছে। এই ঘটনায় জড়িত তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।’’

Advertisement

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, নন্দকুমারের সাওড়াবেড়িয়া জালপাই এলাকার রাধানাথচক গ্রামের বাসিন্দা মানস দোলই নামে ১৪ বছরের ওই কিশোর ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ে। বাবা চন্দন দোলাই মাছের ভেড়িতে কাজ করেন। অভিভাবকরা বকাবকি করায় গত ৫ আগস্ট বাড়ির লোককে না জানিয়ে ওই কিশোর ঘাটালে পিসির বাড়িতে যাওয়ার প্রথমে তমলুক স্টেশনে এসেছিল। পরে বাড়ি ফেরার সময় বাস না পেয়ে সমস্যায় পড়ে ওই কিশোর। এই সময় সেখানে দিলবার হোসেন নামে এক ব্যক্তি তাঁকে পরদিন বাড়িতে পৌঁছে দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে তমলুকের শিমুলিয়া গ্রামে নিজের বাড়িতে নিয়ে গিয়ে রেখে দেয়। কিন্তু বেশ কয়েকদিন কেটে যাওয়ার পরেও দিলবার ওই কিশোরকে তাঁর বাড়িতে পৌঁছায়নি বলে অভিযোগ।

ইতিমধ্যে ওই কিশোরের বাবা নন্দকুমার থানায় ছেলের নিখোঁজ বিষয়ে অভিযোগ জানান। গত ১৩ অগস্ট দিলবার মানসের বাবাকে ফোন করে ছেলেকে নিয়ে যাওয়ার জন্য তাঁর সঙ্গে নিমতৌড়ি এলাকায় গিয়ে দেখা করতে বলে। ওই কিশোরের বাবা পুলিশকে এ বিষয়ে জানায়। নন্দকুমার থানার এক পুলিশ ওই কিশোরের বাবার সঙ্গে সাধারণ পোশাকে নিমতৌড়িতে আসে। সেখানে ওই কিশোরের বাবাকে দিলবার ও তাঁর সঙ্গীরা ওই কিশোর কলকাতায় আছে বলে জানায় । তাঁকে ফেরত পাওয়ার জন্য টাকা পয়সা লাগবে জানায়। এই সময় নন্দকুমার থানার একটি পুলিশ বাহিনী সাধারণ পোশাকে সেখানে হানা দিয়ে দিলবার ও তাঁর দুই সঙ্গীকে গ্রেফতার করে। পুলিশ জানিয়েছে , দিলবার ও তাঁর সঙ্গীরা ওই কিশোরকে বাড়ি ফেরানোর লোভ নিমতৌড়ি থেকে অপহরণ করে আটকে রেখে তাঁর বাবার কাছ থেকে টাকা আদায়ের পরিকল্পনা করেছিল।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.