×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

হারের ভয়েই অন্যত্র প্রার্থী হওয়ার কথা ভাবছেন, নন্দীগ্রাম নিয়ে মমতাকে খোঁচা মুকুলের

নিজস্ব সংবাদদাতা
ঠাকুরনগর ১৮ জানুয়ারি ২০২১ ১৭:১৫
—ফাইল চিত্র।

—ফাইল চিত্র।

হারের ভয় থেকেই অন্যত্র প্রার্থী হতে চাইছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দাবি বিজেপি-র সর্বভারতীয় সহ সভাপতি মুকুল রায়ের। নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে সোমবার নন্দীগ্রাম থেকে প্রার্থী হওয়ার সম্ভাবনা উস্কে দিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী। সেই প্রেক্ষিতেই এমন মন্তব্য মুকুলের। তাঁর দাবি, নন্দীগ্রামের মানুষ মমতার পাশে নেই।

ভোটের আগে দফআয় দফায় রাজ্য সফরে আসছেন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। ৩০ জানুয়ারি ঠাকুরনগরে সভা করার কথা অমিত শাহের। তার আগে এ দিন ঠাকুরবাড়িতে গিয়ে প্রস্তুতি সেরে আসেন মুকুল। সেখানেই এমন মন্তব্য করেন তিনি। একসময় কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে মমতার সঙ্গে জমি আন্দোলনে অংশ নেওয়া মুকুল বলেন, ‘‘পৃথিবীর যে কোনও প্রান্তে নিকর্বাচনে দাঁড়াতে পারেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এক জায়গায় দাঁড়ালে হেরে যেতে পারেন। সেই ভয় থেকে এখন অন্য জায়গা খুঁজছেন। তবে শেষ পর্যন্ত নন্দীগ্রামে দাঁড়াবেন না উনি। কারণ নন্দীগ্রামের মানুষ যে আর তাঁর পাশে নেই, তা বুঝে গিয়েছেন।’’

ভোট যত এগিয়ে আসছে, রাজ্যে তৃণমূল-বিজেপি সঙ্ঘাত ততই চরমে উঠছে। শুভেন্দু অধিকারী-সহ তৃণমূলের একাধিক হেভিওয়েট নেতাকে বিজেপি ইতিমধ্যেই ভাঙিয়ে নিয়ে গিয়েছে। তবে বিজেপি থেকেও ৭ জন সাংসদ তাঁদের শিবিরে আসতে মুখিয়ে রয়েছেন বলে সম্প্রতি ঘোষণা করেন খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। তা নিয়ে প্রশ্ন করলে মুকুল বলেন, ‘‘পাগলের প্রলাপ। দল ধরে রাখতে উল্টোপাল্টা কথা বলে কর্মীদের বিভ্রান্ত করছেন।’’

Advertisement

নন্দীগ্রাম থেকে সিঙ্গুর, সব আন্দোলনে যুক্ত থাকলেও, তাঁকে ব্রাত্য রেখে মমতা পুরো কৃতিত্ব নিয়েছেন বলেও অভিযোগ করেন মুকুল।

Advertisement