Advertisement
৩১ জানুয়ারি ২০২৩
CPIM

বহরমপুরে বামেদের সভা, ঘাসফুল, পদ্মের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা নয়

তৃণমূল ও বিজেপি-কে আটকানোই তাঁর দলের একমাত্র এজেন্ডা, সেক্ষেত্রে কংগ্রেসের মত ‘ধর্ম নিরপেক্ষ’ দলের সঙ্গে জোট করতেও পিছপা হবে না দল। যা দলের ঘোষিত নীতি।

পতাকা নিয়েই শীতের জামা কেনার দোকানে। নিজস্ব চিত্র

পতাকা নিয়েই শীতের জামা কেনার দোকানে। নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব সংবাদদাতা
বহরমপুর শেষ আপডেট: ০৬ ডিসেম্বর ২০২২ ০৮:১১
Share: Save:

পঞ্চায়েত নির্বাচনে গ্রাম বাংলায় সিপিএমের কর্মীরা যাতে তৃণমূল কিংবা বিজেপি’র সঙ্গে ‘সমঝোতা’ না করে তার জন্য সতর্ক থাকতে হবে। এমন ‘অঘটন’ যেন জেলার কোথাও না ঘটে তার জন্য প্রকাশ্য মঞ্চ থেকে জেলার সিপিএম কর্মীদের একপ্রকার হুঁশিয়ারি দিয়ে গেলেন রাজ্যের প্রাক্তন পঞ্চায়েত মন্ত্রী তথা সিপিএম নেতা সূর্যকান্ত মিশ্র।

Advertisement

তৃণমূল ও বিজেপি-কে আটকানোই তাঁর দলের একমাত্র এজেন্ডা, সেক্ষেত্রে কংগ্রেসের মত ‘ধর্ম নিরপেক্ষ’ দলের সঙ্গে জোট করতেও পিছপা হবে না দল। যা দলের ঘোষিত নীতি। কিন্তু বাম নেতাদের পর্যবেক্ষণ, এখনও মানুষ তাঁদের দলের উপরে ভরসা পাচ্ছেন না। সেই ভরসা জোগাতে ব্যর্থও হচ্ছেন বাম নেতা কর্মীরা। আর সেই সুযোগে কোথাও কোথাও তৃণমূলকে দিয়ে বিজেপি-কে আটকানোর পরিকল্পনা হচ্ছে, কোথাও আবার বিজেপিকে ঠেকাতে তাঁরা ভরসা খুঁজছেন তৃণমূলে। যার সঙ্গে পরোক্ষে বাম নেতা কর্মীদের জড়িয়ে থাকার সম্ভাবনাও উড়িয়ে দিচ্ছেন না সিপিএমের এই শীর্ষ নেতা।

সূর্যকান্ত এদিন বলেন, “মোদী সরকার দেশের সামনে সব থেকে বড় বিপদ ডেকে আনছে। আমাদের দেশের ঐক্যের প্রশ্নে, গণতন্ত্রের প্রশ্নে, সার্বভৌমত্বের প্রশ্নে এত বড় বিপদ কখনও ঘটেনি। কিন্তু সেই বিজেপিকে আটকাতে আমাদের পরিচিত কোনও লোক যদি আবার তৃণমূলকে ডেকে আনার কথা বলে তা হলে আমাদের নেতৃত্বকে জানাবেন, আমাদের দলে সেই রকম একটি লোকেরও জায়গা হবে না। এটা বুঝতে হবে। আমাদের নীতির লড়াই বুঝতে হবে। এখানে একে দিয়ে ওকে দিয়ে সুবিধাবাদের কাজ হবে না।”

তবে বিজেপি জেলা সভাপতি শাখারভ সরকার পাল্টা বলেন, “সিপিএমের কোনও ভোট নেই জেলায়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে আলিমুদ্দিনের ফিস ফ্রাই চুক্তির জেরে সিপিএম এখানে অক্সিজেন পাচ্ছে। যারা তৃণমূলে যায় তারাই এদিন সিপিএমের মিছিলে ছিলেন।” জেলা তৃণমূলের সভাপতি শাওনি সিংহরায় বলেন, “তৃণমূল তৃণমূলকে সামনে রেখেই পঞ্চায়েত নির্বাচন করবে। কারও সঙ্গ আমাদের লাগে না। কিন্তু রাম আর বাম যে এক তা একাধিক সংস্থার নির্বাচনের ফলাফলে প্রকাশ্যে এসেছে।”

Advertisement

সোমবার ‘জেলা পরিষদ অভিযান’-এর ডাক দিয়েছিল জেলা সিপিএম। তবে অভিযানের পরিবর্তে পঞ্চাননতলায় জেলা পরিষদের সামনে জনসভা করেই এ দিন শান্ত থাকেন তাঁরা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.