Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

murder: তন্ত্রের নামেই কি বলি ছাত্রকে? তদন্তে পুলিশ

নিজস্ব সংবাদদাতা 
আলিপুরদুয়ার ২৭ নভেম্বর ২০২১ ০৭:৫৬
নিহত মনোজ বর্মণ

নিহত মনোজ বর্মণ

তন্ত্র সাধানার জন্যই কি খুন হতে হল মেজবিলের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রকে? ওই খুনের ঘটনায় মূল অভিযুক্ত ধরা পড়ার পরে, তাকে জেরা করে এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য জানতে পেরেছে পুলিশ। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, টানা জেরার পর শুক্রবার সন্ধ্যায় বাবলু বাগচী নামে ‘বামা ক্ষ্যাপা’র ওই ভক্তকে গ্রেফতারও করা হয়েছে। আজ, শনিবার আদালতে পেশ করার পর তাকে নিজেদের হেফাজতে নেবে পুলিশ।

আলিপুরদুয়ার- ১ব্লকের মেজবিলের কাছে বুড়ি তোর্সা নদীর ধার থেকে বুধবার মনোজ বর্মণ (১২) নামে ষষ্ঠ শ্রেণির ওই ছাত্রের দেহ উদ্ধার হয়। তার গলার বেশ খানিকটা অংশ কাটা ছিল বলে পুলিশ সূত্রের খবর। পরিবারের লোকেদের সঙ্গে কথা বলে পুলিশ জানতে পারে, মঙ্গলবার দুপুরের পরে প্রতিবেশী এক বন্ধুর সঙ্গে মেজবিল রাসমেলায় যায় মনোজ। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মনোজের সেই বন্ধুটি ছিল বাবলুরই ছেলে। তবে মেলা থেকে বুড়ি তোর্সা নদীর ধারে মনোজকে কিভাবে বাবলু নিয়ে গেল, তা এখনও স্পষ্ট হয়নি।

পুলিশ জানিয়েছে, ওই খুনের ঘটনার পর থেকেই নিজেকে একটু একটু করে আড়ালে রাখতে শুরু করেছিল বাবলু। তখন থেকেই পুলিশের মনে বাবলুকে নিয়ে সন্দেহ দানা বাধে। এরই মধ্যে পলাশবাড়ি এলাকায় দু’জন সিভিক ভলান্টিয়ারকে দেখে পালাতে শুরু করেছিল সে। তার পরে বাবুলকে নিয়ে তদন্তকারীদের মনে সন্দেহ আরও গাঢ় হয়। এর পর রীতিমতো ফাঁদ পেতে এ দিন তাকে আটক করে পুলিশ। তারপর শুরু হয় টানা জেরা। পুলিশ জানিয়েছে, জেরায় মনোজকে খুন করার কথা বাবলু স্বীকারও করে নিয়েছে।

Advertisement

পুলিশ জানিয়েছে, বছর চারেক আগে আগুনে পুড়ে বাবলুর স্ত্রীয়ের মৃত্যু হয়। জানা গিয়েছে, তার পর থেকেই বাবলু তন্ত্র সাধনা শুরু করে। জেরায় পুলিশকে বাবলু জানিয়েছে, স্ত্রীর মতোই পরিবারের বাকিরাও শেষ হয়ে যাবে বলে তার মনে ধারণা তৈরি হয়েছিল। সে জন্য মঙ্গলবার তন্ত্র সাধনার দিন বেছে নেয় সে। কিন্তু তন্ত্র সাধনার জন্য একটি বাচ্চা ছেলের রক্তের প্রয়োজন ছিল। সে জন্যই মনোজকে সে খুন করে বলে অভিযোগ। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, যেখানে মনোজের মৃতদেহ মিলেছে, সেখানে ফুল বেল-পাতাও পাওয়া যায়। তবে খুনের কারণ নিয়ে আরও বিশদ তথ্য জানতে শনিবার আদালতে পেশের পর বাবলুকে হেফাজতে নিতে চায় পুলিশ। আলিপুরদুয়ারের পুলিশ সুপার ভোলানাথ পান্ডে জানান, মেজবিলে খুনের ঘটনায় এক জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। খুনের কারণ সম্পর্কে নিশ্চিত হতে তাকে হেফাজতে নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন

Advertisement