Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৬ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

এ বার থানা হবে মল্লারপুর

নিজস্ব সংবাদদাতা
ময়ূরেশ্বর ২৪ মার্চ ২০১৭ ০১:৩৭
অপেক্ষায়: থানার। নিজস্ব চিত্র

অপেক্ষায়: থানার। নিজস্ব চিত্র

দীর্ঘ কয়েক যুগের দাবি ছিল। সেই দাবি বাস্তব রূপ পেতে চলার খবরে স্বাভাবিক ভাবেই উচ্ছ্বসিত মল্লারপুরের মানুষ।

বুধবারই রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, বীরভূমের নতুন থানা হতে চলেছে মল্লারপুর। ময়ূরেশ্বর থানাকে ভেঙে মল্লারপুর ফাঁড়িকেই পূর্ণাঙ্গ থানা হিসেবে গড়ে তুলবে রাজ্য সরকার। বৈঠক শেষে রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় এক সাংবাদিক বৈঠকে মল্লারপুরবাসীর জন্য এই সুখবর শোনান। তিনি আরও জানান, নতুন থানার জন্য দশটি নতুন পদ তৈরি করা হয়েছে।

ঘটনা হল, মল্লারপুরে একটি পুলিশ ফাঁড়ি থাকলেও তা ময়ূরেশ্বর থানার অধীন। ওই থানার অধীনেই দু’টি ব্লকের ১৬টি গ্রাম পঞ্চায়েত রয়েছে। রয়েছে বেশ কিছু উত্তেজনাপ্রবণ এলাকাও। মল্লারপুরের উপর দিয়ে গিয়েছে পানাগড়-মোরগ্রাম জাতীয় সড়ক। রয়েছে গণপুরের বিস্তীর্ণ জঙ্গল এলাকাও। স্বভাবতই মাঝেমধ্যেই আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে সমস্যায় পড়তে হয় পুলিশ-প্রশাসনকে। তাই স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবির পাশাপাশি পুলিশ-প্রশাসনেরও থানা গঠনের সুপারিশ ছিল।

Advertisement

সরকারের এই ঘোষণাকে স্বাগত জানাচ্ছেন বিরোধীরাও। সিপিএমের স্থানীয় দায়িত্বপ্রাপ্ত কৃষকসভার জেলা সম্পাদক অরূপ দাস বলছেন, ‘‘বাম আমল থেকেই থানা গঠনের প্রস্তাব ছিল। সেই প্রক্রিয়াও চলছিল। বর্তমান সরকার তা রূপায়িত করেছে। সে জন্য সাধুবাধ।’’ একই বক্তব্য বিজেপি-র রাজ্য কমিটি সদস্য অর্জুন সাহারও। তিনি বলেন, ‘‘আমরাও বহুবার থানা গঠনের দাবি জানিয়েছি। কারণ, মল্লারপুর সংলগ্ন এলাকা থেকে ময়ূরেশ্বরের দুরত্ব ১০-১২ কিলোমিটার। ছোটখাটো সমস্যার সমাধান পুলিশ ফাঁড়ি থেকে হলেও বড় কিছু ঘটলে ছুটতে হতো সেই ময়ূরেশ্বরে। এ বারে সেই দুর্ভোগ ঘুচবে। সেই হিসেবে সরকারের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাচ্ছি।’’

জেলা প্রশাসন ও স্থানীয় সূত্রের খবর, মল্লারপুর পুলিশ ফাঁড়িকে থানায় রূপান্তরের দাবি দীর্ঘ দিনের। সেই দাবি মেনে বুধবার মল্লারপুরে থানা গড়ার কথা রাজ্য ঘোষণা করতেই স্থান নির্বাচন নিয়ে শুরু হয়ে যায় প্রশাসনিক তৎপরতা। নিজস্ব বাড়ি তৈরি না হওয়া পর্যন্ত অস্থায়ী ভাবে থানা চালু করতে প্রাথমিক ভাবে দু’টি স্থানকে বাছাই করা হয়েছে। এক, স্থানীয় কিসান মান্ডি এবং দুই, মল্লারপুর হাইস্কুল। আগামী এপ্রিল মাসের মধ্যেই নতুন থানার কাজ চালু হয়ে যাবে বলে প্রশাসনিক সূত্রের খবর। ময়ূরেশ্বর ১ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি ধীরেন্দ্রমোহন বন্দ্যোপাধ্যায় বলছেন, ‘‘থানার নিজস্ব বাড়ি তৈরির জন্য কিসান মান্ডি সংলগ্ন এলাকায় জমি বাছা আছে। যত দিন সেই বাড়ি তৈরি না হয় তত দিন কিসান মান্ডি কিংবা হাইস্কুলে অস্থায়ী ভাবে কাজ চালানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।’’

আরও পড়ুন

Advertisement