Advertisement
২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

রেলগেট বন্ধ, ঘুরপথে যাতায়াত

প্রহরী বিহীন লেভেল ক্রসিং বন্ধ হয়ে সমস্যায় পড়েছেন পুরুলিয়া শহরের ২১ নম্বর ওয়ার্ড ও লাগায়ো রাঘবপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের একাংশের বাসিন্দারা। পাওয়ার হাউস বাইলেন হয়ে সুফলপল্লি, শান্তিপল্লি, কর্পূর বাগান ও পুরুলিয়া ২ ব্লকের রাঘবপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় যেতে ওই লেভেল ক্রসিংটি পড়ে।

বন্ধ: এই রেলগেট নিয়েই সমস্যা। নিজস্ব চিত্র

বন্ধ: এই রেলগেট নিয়েই সমস্যা। নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব সংবাদদাতা
পুরুলিয়া শেষ আপডেট: ১৮ এপ্রিল ২০১৭ ০২:১০
Share: Save:

প্রহরী বিহীন লেভেল ক্রসিং বন্ধ হয়ে সমস্যায় পড়েছেন পুরুলিয়া শহরের ২১ নম্বর ওয়ার্ড ও লাগায়ো রাঘবপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের একাংশের বাসিন্দারা। পাওয়ার হাউস বাইলেন হয়ে সুফলপল্লি, শান্তিপল্লি, কর্পূর বাগান ও পুরুলিয়া ২ ব্লকের রাঘবপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় যেতে ওই লেভেল ক্রসিংটি পড়ে। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহেই রেল সেটি বন্ধ করে দিয়েছে।

বিগত কয়েক বছরে শহরের এলাকা বেড়েছে। রেল লাইনের পারে বসতি গড়ে উঠেছে। ওই এলাকার বাসিন্দাদের এতদিন শহরের সঙ্গে যোগাযোগ রাখার সহজ রাস্তা ছিল পাওয়ার হাউস বাইলেন। বছর দুয়েক আগে ওই রাস্তার প্রহরী বিহীন লেভেল ক্রসিংয়ে ট্রেনের ধাক্কায় এক ফুটবলার-সহ দুই যুবকের ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়।

এলাকার বাসিন্দাদের দাবি, ওই দুর্ঘটনার পরে তাঁরা যাবতীয় সাবধানতা নিয়ে চলতেন। তার পরেও লেভেল ক্রসিং বন্ধ করে দেওয়ায় তাঁরা সমস্যায় পড়েছেন। ওই এলাকার বাসিন্দা প্রতীক মাহাতো, তরুণ সহিস, নিশীথ সহিসেরা বলেন, ‘‘ক্রসিংটি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় দোকান বাজার করতে হচ্ছে অনেক ঘুরে ঘুরে।’’ রেলের পক্ষ থেকে ক্রসিংটি বন্ধ করে দেওয়ার পরে গোশালা লেভেল ক্রসিং পর্যন্ত বিকল্প একটি রাস্তা করে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু দেশবন্ধু রোড বা বাজারে যেতে হলে প্রায় দু’কিলোমিটার ঘুরপথে যেতে হয় বলে তাঁরা জানান। ওই জায়গায় লাইনের নীচ দিয়ে সাবওয়ে তৈরির দাবি তুলেছেন তাঁরা।

শহরের দিকে লাইনের ধারে কিছু দোকানপাট রয়েছে। সেগুলি অন্য পারের জনবসতির ভরসায় চলে। ব্যবসায়ী স্বপন সহিস, চায়ের দোকানদার অমর তিওয়ারির কথায়, ‘‘এখন এ দিকে কোনও খদ্দেরই আসছে না। রেলগেট বন্ধ হওয়ার পর থেকে বিক্রিবাটা খুব কমে গিয়েছে।’’

ডিআরএম (আদ্রা) অনশূল গুপ্ত বলেন, ‘‘দুর্ঘটনা রোখার জন্যই ওই প্রহরী বিহীন লেভেল ক্রসিংটি বন্ধ করা হয়েছে। ওই এলাকা থেকে কোন আবেদনও রেলের কাছে আসেনি। এলে বিবেচনা করা হবে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE