Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৭ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

তদন্তে বেরলো অনিয়মের তথ্য

অবশেষে সাসপেন্ড হলেন সাস্মিতা

শিশু পাচার কাণ্ডে নাম জড়িয়েছিল জলপাইগুড়ির জেলা চাইল্ড প্রোটেকশন অফিসার সাস্মিতা ঘোষের। তাঁকে সাসপেন্ড করল প্রশাসন৷ চাকরি থেকে বহিষ্কার করা

নিজস্ব সংবাদদতা
জলপাইগুড়ি ০৬ মার্চ ২০১৭ ০১:৪৩
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

শিশু পাচার কাণ্ডে নাম জড়িয়েছিল জলপাইগুড়ির জেলা চাইল্ড প্রোটেকশন অফিসার সাস্মিতা ঘোষের। তাঁকে সাসপেন্ড করল প্রশাসন৷ চাকরি থেকে বহিষ্কার করা হতে পারে বলেও প্রশাসন সূত্রের খবর৷

শিশু পাচার কাণ্ডে ১৮ ফেব্রুয়ারি সিআইডির জালে ধরা পড়ে চন্দনা চক্রবর্তী৷ নিয়ম বহির্ভূত ভাবে শিশু দত্তক দেওয়ার অভিযোগে গত জুন মাসেই সাস্মিতার নাম জড়ায়৷ প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই সময় সিডব্লুউসি-র সদস্যদের একাংশ শিশু দত্তক নিয়ে চন্দনার হোমের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ দায়ের করেছিলেন, তাতে সাস্মিতার নামও ছিল৷ তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল, সতেরোটি শিশুকে বেআইনি ভাবে দত্তক দেওয়ার ব্যাপারে চন্দনার হোমকে নো অবজেকশন দেওয়ার জন্য তিনি সিডব্লুউসি-র উপর চাপ সৃষ্টি করেছিলেন৷

চন্দনা গ্রেফতার হওয়ার দু’দিন পরেই তাঁকে শো-কজ করেন জলপাইগুড়ির জেলাশাসক৷ যার জেরে তিন দিনের ভিতরেই ৩৫ পাতার একটি উত্তর দেন তিনি৷

Advertisement

জলপাইগুড়ির জেলাশাসক রচনা ভগত জানিয়েছেন, হোমে থাকা শিশুদের মনিটরিং-এর একটা বড় দায়িত্ব ছিল সাস্মিতার৷ শো-কজ করার সময় তাঁকে এই সব বিষয়ে বেশ কিছু প্রশ্ন করা হয়েছিল৷ যার সন্তোষজনক উত্তর তিনি দিতে পারেননি৷ তাই তাঁকে সাসপেন্ড করা হয়েছে৷ শিশু পাচারকাণ্ডে ইতিমধ্যেই গ্রেফতার করা হয়েছে সাস্মিতা ঘোষের স্বামী তথা দার্জিলিং-এর ডিসিপিও মৃণাল ঘোষকে৷ সাস্মিতা ঘোষকে সিআইডির জেরার মুখে পড়তে হয়েছে৷ প্রশাসন সূত্রের খবর, সাস্মিতাকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করতে ইতিমধ্যেই নারী ও শিশু কল্যাণ দফর থেকে অনুমতি চেয়েছে প্রশাসন৷ সাস্মিতার সঙ্গে ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি৷



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement