×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৩ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

ঘরছাড়াদের ফেরাতে ধর্না

নিজস্ব সংবাদদাতা 
রামপুরহাট০৪ ডিসেম্বর ২০২০ ০৪:৪৬
চলছে ধর্না। নিজস্ব চিত্র

চলছে ধর্না। নিজস্ব চিত্র

জমি সংক্রান্ত বিবাদে রামপুরহাট থানার মাসড়া অঞ্চলে ঘরছাড়া তিন আদিবাসী পরিবারকে ঘরে ফেরানোর দাবিতে থানার সামনে ধর্না মঞ্চ গড়লেন বিজেপি কর্মীরা। বৃহস্পতিবার দুপুরে রামপুরহাট থানার সামনে ঘণ্টাখানেকের বেশি ধর্না মঞ্চে ছিলেন বিজেপির জেলা নেতৃত্ব সহ ঘরছাড়া আদিবাসী পরিবারগুলি। এ দিনই আবার গণতন্ত্র ফেরানোর দাবি সহ এবং বিজেপি কর্মীদের মিথ্যা মামলার ফাঁসানোর প্রতিবাদে রামপুরহাট থানায় স্মারকলিপি জমা দেয় বিজেপির যুব মোর্চা। স্মারকলিপি প্রদানের আগে রামপুরহাট কামারপট্টি মোড়ে বিজেপির কার্যালয় থেকে রামপুরহাট থানা পর্যন্ত মিছিল করেন বিজেপি কর্মীরা।

নেতৃত্বর অভিযোগ, রামপুরহাট থানার মাসড়া অঞ্চলের তাঁতবাঁধা, ঠাকুরপুরা, শুলুঙ্গা, বড়জোল এই তিনটি গ্রামের চারটি আদিবাসী পরিবার বেশ কিছু দিন হল ঘরছাড়া। বিজেপির জেলা যুব মোর্চা সভাপতি শান্তনু মণ্ডলের অভিযোগ, ‘‘মাসড়া অঞ্চলের তৃণমূল প্রধান দিলীপ কিসকুর মদতে এলাকা থেকে চারটি আদিবাসী পরিবারের কাছ থেকে জোর করে টাকা আদায় করা হয়েছে। তার পরে মারধর করে গ্রামছাড়া করা হয়েছে।’’ ঘরছাড়া ওই পরিবারের সদস্যরা পুলিশের কাছে অভিযোগে জানিয়েছেন, আরও টাকা আদায়ের জন্য চাপ দেওয়া হচ্ছে। 

প্রধান দিলীপ কিসকু সে কথা মানতে চাননি। তাঁর দাবি, ‘‘ঘটনার সঙ্গে রাজনীতির সম্পর্ক নেই। এলাকায় আদিবাসী সম্পত্তি বেনামে অন্য জনকে বিক্রি করা হয়েছে। সেই অভিযোগে এলাকার মানুষ জন ওই ফায়সালা করেছিল। শেষ মুহূর্তে সেটা আমাকে জানানো হয়।’’ এলাকার আদিবাসী গাঁওতা নেতা রবীন সোরেনেরও দাবি, ‘‘আদিবাসী সম্পত্তি বেনামে বিক্রি নিয়ে গণ্ডগোল। এর সঙ্গে রাজনীতির সম্পর্ক নেই।’’ ঠিক কী হয়েছে জানতে শুক্রবার উভয়পক্ষকে থানায় ডাকা হয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে।     

Advertisement
Advertisement