Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

Murder case: খুন করে স্বামীর দেহ সিঁড়ির তলায় লুকিয়ে রাখলেন স্ত্রী, সঙ্গী ‘প্রেমিক’ দেওর

মৃতের দেহ দেখে পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, পিটিয়ে হাত-পা ভেঙে ভারী কিছু দিয়ে মাথায় আঘাত করা হয়েছে। দুই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

নিজস্ব সংবাদদাতা
হরিশ্চন্দ্রপুর ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১০:৩৯
দেহ উদ্ধার করতে ঘটনাস্থলে পুলিশ।

দেহ উদ্ধার করতে ঘটনাস্থলে পুলিশ।
নিজস্ব চিত্র।

হাত-পা ভেঙে স্বামীকে থেঁতলে খুন করার অভিযোগ উঠল এক মহিলার বিরুদ্ধে। মৃতের পিসতুতো দাদার সহযোগিতায় তিনি খুন করেছেন বলে অভিযোগ। মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুরের ডেইলি মার্কেট এলাকায় ঘটেছে এই ঘটনা। মৃতের নাম রাম মুসোহর (৩৭)। মৃতের বাড়ির সিঁড়ির নীচ থেকে মঙ্গলবার রাতে দেহ উদ্ধার হয়েছে।

হরিশ্চন্দ্রপুরে থাকতেন রাম, তাঁর স্ত্রী পঞ্চমী মুসোহার এবং তাঁদের ১৬ বছরের ছেলে বাপি। প্রতিবেশীদের দাবি, মদ খাওয়া নিয়ে রামের সঙ্গে প্রায়শই অশান্তি হত পঞ্চমীর। লকডাউনে সেখানে আসে রামের পিসতুতো দাদা মনোজ মুসোহার। ভিন্‌ রাজ্যের কাজ ছেড়ে রামের সঙ্গে রঙের কাজ শুরু করেন তিনি। ভালই চলতে থাকে তাঁদের কাজ। ইতিমধ্যে পঞ্চমীর সঙ্গে মনোজের বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল বলে অভিযোগ। প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন, রামের মদ খাওয়া আগের থেকে বেড়ে গিয়েছিল। সঙ্গে বেড়েছিল পরিবারের অশান্তি।

Advertisement

মৃতের ছেলে বাপির দাবি, বাড়ি বিক্রি করে অন্যত্র চলে যাওয়ার কথা তাকে জানিয়েছিল পঞ্চমী। কিন্তু তা নিয়ে আপত্তি ছিল রামের। যার জেরে মনোজ এবং পঞ্চমীর সঙ্গে বিবাদ চরমে উঠেছিল। মঙ্গলবার বাপিকে গাড়ি ডেকে আনার কথা বলে পঞ্চমী। গাড়ি ডাকতে গেলেও কোথাও যাবে সে জানায়নি। পুলিশের দাবি, সম্ভবত বাপিও জানত না কেন গাড়ি ডাকা হচ্ছে। কথা শুনে সন্দেহ হওয়ায় প্রতিবেশী এবং গাড়িচালক রামের বাড়িতে এসে তাঁর খোঁজ করেন। তখনই সিড়ির নীচে রামের রক্তাক্ত দেহ দেখতে পান তাঁরা। এর পর পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। পুলিশ এসে দেহ উদ্ধার করে।

দেহ দেখে পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, পিটিয়ে হাত-পা ভেঙে ভারী কিছু দিয়ে মাথায় আঘাত করা হয়েছে। থেঁতলে দেওয়া হয় মাথা। বাড়ি থেকে শাবল, গাঁইতি, দা উদ্ধার হয়েছে। রামের দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্ত মনোজ এবং পঞ্চমীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বাপিকেও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।

আরও পড়ুন

Advertisement