Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২২ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

Landslide in Hill: ধসে বিচ্ছিন্ন রাস্তা, পাহাড়ে আটকে হাজার হাজার পর্যটক, বিদ্যুৎ বিভ্রাটে ভোগান্তি চরমে

নিজস্ব সংবাদদাতা
দার্জিলিং ২০ অক্টোবর ২০২১ ১২:৫৫
চলছে উদ্ধারকাজ।

চলছে উদ্ধারকাজ।
নিজস্ব চিত্র।

টানা বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত পাহাড়। মাটি আলগা হয়ে ধস নেমেছে বহু জায়গায়। বন্ধ বেশ কিছু রাস্তা। দার্জিলিং, কালিম্পঙের সঙ্গে সমতলের যোগাযোগ প্রায় বিচ্ছিন্ন। তার ফলে সব থেকে বেশি সমস্যায় পড়েছেন পর্যটকরা। হাজার হাজার পর্যটক আটকে পড়েছেন পাহাড়ে। কোনও ভাবেই সমতলে ফিরতে পারছেন না তাঁরা।

দার্জিলিং, কালিম্পং, লাভা, লোলেগাঁও, কোলাখাম, রিশপে আটকে রয়েছেন পাঁচ থেকে ছ’হাজার পর্যটক। টানা বৃষ্টিতে দার্জিলিং থেকে শিলিগুড়ি যাওয়ার ৫৫ নম্বর জাতীয় সড়কে ধস নেমেছে। তার ফলে গাড়ি চলাচল বন্ধ। বিকল্প রোহিণী রোড ধরে চলছে গাড়ি। ত্রিবেণীর কাছে রাস্তার উপর দিয়ে বইছে তিস্তার জল। চিত্রেতে ধস নেমে রাস্তায় বড় বড় ফাটল দেখা দিয়েছে। লাভা থেকে গরুবাথান যাওয়ার রাস্তা সম্পূর্ণ বন্ধ। শিলিগুড়ির মাটিগাড়ায় ৩১ নম্বর জাতীয় সড়কের উপর বালাসন সেতু ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ফলে সেতুর উপর দিয়ে যান চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

Advertisement
ধসে বন্ধ রাস্তা

ধসে বন্ধ রাস্তা
নিজস্ব চিত্র


বিভিন্ন দিকের রাস্তা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় পাহাড় ছেড়ে বেরতে পারছেন না পর্যটকরা। পাহাড়ের বিস্তীর্ণ এলাকায় গত দু’দিন ধরে বিদ্যুৎ পরিষেবা নেই। ফলে মোবাইলে চার্জ নেই বেশির ভাগ পর্যটকের। তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারছেন না পরিবারের অন্য সদস্যরা।

এক পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছেন, বিভিন্ন দিকের রাস্তা বন্ধ থাকায় বড় গাড়ি চলাচল বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ধসের ফলে রাস্তায় বড় বড় পাথর পড়ে রয়েছে। তার মধ্যে দিয়েই কোনও রকমে গাড়িগুলিকে নিরাপদ স্থানে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। শিলিগুড়ি পুলিশের তরফে টুইট করে বলা হয়েছে, ‘১০ নম্বর জাতীয় সড়কের উপরে ২৯ মাইলের কাছে বড় ধস হয়েছে। রাস্তা পরিষ্কার করতে সময় লাগবে। তাই শিলিগুড়ি থেকে ছোট গাড়িগুলিকে করোনেশন সেতু, তিস্তা ও রংপোর দিকে ঘুরিয়ে দেওয়া হচ্ছে।’

যান চলাচল নিয়ন্ত্রণ করছে পুলিশ

যান চলাচল নিয়ন্ত্রণ করছে পুলিশ
নিজস্ব চিত্র


গরুবাথানের বাসিন্দা রঞ্জিৎ রাই ফোনে বলেন, ‘‘চার দিকের অবস্থা খুব খারাপ। গরুবাথান, কালিম্পঙের সব রাস্তা বন্ধ। ৬ মাইল, ৯ মাইলের কাছে ধস নেমেছে। রাস্তা পরিষ্কার করা হলেও বার বার পাথর পড়ে তা বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। কবে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে বোঝা যাচ্ছে না।’’

দার্জিলিঙের জেলাশাসক এস পুন্নমবলম বলেন, ‘‘বহু জায়গায় বিশেষত গ্রামীণ এলাকায় ছোট ছোট ধস নেমেছে। ৫৫ নম্বর জাতীয় সড়কের উপরে একটি বড় ধস নেমেছে। যদিও বিকল্প রাস্তা খোলা রয়েছে। গুরুত্বপূর্ণ রাস্তাগুলিতে যাতায়াত চলছে।’’ এখন পর্যন্ত বিপর্যয়ে এক জনের মৃত্যুর খবর এসেছে। মঙ্গলবার দুপুরে কালিম্পং থেকে গরুবাথান আসার পথে লাভা রোডের ৩ মাইলে একটি ছোট গাড়ির চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছে ধাক্কা মেরে খাদে পড়ে যান। পুলিশ জানিয়েছে, মৃত গাড়ি চালকের নাম কৈলাস বর্মণ।

আরও পড়ুন

Advertisement