Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৬ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

Natural disaster: সেতু দুর্বল, রাস্তাও ভাঙা, চিন্তায় সেনা

কৌশিক চৌধুরী
শিলিগুড়ি ২৩ অক্টোবর ২০২১ ০৬:৫৬
বিপজ্জনক: বালাসন সেতুর উপরে ঝুঁকির পারাপার। শুক্রবার।

বিপজ্জনক: বালাসন সেতুর উপরে ঝুঁকির পারাপার। শুক্রবার।
নিজস্ব চিত্র।

নদীতে স্তম্ভ বসে যাওয়ায় বালাসন সেতুতে যান চলাচল আপাতত বন্ধ। তিস্তার প্রবল জলোচ্ছ্বাস এবং গার্ডারের ক্ষতির জেরে সেবকের করোনেশন সেতুতে দশ টনের বেশি গাড়ি তোলা নিষেধ। আবার বাংলা-সিকিম সীমানার রংপো সেতুও এই মুহূর্তে নড়বড়ে। অন্য দিকে, নির্মিয়মাণ ইস্ট-ওয়েস্ট করিডরের রাস্তায় ফুলবাড়ি ব্যারাজ দিয়েও ভারী গাড়ি চলাচলে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। উত্তরবঙ্গের ‘চিকেন্স নেকের’ কেন্দ্রবিন্দু শিলিগুড়িকে ঘিরে এই পরিস্থিতিতে উদ্বিগ্ন ভারতীয় সেনাবাহিনী।

প্রশাসনিক সূত্রের খবর, গত কয়েক দিনে এই অঞ্চলের বালাসন-সহ বিভিন্ন এলাকা সম্পর্কে দিল্লিতে রিপোর্ট দিয়েছে সেনা। সিকিম, দার্জিলিং, সুকনা এবং বেংডুবি এলাকার সড়ক পরিকাঠামো জোরদার করতে সওয়াল করা হয়েছে বাহিনীর তরফে। শুক্রবারও দার্জিলিং এবং কালিম্পং পাহাড়ের দু’টি জাতীয় সড়ক বন্ধ। ঘুরপথে চলছে গাড়ি। এতে সেনাবাহিনীর গতিবি‌ধিও বাধাপ্রাপ্ত হয়েছে। ঘুরপথে সমতলে সেনাবাহিনীর গাড়ি চললেও জাতীয় সড় বন্ধ থাকায় সমস্যা বেড়েছে।

বাহিনীর অফিসারেরা বলেছেন, ‘‘সিকিমের নাথু লা, নাকু লা-সহ বিভিন্ন এলাকায় সেনাবাহিনীকে সব সময় সক্রিয় রাখা হয়েছে। কিন্তু প্রাকৃতিক দুর্যোগ এবং তার সঙ্গে সেতুগুলির পরিস্থিতি যা দাঁড়িয়েছে, তাতে উদ্বেগ বাড়ছে।’’ তাঁরা জানান, বাংলার সেবক থেকে সিকিমের রংপো রেল প্রকল্প কবে শেষ হবে, তা এখনও ঠিক নেই। রংপোতেও সেতু দুর্বল হয়ে গিয়েছে। ডুয়ার্স থেকে করোনেশন সেতু দিয়ে ভারী গাড়ি চালানো মুশকিল। শিলিগুড়িকে ঘিরে এই পরিস্থিতির কথা দিল্লিতেও জানানো হয়েছে। দ্রুত পরিকাঠামো ঠিক করার কথাও বলা হয়েছে।

Advertisement

শুক্রবারই সেনাবাহিনী উত্তরের দায়িত্বে থাকা সুকনার ত্রিশক্তি কোরের কম্যান্ডার হিসাবে দায়িত্ব নিয়েছেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল তরুণ কুমার আইচ। বাহিনী সূত্রের খবর, সিয়াচিন হিমাবহ থেকে মরুভূমি, স্ট্রাইকিং ফোর্স, সেনার অত্যাধিক উচ্চতায় যুদ্ধকৌশল স্কুলের কম্যাডান্ট ছাড়াও কাশ্মীরের বি‌ভিন্ন উপদ্রুত এলাকায় নানা গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে ছিলেন তিনি। তিনি এনসিসি-র ডিরেক্টর জেনারেলও ছিলেন। দায়িত্ব নেওয়ার পর এলাকার পরিস্থিতির কথাও তাঁকে জানানো হয়েছে। বিশেষ করে চিন সীমান্তে সেনা গতিবিধিতে যাতে বিঘ্ন না ঘটে, তা দেখতে বলা হয়েছে।

দার্জিলিঙের সাংসদ রাজু বিস্তাও সেতুগুলির পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। এ দিনই তিনি কেন্দ্রীয় সড়ক পরিবহণ মন্ত্রী নিতিন গডকড়ীকে বালাসন, করোনেশন সেতুর কথা জানিয়েছেন। সাংসদ বলেন, ‘‘সিকিম, কালিম্পং, দার্জিলিং জুড়ে সেনাবাহিনী রয়েছে। চিনের সঙ্গে সীমান্ত রয়েছে। সাধারণ মানুষেরও সমস্যা হচ্ছে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ করেছি।’’

আরও পড়ুন

Advertisement