Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৮ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

‘পরিবর্তন যাত্রা’র পাল্টা তৃণমূলের ‘উন্নয়ন যাত্রা’

নিজস্ব সংবাদদাতা
খেজুরি ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ০৬:০৫
টোটোয়  ব্যানারে রাজ্য সরকারের নানা প্রকল্প তুলে ধরে তৃণমূলের ‘উন্নয়ন যাত্রা’র প্রচার। বুধবার খেজুরির জনকায়। নিজস্ব চিত্র ।

টোটোয় ব্যানারে রাজ্য সরকারের নানা প্রকল্প তুলে ধরে তৃণমূলের ‘উন্নয়ন যাত্রা’র প্রচার। বুধবার খেজুরির জনকায়। নিজস্ব চিত্র ।

‘জন্মালে শিশুসাথী আর মারা গেলে সমব্যথী’।

বিজেপির ‘পরিবর্তন যাত্রা’ কর্মসূচির পাল্টা এমনই স্লোগান রেখে প্রচারে নেমেছে রাজ্যের শাসক দলের ‘উন্নয়ন যাত্রা’।

ফেব্রুয়ারির দ্বিতীয় সপ্তাহে বিধানসভা ভোটের ঘোষণা হতে পারে। তার আগে ভোটারদের মন ‘ছুঁতে’ গেরুয়া শিবিরের পাল্টা প্রচার শুরু করল খেজুরিতে রাজ্যের শাসক দল। নন্দীগ্রামের জমি আন্দোলন পর্ব থেকে বারবার সংবাদের শিরোনামে এসেছে খেজুরি। সেখানেই ‘দুর্গ’ ধরে রাখতে এবার বিজেপির পরিবর্তন যাত্রার আগেই ‘উন্নয়ন যাত্রা’ শুরু করল তৃণমূল। গত ৮ ফেব্রুয়ারি খেজুরি-২ ব্লকের জনকা থেকে এই কর্মসূচির সূচনা হয়। ইতিমধ্যেই ‘উন্নয়ন যাত্রা’ বারাতলা, জনকা, নীচকসবা, খেজুরি গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকা ঘুরেছে বলে ব্লক তৃণমূল নেতৃত্বের দাবি।

Advertisement

স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের দাবি, একটি টোটোয় মাইক বেঁধে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তব্য এবং গত ১০ বছরে রাজ্য সরকারের যে ৫০টিরও বেশি প্রকল্প রয়েছে, সেই সব প্রকল্পে অন্তর্ভুক্ত হতে গেলে কী কী করতে হবে, এবং কে কোন প্রকল্পের সুবিধা পেতে পারেন সে ব্যাপারে বিস্তারিত তথ্য সংবলিত একটি অডিও বাজানো হচ্ছে। টোটোর পিছনে রাজ্য সরকারের উন্নয়নমুখী সব প্রকল্পের সুসজ্জিত ব্যানার লাগানো হয়েছে। এ ধরনের প্রচার কর্মসূচির মূল উদ্যোক্তা অধ্যাপক তথা খেজুরি-২ ব্লক তৃণমূলের সহ-সভাপতি রামকৃষ্ণ দাস বলেন, ‘‘অত্যন্ত পিছিয়ে পড়া এলাকার লোকেদের নানা ভাবে বিজেপি ভুল তথ্য বোঝাচ্ছে। তাই সাধারণ ভোটাররা যাতে বিভ্রান্ত না হন এবং রাজ্য সরকারের সমস্ত কর্মসূচির সুফল পেতে পারেন সে জন্যই এ ধরনের তথ্য সহ প্রচার চালানো হচ্ছে। খেজুরি বিধানসভা এলাকায় এই প্রচার চালানো হবে।’’

প্রসঙ্গত, নন্দীগ্রামের জমি আন্দোলন উত্তরপর্বে ২০০৮ সালে প্রথম খেজুরিতে খাতা খুলেছিল ঘাসফুল। ২০১১ সালে বিধানসভা ভোটে সিপিএমকে হারিয়ে খেজুরির বিধায়ক হন রণজিৎ মণ্ডল। ২০১৬ সালে ফের তিনি বাম প্রার্থীকে ৪০ হাজার ভোটের ব্যবধানে হারিয়ে জয়ী হন। গত কয়েক বছরে খেজুরিতে বিজেপির শক্তি অনেকটাই বেড়েছে। তার প্রমাণ, ২০১৯ সালের লোকসভা ভোটে বর্তমান সাংসদ শিশির অধিকারী এই বিধানসভা কেন্দ্র থেকে মাত্র হাজার পাঁচেক ভোটে এগিয়ে ছিলেন। তাই বিধানসভা ভোটের দিন ঘোষণার আগে খেজুরিতে নিজেদের মাটি আরও শক্ত করতে মরিয়া তৃণমূল।

আগামী ১৭ফেব্রুয়ারি খেজুরিতে বিজেপির পরিবর্তন যাত্রা রয়েছে বলে দলীয় সূত্রে খবর। তার আগে শাসক দলের ‘উন্নয়ন যাত্রা’ সাধারণ মানুষের উপর কোনও প্রভাব ফেলতে পারে কি না সেটা বিধানসভা ভোটের ফলেই স্পষ্ট হবে। তবে তৃণমূলের এই কর্মসূচিকে কটাক্ষ করে বিজেপির কাঁথি সাংগঠনিক জেলার সাধারণ সম্পাদক তাপস দলুই বলেন, ‘‘তৃণমূল কী উন্নয়ন করেছে সেটা সাধারণ মানুষ ভাল করেই জানে। তাই মানুষকে বোকা বানাতে তৃণমূল এটা শেষের যাত্রা করছে। বরং কয়েক দিন বাদে দলীয় সূচি অনুযায়ী পরিবর্তন যাত্রাতেই খেজুরির মানুষ অধিক সংখ্যায় যোগ দেবেন।’’

আরও পড়ুন

Advertisement