Advertisement
২৭ নভেম্বর ২০২২
Nadia

মাকে কথা দিয়েও পুজোর ছুটিতে বাড়ি আসা হয়নি, ঝাঁসিতে বিস্ফোরণে মৃত্যু নদিয়ার সেনা জওয়ানের

স্থানীয় সূত্রে খবর, ২০২০ সালে সুকান্ত সেনাবাহিনীতে যোগ দেন। বর্তমানে বিশেষ অস্ত্র প্রশিক্ষণ নিচ্ছিলেন তিনি। সেই প্রশিক্ষণ চলাকালীন ঝাঁসি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে বিস্ফোরণ হয়।

ছেলের ছবি হাতে কান্না মায়ের।

ছেলের ছবি হাতে কান্না মায়ের। —নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
পলাশিপাড়া  শেষ আপডেট: ০৭ অক্টোবর ২০২২ ১৩:২৯
Share: Save:

উত্তরপ্রদেশের ঝাঁসিতে সেনাবাহিনীর প্রশিক্ষণ চলাকালীন বিস্ফোরণে মৃত্যু বাঙালি জওয়ানের। বৃহস্পতিবার রাতে মৃত্যু হয় মোট দুই সেনার। তাঁদের মধ্যে এক জনের বাড়ি নদিয়ার পলাশীপাড়া থানার হাঁসপুকুরিয়ার রিফুউজি পাড়ায়। মৃতের নাম সুকান্ত মণ্ডল (২২)। রাতে যুবকের মৃত্যুর খবর পেয়ে শোকস্তব্ধ পরিবার। গোটা এলাকায় শোকের আবহ তৈরি হয়েছে।

Advertisement

স্থানীয় সূত্রে খবর, ২০২০ সালে সুকান্ত সেনাবাহিনীতে যোগ দেন। এখন বিশেষ অস্ত্র প্রশিক্ষণ নিচ্ছিলেন তিনি। সেই প্রশিক্ষণ চলাকালীন ঝাঁসি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে বিস্ফোরণ হয়। তাতে সুকান্ত‌ের সঙ্গে বিস্ফোরণে প্রাণ হারান রাজস্থানের এক সেনা জওয়ান। সুকান্তের দাদা উৎপল বলেন, ‘‘ওর বেসিক ট্রেনিং আগেই শেষ হয়ে গিয়েছিল। একটি বিশেষ অস্ত্র প্রশিক্ষণ চলাকালীন নাকি বিস্ফোরণে ওর মৃত্যু হয়েছে বলে খবর পাঠানো হয়েছে আমাদের। কী ভাবে বিস্ফোরণ হল, সে সব বিস্তারিত কিছু জানতে পারিনি।’’ ছোট ছেলেকে হারিয়ে শোকে পাথর মা রিঙ্কু। কান্না ভেজা গলায় জানালেন, ‘‘রোজই ওর সঙ্গে কথা হত।

কাল মনটা খুব আনচান করছিল ওর জন্য। পুজোতে আসবে বলেছিল। কিন্তু পরে বলল ছুটি পায়নি। তাই বলে যে কোনও দিনই আর আসবে না ভাবতেও পারিনি।’’ মৃত সুকান্তকে শেষ বারের মতো দেখতে স্থানীয় মানুষজন ভিড় জমাচ্ছেন সুকান্তের বাড়িতে। শুক্রবার বিকেল নাগাদ দেহ এসে পৌঁছনোর সম্ভাবনা রয়েছে। প্রতীক্ষায় নদীয়ার পলাশীপাড়া।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.