Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ নভেম্বর ২০২১ ই-পেপার

বিষে মৃত ছাত্রী

নিজস্ব সংবাদদাতা
চাকদহ ২৩ অগস্ট ২০১৯ ০০:৩৪
নিজের বাড়িতে ঘাস মারার ওষুধ খায় ওই ছাত্রী। প্রতীকী ছবি

নিজের বাড়িতে ঘাস মারার ওষুধ খায় ওই ছাত্রী। প্রতীকী ছবি

এক স্কুল ছাত্রীর অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, মেয়েটির নাম দিপিকা রায় (১৬)। ওই ছাত্রীর বাড়ি চাকদহ শহরের চার নম্বর ঘুঘিয়ায়। বৃহস্পতিবার সকালে কল্যাণী জওহরলাল নেহরু মেমোরিয়াল হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। ওই হাসপাতালে দেহের ময়না-তদন্ত হয়। বিষ জাতীয় কিছু খেয়ে ছাত্রীটি আত্মঘাতী হয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে প্রাথমিক তদন্তে জানা গিয়েছে। অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করে ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, চাকদহ শহরের ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের ৫২ নম্বর রেল গেটের কাছে ৪ নম্বর ঘুঘিয়ায় মেয়েটির বাড়ি। বুধবার সে বাড়িতে ঘাস মারার ওষুধ খায়। সে নিজেই দোকান থেকে সেই ওষুধ কিনে নিয়ে এসেছিল। পরিবারের লোকেরা জানতে পারে মেয়েটি বিষ খেয়েছে। তড়িঘড়ি তাকে প্রথমে চাকদহ স্টেট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে সেখান থেকে তাকে কল্যাণীর ওই হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। সেখানে এদিন মেয়েটির মৃত্যু হয়েছে। দিপিকার কাকা পলাশ রায় বলেন, ‘‘ওই দিন সকালে বান্ধবীর সঙ্গে বেরিয়েছিল। তাতে বৌদির রাগ হয়। দিপিকার সামনে তার বান্ধবীকে বকাবকি করেছিল বৌদি। বিষয়টি ওর সম্মানে লেগে যায়। সেই কারণেই বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে শুনছি।”

চাকদহের বিডিও পুষ্পেন চট্টোপাধ্যায় বলেন, “নির্দিষ্ট করে কোনও অভিযোগ পাওয়া গেলে অবশ্যই তদন্ত করে দেখা হবে।” যদিও এ প্রসঙ্গে জেলা কৃষি আধিকারিক রঞ্জন রায় চৌধুরী বলছেন, ‘‘ঘাস মারার তেল বিক্রি বৈধ। তবে, যিনি বিক্রি করছেন তাঁর লাইসেন্স আছে কিনা, সেটা
দেখতে হবে।”

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement