×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৯ মে ২০২১ ই-পেপার

সংক্রমণের চিন্তা নিয়েই অপেক্ষায়

সৌমিত্র কুণ্ডু
শিলিগুড়ি ২৮ অক্টোবর ২০২০ ০৪:৪৪
আবার এসো মা: চলছে প্রতিমা নিরঞ্জন। বালুরঘাটের আত্রেয়ী নদীর কল্যাণী ঘাটে শিকেয় উঠেছে দূরত্ব বিধি, মঙ্গলবার। ছবি: অমিত মোহান্ত

আবার এসো মা: চলছে প্রতিমা নিরঞ্জন। বালুরঘাটের আত্রেয়ী নদীর কল্যাণী ঘাটে শিকেয় উঠেছে দূরত্ব বিধি, মঙ্গলবার। ছবি: অমিত মোহান্ত

নবমী এবং দশমীর রাতে উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় রাস্তায় পুজো দেখার ভিড় এবং দশমীতে বিসর্জনের জমায়েত স্বাস্থ্য দফতরের উদ্বেগ বাড়িয়েছে। মঙ্গলবার উত্তরবঙ্গে করোনা নিয়ন্ত্রণের দ্বায়িত্বে থাকা আধিকারিকের দফতর থেকে আগামী ৭ থেকে ১৪ দিন সতর্ক থাকতে এবং সংক্রমণের পরিস্থিতি কতটা বাড়ছে, সে দিকে নজর রাখতে বলা হয়েছে। প্রয়োজন মতো নমুনা পরীক্ষার সংখ্যাও বাড়াতে বলা হয়েছে।

পুজোর কেনাকাটার হিড়িক পড়া থেকেই সংক্রমণের আশঙ্কা বাড়ছিল। শেষে হাইকোর্ট সব মণ্ডপকে কন্টেনমেন্ট জ়োন করে দেওয়ায় ভিড় সামলাতে প্রশাসনও কড়াকড়ি শুরু করে। সাধারণত পঞ্চমী থেকেই ভিড় বাড়তে শুরু করে। কিন্তু এ বারে পুজো প্রথম কয়েক দিন কড়াকড়ি এবং করোনার ভয়ে রাস্তাঘাটে লোকজন কম ছিল। বৃষ্টির জন্যও ওই কয়েক দিন ভিড় বাড়তে পারেনি। কিন্তু নবমী আর দশমীতে বেশ কিছু জায়গায় ছবিটা উল্টে যায়। এমনকি বিসর্জন দেখতেও ঘাটে ভিড় হয় কয়েকটি ক্ষেত্রে। তাতেই দুশ্চিন্তায় পড়েছে স্বাস্থ্য দফতর।

পুজো মিটতেই মঙ্গলবার নিজের দফতরে বৈঠক করেন উত্তরবঙ্গে করোনা নিয়ন্ত্রণের দায়িত্বে থাকা আধিকারিক সুশান্ত রায়। তিনি বলেন, ‘‘পরিস্থিতি খুবই উদ্বেগের বলে মনে হচ্ছে। কেন না নবমী, দশমী, বিসর্জনে অনেক জায়গায় ভিড় হয়েছে। সেটাই এখন চিন্তার কারণ হয়ে উঠেছে। তাই উত্তরবঙ্গের সমস্ত জেলায় জেলাশাসক এবং মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকদের আগামী ৭-১৪ দিন সতর্ক থাকতে বলেছি।’’ স্বাস্থ্য দফতর বলছে, এই ভিড়ের ফলে করোনা সংক্রমণ বাড়বে কিনা, তা বুঝতে ৭-১০ দিন লাগবে। সংক্রমণ কতটা বাড়ছে দেখে প্রয়োজন মতো ব্যবস্থা নেওয়ার দিকে নজর দিতে হবে।

Advertisement

স্বাস্থ্য দফতরের একটি সূত্রে জানা গিয়েছে, তাদের পর্যবেক্ষণ কোচবিহার, আলিপুরদুয়ার, উত্তর দিনাজপুর, মালদহের মতো জেলায় পুজোর সময় সংক্রমণের রিপোর্ট অনেকটা আগের মতোই ছিল। যদিও পুজোয় নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা কিছু কমেছে। তবে পরিস্থিতি বুঝে নিতে আলিপুরদুয়ার, মালদহের মতো জেলাগুলোতে আগামী এক সপ্তাহ নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা বাড়ানোর কথা জানিয়েছে স্বাস্থ্য দফতর। রায়গঞ্জের মতো শহরে বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে ভিড় দেখে নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা বৃদ্ধি করছে তারা। দার্জিলিং জেলায় পুজোর দিনগুলিতে গড়ে শতাধিক সংক্রমণ মিলেছে। দার্জিলিং জেলা স্বাস্থ্য দফতরও বিষয়টি নিয়ে সতর্ক রয়েছে। দিন সাতেকের মধ্যে সংক্রমণ বৃদ্ধি পাবে বলেই তারা মনে করছে। তবে কী হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে, সেটাই বুঝতে চাইছেন তাঁরা। মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক প্রলয় আচার্য বলেন, ‘‘কী হারে সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছে, আমরা সে দিকে নজর রাখছি। সেটা বুঝতে ৭-১০ দিন সময় লাগবে।’’

Advertisement