×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৮ মে ২০২১ ই-পেপার

হেফাজতে মৃত্যুতে তদন্ত দাবি সংগঠনের

নিজস্ব সংবাদদাতা 
রামপুরহাট ০৩ নভেম্বর ২০২০ ০২:৩০
মৃতের পরিবারের সঙ্গে বিধায়ক মিল্টন রশিদ। নিজস্ব চিত্র

মৃতের পরিবারের সঙ্গে বিধায়ক মিল্টন রশিদ। নিজস্ব চিত্র

মল্লারপুর থানায় পুলিশ হেফাজতে নাবালক মৃত্যুর ঘটনায় বিচারবিভাগীয় তদন্তের দাবি জানাল গণতান্ত্রিক অধিকার রক্ষা সমিতি (এপিডিআর)। সোমবার দুপুরে সংগঠনের চার জনের প্রতিনিধি দল প্রথমে মল্লারপুর থানায় যান এবং পরে মৃতের পরিবারের সঙ্গে দেখা করেন। এপিডিআরের জেলা সম্পাদক শৈলেন মিশ্র বলেন, ‘‘ওই মৃত্যু নিয়ে মল্লারপুর থানার কর্মী বা আধিকারিকেরা কিছু বলতে চাননি। তাঁরা জানান, ঘটনার ব্যাপারে যা কিছু বলার পুলিশ সুপার বলবেন। এর পরেও মৃতের পরিবারের সঙ্গে কথা বলতেও বাধা দেওয়া হয়।’’ তাঁর দাবি, মৃতের পরিবারের সঙ্গে কথা বলে তাঁরা জেনেছেন, ওই নাবালককে থানার লক-আপে ২৪ ঘণ্টার বেশি সময় আটকে রাখা হয়েছিল। যা আইন বিরোধী। শৈলেনবাবু বলেন, ‘‘ঘটনায় দোষী পুলিশ অফিসারের শাস্তি ও উপযুক্ত ক্ষতিপূরণের দাবি করা হয়েছে। এই ঘটনা নিয়ে এপিডিআর লড়াই চালিয়ে যাবে।’’ পুলিশ সুপারের কাছে তাঁদের দাবির বিষয়টি মেল করে জানানো হবে বলেও তিনি জানান।

এ দিনই মৃতের পরিবারের সঙ্গে দেখা করেন বীরভূম জেলা কংগ্রেসের সভাপতি মিল্টন রশিদ। ঘটনার প্রতিবাদে তাঁর নেতৃত্বে কংগ্রেস কর্মীরা মল্লারপুরে মুখে কাপড় কালো কাপড় বেঁধে মৌনী মিছিল করেন। জেলা পুলিশ সুপার শ্যাম সিংহ জানান, ঘটনার তদন্তে ফরেনসিক বিশেষজ্ঞ দল রবিবার রাতে মল্লারপুর থানায় গিয়েছিল। এখনও পর্যন্ত কোনও রিপোর্ট পাওয়া যায়নি। ঘটনার বিচারবিভাগীয় তদন্ত চলছে।

Advertisement
Advertisement